এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > লোকসভার আগে বুথভিত্তিক শক্তি বৃদ্ধিতে বিজেপি কর্মীদের নিয়ে আজ বিশেষ পদক্ষেপ অরবিন্দ-কৈলাসের

লোকসভার আগে বুথভিত্তিক শক্তি বৃদ্ধিতে বিজেপি কর্মীদের নিয়ে আজ বিশেষ পদক্ষেপ অরবিন্দ-কৈলাসের


আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে বারে বারে বঙ্গ সফরে এসে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ থেকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী প্রমাণ করে দিয়েছেন যে এবারের লোকসভা নির্বাচনে তাঁদের পাখির চোখ এই বাংলা। তবে বাংলায় নিজেদের ভোটব্যাঙ্ককে শক্তিশালী করতে দলীয় সংগঠনকে যে আরও মজবুত করা প্রয়োজন সেই ব্যাপারে রাজ্য নেতৃত্বকে বুথ কমিটি গড়ার ব্যাপারেও নির্দেশ দিয়েছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। আর সেইমতো দলের শীর্ষস্তর থেকে নির্দেশ পেয়ে মাঠে ময়দানে নেমে বুথের সংগঠনকে শক্তিশালী করার কাজও শুরু করে দিয়েছে গেরুয়া শিবির।

সূত্রের খবর, আজ কেন্দ্রীয় সরকারের অধীনস্থ কলকাতার একটি প্রেক্ষাগৃহে রাজ্যের বিভিন্ন সাংগঠনিক জেলার বিজেপি সভাপতি, দলীয় পর্যবেক্ষক এবং লোকসভার দায়িত্বে থাকা দলীয় নেতাদের নিয়ে একটি জরুরী সভা অনুষ্ঠিত করা হতে চলেছে গেরুয়া শিবিরের তরফে। যেখানে উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা কৈলাশ বিজয়বর্গীয়, শিবপ্রকাশ এবং রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষের। আর এই বৈঠকেই প্রতিটি বুথ ধরে ধরে দলীয় সংগঠন ঠিক কি অবস্থায় রয়েছে সেই ব্যাপারে বিজেপির রাজ্য এবং কেন্দ্রীয় নেতারা আলোচনা করবেন বলে জানা গেছে।

WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

মূলত জেলা সভাপতিদের, মন্ডল এবং বুথ ধরে ধরে সুনির্দিষ্ট দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতাদের নামের তালিকা জমা দিলে সেই ব্যক্তিদের নিয়ে একটি ডেটা ব্যাংক তৈরি করবে গেরুয়া শিবির। যা আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে বিজেপির বুথ সংগঠনকে শক্তিশালী করার জন্য অনেকটাই কাজে লাগবে বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহলের একাংশ। কিন্তু, হঠাৎ কেন এই বৈঠক? এদিন এই প্রসঙ্গে বিজেপির রাজ্য কমিটির এক নেতা বলেন, “এই মুহূর্তে দেশ জুড়ে দেশপ্রেমের যা পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে তা আগে আর কখনও হয়নি। আট থেকে আশি প্রত্যেকেই দেশের জন্য নিজের ব্যক্তিস্বার্থ ছাড়তে প্রস্তুত”।

তাঁর আরও বক্তব্য, “তাই সেই পরিপ্রেক্ষিতে লোকসভা ভোটের প্রস্তুতি হিসেবে দলের সাংগঠনিক শক্তি ও দুর্বলতা যাচাইয়ে জরুরি বৈঠক ডাকা হয়েছে। আমরা আশাবাদী আগামী দিনে রাজ্যের ১০০% বুথে বিজেপির নেতা কর্মীরা শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের সঙ্গে দাঁতে দাঁত চেপে লড়াই করবে”। গেরুয়া শিবিরের ভিতরের খবর, অমিত শাহ যে ২২-২৩ টি আসন জেতার কথা বলছেন, অভ্যন্তরীণ সমীক্ষায় তা সম্ভব বলেই দেখা যাচ্ছে। তবে, তা করতে গেলে মানুষকে ভোট দেওয়ার ব্যবস্থা করাতে হবে – তাই সাংগঠনিক শক্তি নিয়ে পর্যালোচনা করাটা অত্যন্ত জরুরি। সব মিলিয়ে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে বাংলায় পদ্ম ফোটাতে বুথস্তরের সংগঠনকে শক্তিশালী করার দিকে নজর দিয়ে আজ গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকে বসছে গেরুয়া শিবির।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!