এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > রাজ্য বিজেপিতে সাংগঠনিক পরিবর্তন আসন্ন? কি বলছেন রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ?

রাজ্য বিজেপিতে সাংগঠনিক পরিবর্তন আসন্ন? কি বলছেন রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ?

লোকসভা নির্বাচনে তার হাত ধরে এই রাজ্যে ভালো ফল করেছে বিজেপি। 2 থেকে একেবারে 18 আসনে বিজেপিকে পৌঁছে দিতে সক্ষম হয়েছেন বঙ্গ বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ। নিজেও মেদিনীপুর লোকসভা কেন্দ্র থেকে জয়লাভ করে সাংসদ হয়েছেন।

তবে সাংসদের দায়িত্ব পেয়ে দিলীপ ঘোষের দায়িত্ব অনেকাংশেই বেড়ে যাওয়ায় তাকে সভাপতি পদ থেকে সরানো হতে পারে বলে বিভিন্ন মহলে জল্পনা তৈরি হয়েছিল। কিন্তু আগামী 2021 এর বাংলার বিধানসভা নির্বাচনের আগে পর্যন্ত যে দিলীপ ঘোষই বঙ্গের বিজেপি সভাপতি থাকবে, তা কার্যত নিশ্চিত করে দিয়েছে গেরুয়া শিবিরের শীর্ষ নেতৃত্ব।

বস্তুত, গত 2015 সালে রাহুল সিনহাকে সরিয়ে বিজেপির রাজ্য সভাপতি করা হয় দিলীপ ঘোষকে। গেরুয়া শিবিরের সংবিধান অনুযায়ী, তিন বছর এই পদের মেয়াদ থাকে। ফলে 2018 সালেই নিজের সভাপতি পদের প্রথম অধ্যায় শেষ করেছেন দীলিপবাবু। কিন্তু ভালো পারফরমেন্সের জন্য দলের পক্ষ থেকে তাকে দ্বিতীয় অধ্যায়ের সূচনা করতে বলা হয়েছিল।

সেই মতো কাজও করে যাচ্ছিলেন তিনি। তবে একজন সভাপতি দুইবার পরপর তিন বছর করে সভাপতিত্ব করতে পারেন, এটাই বিজেপি পার্টির সংবিধান। ফলে বিভিন্ন মহলে দিলীপ ঘোষকে সভাপতি পদ থেকে সরিয়ে দেওয়ার জল্পনা সৃষ্টি হলেও 2021 এর বিধানসভা নির্বাচনে যে দিলীপ ঘোষকে দিয়েই নির্বাচনে ঝাঁপাতে চলেছে বঙ্গ বিজেপি, সেই ব্যাপারে নিশ্চিত প্রায় প্রত্যেকেই।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

পাশাপাশি প্রাক্তন তৃণমূল নেতা তথা বর্তমান বিজেপি নেতা মুকুল রায় যাতে তৃণমূল থেকে ভাঙানোর কাজ এবং তৃণমূলের বিরুদ্ধে নানা অস্ত্র প্রয়োগ করার কাজ করে রাজ্যের শাসকদলের অস্বস্তি বাড়াতে পারেন, সেই ব্যাপারেও ইচ্ছা প্রকাশ করেছে দিল্লির বিজেপি নেতৃত্ব। ফলে দিলীপ-মুকুল জুটির ওপর ভরসা রেখেই বাংলায় বিজেপিকে ক্ষমতায় আনতে চাইছে মোদী শাহ জুটি। কিন্তু দিলীপ ঘোষ রাজ্য সভাপতি পদে বহাল থাকলেও বিজেপিতে কি কিছু সাংগঠনিক পরিবর্তন হবে!

সূত্রের খবর, গত শনিবার এবং রবিবার দুর্গাপুরে রাজ্য বিজেপি দুদিনের চিন্তন বৈঠক হয়েছে। আর সেখানেই রাজ্যের পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীযর সরে যাওয়া এবং অরবিন্দ মেননকে বাংলার পূর্ণ দায়িত্ব দেওয়ার জল্পনা ছড়িয়েছে। কিন্তু পর্যবেক্ষকের দায়িত্বে পরিবর্তন আসলেও রাজ্য বিজেপির সংগঠনে ঠিক কি পরিবর্তন আসছে!

এদিন এই প্রসঙ্গে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, “কিছু সাংগঠনিক পরিবর্তন অবশ্যই হবে। সদস্যতা অভিযান শুরু হয়েছে। তারপর সক্রিয় সদস্যতা অভিযান শুরু হবে। সেপ্টেম্বর থেকে নতুন করে সমিতি গঠন হবে। ডিসেম্বরে মধ্যেই কাজ শুরু হবে।”

তবে সাংগঠনিক পরিবর্তন হলেও তাদের যে মূল টার্গেট আগামী বিধানসভা নির্বাচনে অর্থাৎ 2021 এ তৃণমূলকে সাফ করে দেওয়া তা ইঞ্চিতে ইঞ্চিতে বুঝিয়ে দিয়েছেন দিলীপ ঘোষ। সব মিলিয়ে 2021 এ বাংলায় ক্ষমতায় আসাকে পাখির চোখ করা বিজেপি নেতৃত্ব এখন বাংলার সংগঠনে ঠিক কি কি পরিবর্তন আনে! সেই দিকেই তাকিয়ে সকলে।

Top
error: Content is protected !!