এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > পুরুলিয়া-ঝাড়গ্রাম-বাঁকুড়া > উলটপুরাণ! সংখ্যাগরিষ্ঠতা থাকলেও বোর্ড গড়তে পারল না তৃণমূল, নির্দলকে সমর্থন করে বিজেপির কামাল

উলটপুরাণ! সংখ্যাগরিষ্ঠতা থাকলেও বোর্ড গড়তে পারল না তৃণমূল, নির্দলকে সমর্থন করে বিজেপির কামাল

গোষ্ঠীদ্বন্দ্বই যেন কাল হচ্ছে শাসকদলের – আর তাইতো গোপীবল্লভপুর ২ নম্বর ব্লকের বেলিয়াবেড়া গ্রাম পঞ্চায়েতে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েও এবার প্রধান পদ হারিয়ে ফেলল তৃণমূল। যে ঘটনায় প্রবল চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে এলাকায়। কিন্তু কেন এহেন পরিস্থিতির সৃষ্টি হল? অনেকেই বলছেন, গোপীবল্লভপুর ২ নম্বর ব্লক তৃণমূল সভাপতি কালিপদ শূর এবং ব্লক যুব তৃণমূলের সভাপতি হরেণ মাহাতোর গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের ফলেই এই ঘটনা ঘটেছে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ১৩ আসনবিশিষ্ট এই বেলিয়াবেড়া গ্রাম পঞ্চায়েতে ভোট হওয়ার আগেই রমেশ বাগ ও তনুশ্রী দোলই নামে তৃণমূলের দুই সদস্য বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী হন। আর বাকি ১১ টি আসনের মধ্যে নির্বাচনে তৃণমূল ৬, নির্দল ১ এবং বিজেপি ৪ টি আসন দখল করে। ফলে সব মিলিয়ে তৃণমূলের সদস্য সংখ্যা দাঁড়ায় ৮। একাংশের অভিযোগ, তৃণমূল প্রার্থী অনন্ত সিংহের বিরুদ্ধে নির্দলের তপন শীটকে দাঁড় করিয়েছিলেন ব্লক যুব তৃনমূলের সভাপতি হরেন মাহাত। আর সেই তপন শীটই এই পঞ্চায়েতের প্রধান হওয়ায় প্রবল গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব তৈরি হয়েছে শাসকদল তৃণমূলের অন্দরে।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এখানে

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

জানা যায়, এই পঞ্চায়েতে তৃণমূলের প্রধান হিসেবে গৌতম খিলাড়ি এবং উপপ্রধান হিসেবে রমেশ বাগকে ঠিক করে দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু হঠাৎই রমেশ বাগ প্রধান পদে গৌতম খিলাড়ির নাম প্রস্তাব করেন। অন্যদিকে বিজেপির পক্ষ থেকে নির্দল প্রার্থী তপন শীটের নাম প্রধান পদে প্রস্তাব করা হয় – ফলে, শুরু হয় ভোটাভুটি। শেষে দেখা যায় নির্দলের তপন শীট তৃণমূলের দুটি বাড়তি ভোট পেয়ে প্রধান পদে জয়যুক্ত হন। আর এতেই তীব্র গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের ছায়া পড়েছে শাসক শিবিরে।

তৃনমূলের পক্ষ থেকে ঠিক কে বা কারা প্রধান পদে এই নির্দল প্রার্থীকে ভোট দিলেন এখন তা খোঁজার জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছেন শাসকদলের নেতারা। এদিকে নির্দল প্রার্থীকে সমর্থন করে সেই নির্দলের রতন শীটই প্রধান হওয়ায় আনন্দিত বিজেপিও। এদিন সেই প্রধানকে স্বাগত জানিয়েছেন ঝাড়গাম জেলা বিজেপির সভাপতি সুখময় শতপথী। সব মিলিয়ে এবার দলীয় গোষ্ঠীদ্বন্দ্বেই প্রধান পদ হারাল তৃণমূল – ফলে হাসি চওড়া হল গেরুয়া শিবিরের।

আপনার মতামত জানান -
Top