এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > পুরুলিয়া-ঝাড়গ্রাম-বাঁকুড়া > বিজেপি সাংসদ স্বামীর সরকারি গাড়ি ব্যবহার করে বিতর্কে জড়ালেন বিজেপি সাংসদ পত্নী

বিজেপি সাংসদ স্বামীর সরকারি গাড়ি ব্যবহার করে বিতর্কে জড়ালেন বিজেপি সাংসদ পত্নী


সাধারণত এমপিদের জন্য বরাদ্দ গাড়িতে এমপিরাই চড়তে পারেন। প্রয়োজনে অফিশিয়ালি কাউকে সাথে নিতে পারেন। কিন্তু এমপির গাড়িটি যদি নিজস্ব কাজের জন্য কেউ ব্যবহার করেন, তাহলে তা আইন যোগ্য অপরাধ বলেই ধরা হবে। সম্প্রতি এমপির গাড়ি ব্যবহার করার জন্য বিতর্কে জড়ালেন সাংসদ পত্নী। বিষ্ণুপুরের বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁয়ের গাড়ি নিজস্ব কর্মসূচিতে ব্যবহার করলেন তার স্ত্রী সুজাতা খাঁ। এই নিয়ে রাজনৈতিক মহলে চূড়ান্ত বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে। প্রশ্ন উঠেছে, এমপির গাড়ি কিভাবে নিজস্ব কাজে ব্যবহার করা যায়?

সোমবার পুরুলিয়া বিজেপির একটি দলীয় কর্মসূচিতে যোগ দিতে আসেন সৌমিত্র খাঁ এর স্ত্রী সুজাতা খাঁ। কিন্তু তিনি আসেন বিষ্ণুপুরের সাংসদ সৌমিত্র খাঁ এর গাড়িতে। আর এখান থেকেই শুরু হয়েছে বিতর্ক। যে গাড়িতে তিনি আসেন, সেটিতে মেম্বার অফ পার্লামেন্ট লেখার একটি বোর্ড লাগানো ছিল, সাথে অশোকস্তম্ভ চিহ্নও ছিল বলে জানা গেছে। যেহেতু সুজাতা খাঁ কোন এমপি নন, সেহেতু প্রশ্ন উঠেছে কিভাবে তিনি মেম্বার অফ পার্লামেন্ট লেখা বোর্ড লাগানো গাড়িটি ব্যবহার করলেন? আর কেনইবা করলেন?

সমালোচনার জবাবে সাংসদ পত্নী সুজাতা খাঁ পাল্টা তার স্বামীর সবকিছুই যে তাঁর ব্যবহারযোগ্য সে কথা বলেন। শুধু তাই নয়, সাংসদ পত্নী বিজেপি মহিলা মোর্চার সদস্য সুজাতা খাঁ এদিন জানান, ‘সংবিধানে কোথাও লেখা নেই যে এমপির গাড়ি তাঁর স্ত্রী ব্যবহার করতে পারবেন না। যদি এমন কোনো নিয়ম থাকত, নিশ্চয়ই মেনে চলতাম। পার্লামেন্ট, সংবিধান সংসদের স্ত্রীকে সমস্ত রকম সুবিধা দেয়। তাই গাড়ি তো আমি ব্যবহার করতেই পারি। এটা বেআইনি কিছু না।’

WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

সুজাতা খাঁ বিষ্ণুপুরের বিজেপির মহিলা মোর্চার নেত্রী। সোমবার তিনি পুরুলিয়ার গাড়ি খানায় মদ বিরোধী আন্দোলনে যোগ দিতে যান। আর সে কারণেই তিনি তাঁর সাংসদ স্বামী সৌমিত্র খাঁ এর মেম্বার অফ পার্লামেন্ট বোর্ড লাগানো গাড়িটি ব্যবহার করেন। পুরুলিয়ায় এদিন বিজেপি একটি মদের দোকান ঘিরে বিক্ষোভ কর্মসূচির আয়োজন করে। যদিও সূত্রের খবর, এই মদের দোকানটি লাইসেন্স প্রাপ্ত। কিন্তু অভিযোগ, ওই মদের দোকানের দুপাশে দুটি হাই স্কুল ও শিশুদের একটি বেসরকারি স্কুল আছে। তাই মদের দোকান তুলে দেবার দাবিতে বিজেপির এই আন্দোলন। বিজেপি অভিযোগ জানায় মদের দোকানকে কেন্দ্র করে এলাকায় অসামাজিক কাজকর্ম চলে।

বিজেপির এই কর্মসূচিতে যোগ দিতে এসে সৌমিত্র খাঁ জানান, মদের দোকান না তুললে বিজেপি পুরুলিয়া শহর অবরুদ্ধ করে দেবে আন্দোলনের দ্বারা। এবং সেই আন্দোলন যে সারা রাজ্যে ছড়িয়ে দেওয়া হবে। যদিও এই আন্দোলনের বিরুদ্ধে এখনও পর্যন্ত জেলার আবগারি দপ্তর থেকে কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। প্রতিবাদ চালাতে গিয়ে সোমবার পুরুলিয়ার গাড়িখানায় পুরুলিয়া বরাকর রাজ্য সড়ক প্রায় দেড় ঘণ্টা অবরুদ্ধ করে দেয় মহিলা বিজেপি মোর্চা‌। পুলিশ এসে শেষমেষ অবস্থা সামাল দেয়।

এমপি না হওয়া সত্বেও কিভাবে একজন এমপির স্ত্রী এমপিকে দেওয়া গাড়ি, যেটিতে মেম্বার অফ পার্লামেন্ট লেখা স্টিকার লাগানো সত্ত্বেও সেই গাড়ি ব্যবহার করলেন, তা নিয়ে এখনও পর্যন্ত রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব ও কেন্দ্রীয় বিজেপি নেতৃত্ব, কারোওর তরফ থেকেই কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। অন্যদিকে, রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের দাবি, কোন এমপির গাড়ি স্টিকার লাগানো সত্বেও কি করে অন্য কেউ সেই গাড়ি ব্যবহার করেন? এব্যাপারে অবশ‍্যই এমপির সর্তকতা নেওয়া প্রয়োজন ছিল। গাড়ি ঘটনায় অবশ্য রাজ্যের শাসক মহল থেকেও এখনো পর্যন্ত কোনো প্রতিক্রিয়া জানানো হয়নি। আপাতত পরিস্থিতির দিকে নজর রাখবে রাজনৈতিক মহল।

আপনার মতামত জানান -

ট্যাগড
Top
error: Content is protected !!