এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > মহাচমক গেরুয়া শিবিরের, এবার দলে যোগ দিলেন প্রাক্তন রাজ্যপালের ঘনিষ্ঠ

মহাচমক গেরুয়া শিবিরের, এবার দলে যোগ দিলেন প্রাক্তন রাজ্যপালের ঘনিষ্ঠ

লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশের পর থেকেই বাংলায় তৃণমূল কংগ্রেসের অবস্থা ক্রমশ সংকটজনক হতে শুরু করে। একই দলের খারাপ ফলাফল হওয়া, তার ওপরে বিজেপির প্রভাব বাড়ার সাথে সাথে প্রাক্তন তৃণমূল নেতা তথা বঙ্গ বিজেপির চাণক্য মুকুল রায়ের ক্যারিশমায় তৃণমূলের একাধিক হেভিওয়েট বিধায়ক, কাউন্সিলর, জেলা পরিষদ, পঞ্চায়েত সমিতি ও পঞ্চায়েত সদস্যরা বিজেপিতে নাম লেখাতে শুরু করেন।

ফলস্বরূপ তৃণমূলের দখলে থাকা একাধিক পৌরসভা, বিধানসভা বিজেপির দখলে চলে যায়। তবে কিছুদিন আগে থেকে অবশ্য অবস্থার পরিবর্তন হতে শুরু করে। সেইভাবে দলবদলের কোনো প্রক্রিয়া আর দেখা যায়নি বঙ্গ রাজনীতিতে। অন্য দল থেকে বিজেপিতে আসার রেওয়াজও অনেকটাই কমে গিয়েছিল। কিন্তু এবার ফের তৃণমূলের অস্বস্তিকে বাড়িয়ে দিয়ে নিজেদের যোগদান পর্বে চমক দেখাল গেরুয়া শিবির।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

সূত্রের খবর, এদিন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের হাত ধরে গেরুয়া শিবিরে নাম লেখান তৃণমূলের শিক্ষা সেলের প্রাক্তন সভাপতি চিত্তরঞ্জন মন্ডল, পশ্চিমবঙ্গের প্রাক্তন রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠীর জনসংযোগ আধিকারিক সুশীল ওঝা এবং অল ইন্ডিয়া মতুয়া মহাসঙ্ঘের সভাপতি সুকেশ চন্দ্র চৌধুরী। আর মতুয়া মহাসঙ্ঘের সভাপতি এবং তৃণমূল শিক্ষা সেলের প্রাক্তন সভাপতির বিজেপিতে যোগদান তৃণমূলের কাছে ধাক্কার হলেও তার থেকে বেশি ধাক্কার রাজ্যের প্রাক্তন রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠী জনসংযোগ আধিকারিকের গেরুয়া শিবিরে পা বাড়ানো।

এদিন এই প্রসঙ্গে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, “সিন্ডিকেট রাজ থামাতে বড়সড় আন্দোলনের ক্ষেত্র প্রস্তুত হচ্ছে। বিজেপি ব্যাপক আন্দোলনে যাবে। সমাজের সর্বস্তরের মানুষ দলে দলে বিজেপিতে নাম লেখাচ্ছেন।” রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, লোকসভা নির্বাচনের পর থেকেই বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের হাত ধরে যেভাবে বাংলায় তৃণমূল সহ বাম এবং কংগ্রেস থেকে বিভিন্ন বিধায়ক, নেতা ও রাজনৈতিক কর্মীরা বিজেপিতে যোগদান করতে শুরু করেছিলেন, তাতে দলে বেনোজল ঢুকছে বলে বিজেপির একাংশ অভিযোগ করতে শুরু করেছিল।

যার জেরে কিছুদিন সেই যোগদান পর্ব থমকে ছিল। তবে চিন্তন বৈঠকের শেষে বিজেপির জন্য সকলের দরজা খোলা বলে সেই যোগদান পর্বের জল্পনা উসকে দিয়েছিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। আর দিলীপ ঘোষের এই কথার পরদিনই এদিন তিন হেভিওয়েট ব্যক্তির গেরুয়া শিবিরে নাম লেখানো অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছে রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। ফলে ভবিষ্যতে তৃণমূলের ঘুম উড়িয়ে আরও অনেক হেভিওয়েটকে যে বিজেপি তাদের দিকে টেনে এই যোগদান পর্ব চালাবে, সেই ব্যাপারে নিশ্চিত প্রায় প্রত্যেকেই।

Top
error: Content is protected !!