এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > গণনায় জিত বিজেপির, এজেন্ট বের করে দিয়ে পুনর্গনণায় জিত তৃণমূলের

গণনায় জিত বিজেপির, এজেন্ট বের করে দিয়ে পুনর্গনণায় জিত তৃণমূলের

গণনায় জিৎ বিজেপির, এজেন্ট বের করে দিয়ে পুনর্গনণায় জিৎ তৃণমূলের। পুরুলিয়ার রঘুনাথপুর-১ ব্লকের জেলা পরিষদের একটি আসনে প্রার্থী ছিলেন তৃণমূলের বিদায়ী কৃষি কর্মাধ্যক্ষ অনাথবন্ধু। ভোটের প্রাথমিক গণনায় ৪৫৬ ভোটে বিজেপি প্রার্থী গণেশকুমার সিংহের কাছে হেরে যান। এদিন রঘুনাথপুর থানায় ভিডিও অনির্বান মন্ডল অভিযোগ জানান যে বিজেপি এজেন্টরা ভোট গণনা শেষ হওয়ার পূর্বেই চাপ দিয়ে নিজেদের দলের প্রার্থীর হাতে শংসা পত্র তুলে দেয়। অভিযোগ জানানোর পর নির্বাচন কমিশন ফের ভোট গণনার নির্দেশ দেয়।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

পুনর্গণনার পর অনাথবন্ধু মাঝি ১০২৯ ভোটে জেতেন। এই সম্পূর্ণ ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে কমিশনার অমরেন্দ্রকুমার সিংহ জানিয়েছেন, ”এখন তো বোঝা যাচ্ছে না। জেলা প্রশাসনের কাছ থেকে রিপোর্ট চাওয়া হয়েছে। কত ভোট অবৈধ হয়েছে, দেখতে হবে।” কমিশনার হিসাবে পঞ্চায়েত ভোটের অভিজ্ঞতার প্রশ্ন উঠলে তিনি সে বিষয় কিছু জানাতে চান নি। বিজেপির বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ অস্বীকার করে এদিন বিজেপির জেলা সভাপতি বিদ্যাসাগর চক্রবর্তী জানান, ”আমরা জানতাম, শাসক দলের শীর্ষ নেতৃত্বের চাপে আমাদের প্রার্থীকে হারানো হবে। তাই পুনর্গণনা বয়কট করেছিলাম। গণেশ আদালতে যাবেন।” এই প্রসঙ্গে পুরুলিয়ার জেলাশাসক অলকেশপ্রসাদ রায় জানান, ”সমস্ত দলের প্রার্থীকে চিঠি দিয়ে পুনর্গণনার কথা জানানো হয়েছিল। কেউ না এলে প্রশাসনের কিছু করার নেই।” এদিকে অনাথবন্ধুবাবু এদিন আত্মবিশ্বাসের সাথে জানিয়েছেন, ”আগেই বলেছিলাম, জিতব। সুষ্ঠু ভাবে গণনা হওয়ায় দেখা গেল, সেটাই ঠিক!” পুনর্গণনার পর এই জেলার ৩৮ টি জেলা পরিষদের আসনের মধ্যে ২৬টি গেলো তৃণমূলের ঝুলিতে, বিজেপি পেলো ৯টি আসন এবং কংগ্রেসের রইলো ৩টি আসন।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!