এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > ভোট মেটার পরেই বিজেপি কর্মীকে গ্রেফতারের অভিযোগ উঠলো সরকারের বিরুদ্ধে

ভোট মেটার পরেই বিজেপি কর্মীকে গ্রেফতারের অভিযোগ উঠলো সরকারের বিরুদ্ধে

ভোট পর্ব মিটতেই বিজেপির বিরুদ্ধে সক্রিয় হতে দেখা গেল মধ্যপ্রদেশ সরকারকে। সম্প্রতি মধ্যপ্রদেশের সাগর এলাকা থেকে গ্রেফতার হলে এক বিজেপি কর্মী। ধৃতের নাম সুধীর যাদব। এবারের বিধানসভা ভোটে বিজেপি প্রার্থী হিসাবে ভোটে দাঁড়িয়েছিলেন তিনি।

সদ্য প্রকাশিত হয়েছে মধ্যপ্রদেশের বিধানসভা নির্বাচনের ফলাফল। তার ফলে ১৫ বছর ধরে রাজ্য শাসন করা বিজেপিকে হারিয়ে ক্ষমতায় এল কংগ্রেস। গঠিত হল কংগ্রেস পরিচালিত রাজ্য সরকার। মুখ্যমন্ত্রী পদে অভিষেক হল দলের প্রবীন নেতা কমলনাথের। আর তার পরদিনই গ্রেফতার হলেন বিজেপি প্রার্থী সুধীর যাদব।

রাজনৈতিক সূত্রের খবর,এবার মধ্যপ্রদেশের সুখরি বিধানসভা কেন্দ্র থেকে প্রার্থী হয়েছিলেন সুধীর। তাঁর বার লক্ষী নারায়ণ যাদবও ওই রাজ্যেই সাগর লোকসভা কেন্দ্র থেকে বিজেপির টিকিটে জিতে সাংসদ হয়েছিলেন। সেই সাগর লোকসভা কেন্দ্রের অধীনেই রয়েছে সুখরি বিধানসভা কেন্দ্র।

সুধীর যাদবের বিরুদ্ধে অভিযোগ,বিধানসভা নির্বাচনের ভোটগ্রহণের দিন বুথের বাইরে এক ব্যক্তিকে মারধোর করেন। কংগ্রেস প্রার্থী গোবিন্দ সিং রাজপুতকে আক্রান্ত ওই ব্যক্তি ভোট দিচ্ছিলেন বলেই তাকে বেধড়ক মারধোর করা হয়। পুলিশি তদন্ত সূত্রে জানা গিয়েছে, আক্রান্ত ওই অভিযোগকারীর নাম দীপক। তিনি বয়ানে জানিয়েছেন, ভোট দিতে যাওয়ার দিন বুথের বাইরে তাকে ধরে সুধীর যাদব এবং তাঁর অনুগামীরা।

দীপককে আটক করে সে কোন চিহ্নে ভোট দিতে যাচ্ছে তা বেআইনিভাবে জানতে চাওয়া হয়। দীপক কংগ্রেস প্রার্থীরা ভোট দেবে একথা জানতে পেরেই বেধড়ক মারধোর শুরু করে সুধীর যাদব ও তাঁর দলবলেরা। ১০ থেকে ১২ জন সেদিন দীপকের উপর চড়াও হয়েছিলো বলেও অভিযোগে জানান তিনি। আক্রান্তের অভিযোগের উপর ভিত্তি করেই এদিন গ্রেফতার করা হয় সুধীর যাদবকে। আদালতে তাঁর জামিনের আবেদনও খারিজ করে দিয়েছে সাগর কোর্টের বিচারক।

উল্লেখ্য,কংগ্রেস ক্ষমতায় আসার পর বিজেপি প্রার্থী গ্রেফতার হওয়ার ঘটনায় শোরগোল পড়ে গিয়েছে রাজনৈতিকমহলে। দীর্ঘ ১৫ বছর ধরে মধ্যপ্রদেশে রাজ করেছে বিজেপি। কিন্তি গত কয়েক বছর ধরেই প্রতিষ্ঠান বিরোধী হাওয়া উত্তাল ছিল এই রাজ্যে। এই সুযোগকে কাজে লাগিয়েই ক্ষমতায় ফিরল কংগ্রেস।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এখানে

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

ওদিকে,সামনেই লোকসভা ভোট। এই সময় কেন্দ্র থেকে বিজেপি সরকারকে উৎখাত করতে কংগ্রেসের একমাত্র কাজ হল বিজেপির ভাবমূর্তিকে নষ্ট করা। এমনিতেই হিন্দিবলয়ের বিধানসভা ভোটে অপ্রত্যাশিত হারের পর আত্মবিশ্বাসে আঘাত লেগেছে বিজেপির। তারপর বিরোধীরা যদি এভাবে বিজেপি বিরোধী কর্মসূচি জোরদার করে তাহলে লোকসভা ভোটের আগে সোজা হয়ে দাঁড়াতে বেশ বেগ পেতে হবে বিজেপিকে,এমনটাই মনে করছে বিশ্লেষকরা।56

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!