এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে আক্রমণের ঝড় তুললো রাজ্য বিজেপি

রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে আক্রমণের ঝড় তুললো রাজ্য বিজেপি

এবার রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে সমালোচনার ঝড় তুললো রাজ্য বিজেপি। গত মঙ্গলবার বিজেপি তিনটি সভা আয়োজন করে যার দুটি করা হয় উলুবেড়িয়ায় এবং একটি সওহয় চুঁচুড়ায়। এদিন সভায় উপস্থিত ছিলেন রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়, লকেট চট্টোপধ্যায় , মুকুল রায় সহ আরও‌বেশ কিছু নেতা-মন্ত্রী। সভায় প্রায় প্রত্যেকেই বর্তমান সরকার সহ মুখ্যমন্ত্রী কে নিয়ে নানা সমলচনা করেন। সারাভারত কীর্তন-বাউল ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট আয়োজিত ভক্তি শিল্পী সংসদের জেলা সম্মেলন অনুষ্ঠীত হয় হুগলির চুচুড়া ‌এবং উলুবেড়িয়ার খলিসানির শুড়িখালিতে। উক্ত সভায় রজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ এবং মুকুল রায় সহ অন্যান্যরাও‌ বক্তব্য রাখেন। পাশাপাশি বাবুল‌ সুপ্রিয় উলুবেড়িয়ার ইটগাছার খড়িয়া‌ ময়নাপুরে বিজেপির প্রার্থী অনুপম‌ মল্লিকের ওপর ‌আস্থা রেখে, রাজ্য সরকার সহ মুখ্যমন্ত্রীর নিন্দায় সরব হন।
সেই‌ সভায় দিলীপ বাবু তৃণমূল‌কে ডুবন্ত সুর্যের সাথে তুলনা করে বলেন যে তৃণমূল‌যে কোন‌‌ দিন টুক‌ করে ডুবে যাবে। শিল্প-শিক্ষা-স্বাস্থ্য বাবস্থার বিশৃঙ্খলার অভিযোগ করে দিলিপ বাবু চুঁচুড়ার সভায় সরকারের তীব্য সমালোচনা করেন। তিনি তৃণমূলকে তোলাবাজি আর সন্ত্রাসে ওপর ভর করে চলা দল‌‌ বলেও আক্রমণ করেন। দিলীপবাবু জানান যে সিভিক পুলিশ এখন রাজ্য সামলাচ্ছে। পুলিশ তোলা তুলছে আর সিভিক‌‌ ভলেন্টিয়াররা পুলিশ প্রশাসন চালাচ্ছে।
হুগলিতে নিত্য দিন ঘটে যাওয়া খুন-জখমের কারণ তুলে তিনি বলেন যে পশ্চিমবঙ্গ এখন আইএসআইয়ের চরে ভর্তি হয়ে গেছে।
এদিন‌ দিলীপ বাবু নাম ‌না করে অনুব্রত মন্ডলকে আক্রমন করে বলেন হিংসা-সন্ত্রাসের মূল উৎস বীরভুমের‌ নেতা।
উক্ত সভায় লকেট চট্টোপাধ্যায়, মুকুল রায়, শমীক ভট্টাচার্য, বিশ্বপ্রিয় রায়চৌধুরি এবং আরও‌দলীয় নেতৃত্বরা। এদিনের সভায় লোকজনের উপস্থিতি ছিলো উল্লেখযোগ্য।
এদিন কেন্দ্রী মন্ত্রী বাবুল‌ সুপ্রিয় গেরুয়া শিবিরের প্রতি মানুষের ভালোবাসা নিয়ে আবেগঘন হয়ে পড়েন অন্যদিকে রাজ্যসরকারের নিন্দা করে বলেন যে রাজ্যে উন্নয়নের নামে উৎসব চলছে। তৃণমূল রাজ্য জুড়ে সন্ত্রাস চালাচ্ছে।
বাম‌আমলের‌ সাথে তুলনা টেনে বাবুল বাবু বলেন ,”বামের ৩৪ বছরে যা কমাতে পারিনি এরা ৬ বছরে তার কয়েক গুন কমিয়ে নিয়েছে , এখন পুসভার কউন্সিলারের বাড়িতেও লিফট বসানো হচ্ছে।” বাবুল বাবু আরও‌বলেন যে তৃণমূলের ক্যাডার না হলে কেন্দ্রীয় আবাস যোজনায়‌এরা গরিব মানুষকে ঘর দিচ্ছে না।
উলুবেড়িয়ার বাউল-কীর্তনীয়াদের সম্মেলনে মুকুল রায় শিল্পি দের নিয়ে ছেলে‌খেলা করার কথা জানিয়ে সরকারে তীব্র নিন্দা করেন। তিনি বলেন যে শীল্পিদের প্রতি সম্মান, শ্রদ্ধা-ভালোবাসা না দেখিয়ে সামান্য টাকা বা ভাতা দিয়ে তাদের কিনে‌ নিচ্ছে রাজ্য সরকার।
একই‌ বিষয় নিয়ে ভক্তিশিল্পী সংসদের সভাপতি সিদ্ধার্থ শেখর দাস এবং আরও‌ বেশ কয়েকজন সদস্য তাদের‌ মতামত জানান।
পাশাপাশি সকল শিল্পি ৯ দফা দাবী পেশ করেন রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের কাছে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!