এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > পশ্চিমবঙ্গ থেকে তৃণমূলকে তাড়াতে ‘মারের বদলা মার’ চায়, দাবি বিজেপি যুবনেতার

পশ্চিমবঙ্গ থেকে তৃণমূলকে তাড়াতে ‘মারের বদলা মার’ চায়, দাবি বিজেপি যুবনেতার

পঞ্চায়েত নির্বাচনের প্রস্তুতি এখন জোর কদমে শুরু হয়ে গিয়েছে। বুধবার বিজেপির বর্ধমান জেলা বিজেপি যুব মোর্চার উদ্যোগে বর্ধমান স্টেশন থেকে কার্জন গেট পর্যন্ত তাসা পার্টি নিয়ে মহা জাগরণ যাত্রা ও প্রতিবাদ সভা পালন করা হল। এদিনের সভায় বক্তব্য বলেন বিজেপির জেলা সভাপতি সন্দীপ নন্দী, অরুণ জ্যোতি তেওয়ারি, ধ্রুব সাহা প্রমুখ। বিজেপির জেলা যুব মোর্চার সভাপতি শ্যামল রায় বলেন, মারের বদলা মার। তা না হলে পশ্চিমবঙ্গ থেকে তৃণমূল কংগ্রেসকে তাড়ানো সম্ভব নয়। এদিন এই সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে যুব মোর্চার রাজ্য সভাপতি দেবজিত সরকার বলেন, ২১ জুলাই শহীদ দিবসের মূল দোষীরাই আজ নব্য তৃণমূল। তারাই আজ তৃণমূলের বিভিন্ন মন্ত্রী পদে রয়েছেন। তিনি আরো বলেন, সাঁইবাড়ি হত্যাকাণ্ড নিয়ে কমিশন থেকে আজও কোনো উত্তর পাওয়া যায়নি। তারপর তিনি তাঁর আক্রমণের তীর পুলিশের দিকে ঘুরিয়ে দিয়ে বলেন, পুলিশ আজকাল তৃণমূলের দাস এবং বিজেপি নেতা কর্মীদের উপর পুলিশ প্রশাসন, শাসকদল নানাভাবে অত্যাচার চালাচ্ছে। রাজ্যে ২৫ ডিসেম্বর যুবমোর্চা অকাল রাখিবন্ধন পালন করবে বলেও জানান তিনি এবং বলেন, যে গতিতে ভারতীয় জনতা পার্টি এবং তার সহযোগী সংগঠনগুলি এগোচ্ছে তাতে আর পাসপোর্ট নিয়ে অন্যদেশে, জন্মস্থানে যেতে হবে না। এদিনের বক্তব্যে যুব মোর্চার কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি জাজ হুসেন রাঠের বলেন, পশ্চিমবঙ্গ এখন বাংলাদেশ থেকে আসা লোক শাসন করছে। তাই পশ্চিমবঙ্গ এখন স্বাধীন নয়। কিন্তু বিজেপি সমর্থ হয়েছে কাশ্মীরকে স্বাধীন করতে এবং তিনি বলেন অনেকে এখানে বিজেপি কিন্তু পুলিশ প্রশাসনের ভয়ে তারা তৃণমূল করতে বাধ্য হচ্ছে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!