এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > ত্রিপুরায় বিজেপির সমালোচনায় এবার তৃণমূলের হেভিওয়েটরা

ত্রিপুরায় বিজেপির সমালোচনায় এবার তৃণমূলের হেভিওয়েটরা

ত্রিপুরাতে সিপিআইএমকে সরিয়ে এই প্রথমবার বিজেপি ক্ষমতায় এসেছে। এবার বিজেপির স্লোগান ছিল “চলো পাল্টাই।” বিজেপির জয়লাভের পর নানা হিংসাত্মক ঘটনা ঘটছে। আর তাই এবার একে হাতিয়ার করে তৃণমূলের দাবি নির্বাচনে জয়লাভের পর ত্রিপুরায় ব্যাপকভাবে হিংসা ছাড়াচ্ছে বিজেপি।তাদের দাবি তারা যখন ক্ষমতায় এসেছিলো তখন তাদের স্লোগান ছিল “বদলা নয়, বদল চাই” আর রাজ্যে তাই হয়েছিল কিন্তু বিজেপি তা করছে না।ত্রিপুরাতে সাধারণ মানুষকেও বিপদে ফেলছে বিজেপি।আর এই নিয়ে রাজ্যে তৃণমূল মন্ত্রীসভার মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম থেকে শুরু করে সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় এমনকি মুখ্যমন্ত্রীও এই নিয়ে বিজেপিকে কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছেন এবং তার কঠোর সমালোচনা করেছেন ।এদিন ফিরহাদ হাকিম কার্যত বিজেপিকে উগ্রপন্থী ঠাহর করে বলেন, ”উগ্র হিংসার রাজনীতি করা ছাড়া এই সরকার কিছু করতে জানে না। তালিবানরা যেমন উগ্র মনোভাবাপন্ন, তেমনই বিজেপি সরকারের প্রতিনিধিরা। সর্বদাই দাঙ্গা বাঁধানোর পরিকল্পনা করে চলেছে। এখনও সরকার গড়েনি ত্রিপুরায়। এরই মধ্যে উত্তাপ ছড়িয়েছে। যে পরিবর্তন ওই রাজ্যে এসেছে, তাতে মানুষের রাতের ঘুম চলে যাওয়ার জোগাড় হয়েছে।” সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ও বিজেপি সরকারকে দাঙ্গাবাজের সরকার বলে অভিহিত করেন। তিনি বলেন , “সরকার গঠনের আগেই মূর্তি ভাঙতে বুলডোজার চালাচ্ছে, এরপর তাহলে রাজ্যে কী শোষণ চালাবে, তা সহজেই অনুমেয়। এর বিরুদ্ধে আমাদের প্রতিবাদ চলবে।” মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় লেলিনে মূর্তি ভাঙা প্রসঙ্গে বাঁকুড়া থেকে বললেন, “মূর্তি ভাঙা সরকারের কাজ নয়। আমাদের প্রতিবাদ চলবে এই অত্যাচারের বিরুদ্ধে।”

Top
error: Content is protected !!