এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > বিজেপি-র রাজ্য কমিটির সদস্যর বিরুদ্ধে টাকা হাতানোর অভিযোগ,তলব লালবাজারে

বিজেপি-র রাজ্য কমিটির সদস্যর বিরুদ্ধে টাকা হাতানোর অভিযোগ,তলব লালবাজারে

এবার বিজেপি সরকারের প্রকল্পের সঙ্গেই দুর্নীতিকান্ডে যুক্ত হল এক বিজেপি নেতার নাম। মোদীসরকারের প্রকল্প উজ্জ্বলা যোজনার মাধ্যমে গ্যাস পাইয়ে দেওয়ার নাম করে টাকা সরিয়েছেন বিজেপি নেতা রঞ্জিত মজুমদার। এমনটাই অভিযোগ। এ খবর প্রকাশ্যে আসতেই হইচই পড়ে যায় রাজনৈতিকমহলে।

এদিকে, হাতে গোনা আর কয়েকমাস বাকি লোকসভা ভোটের। তার আগেই কেন্দ্রীয় সরকারের প্রকল্পকে কেন্দ্র দুর্নীতিমূলক কান্ডে বিজেপি নেতার নাম জড়ানোয় তীব্র অস্বস্তিতে পদ্মশিবির। এর জেরে বিজেপির ভাবমূর্তি নষ্ট হওয়ার আশঙ্কায় ভুগছেন হেভিওয়েট বিজেপি নেতারা।

পুলিশ সূত্র থেকে জানা গিয়েছে, উওর ২৪ পরগনা, দক্ষিণ ২৪পরগনা, হাওড়া, হুগলিতে উজ্জ্বলা যোজনার মাধ্যমে গ্যাস পাইয়ে দেওয়ার নাম করে টাকা তুলতেন রঞ্জিত বাবু। এসব এলাকায় বিজেপির প্রতিনিধি হিসাবে কেন্দ্রীয় প্রকল্পগুলো দেখার দায়িত্ব ছিল তার কাঁধে।

অভিযোগ, রঞ্জিত বাবুর কথা অনুযায়ী গ্রাহকরা টাকা দিলেও মেলেনি রান্নার গ্যাস। বিষয়টিতে দুর্নীতির গন্ধ পেয়ে গ্রাহকদের তরফ থেকে লিখিত অভিযোগ জমা করা হয় রাজ্য বিজেপির দপ্তরে। এরপরই বিষয়টি খতিয়ে দেখতে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে রাজ্য বিজেপি কর্তৃপক্ষ। সমস্তরকম বিতর্ক এড়াতে পরে দায়িত্ব থেকে ছাটাই করা হয় রঞ্জিতবাবুকে। ইস্যুটি নিয়ে লালবাজারেও অভিযোগ দায়ের করেন প্রতারিতরা। এই অভিযোগের উপর ভিত্তি করেই পর পর দুদিন তাকে তলব করা হয় লালবাজার থানায়।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

বিষয়টি নিয়ে সরব হলেন বিজেপি-র সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু। তিনি জানান,কেউ যদি নিজের দায়িত্বে টাকা তোলে সেটা দলের দোষ নয়,সম্পূর্ণই তার নিজের ব্যাপার। তবে অভিযোগের উপর ভিত্তি করে রঞ্জিত বাবুকে দায়িত্ব থেকে সরানো হয়েছে। কিন্তু ওনার বিরুদ্ধে এখনো কোনো উপযুক্ত প্রমাণ রাজ্য বিজেপির হাতে আসেনি। তবে এই ইস্যুতে তদন্ত জারি আছে বলেই জানালেন তিনি এদিন।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!