এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > ঘর ওয়াপসি নিয়ে নতুন তত্ব সামনে আনলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি! জেনে নিন

ঘর ওয়াপসি নিয়ে নতুন তত্ব সামনে আনলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি! জেনে নিন

Priyo Bandhu Media

লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশের পর রাজ্যে তৃণমূলের হাওয়া ফিকে হতে শুরু করেছে। ফুটে উঠতে শুরু করেছে গেরুয়া শিবিরের দাপট। একের পর এক বিধানসভার বিধায়ক, বিভিন্ন পৌরসভার কাউন্সিলরদের বিজেপিতে যোগদান তীব্র অস্বস্তি বাড়িয়েছে ঘাসফুল শিবিরের।

শুরুটা হয়েছিল তৃণমূলত্যাগী বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের গড় কাঁচরাপাড়া, হালিশহর থেকে। আর এই দুই পৌরসভার একাধিক তৃণমূল কাউন্সিলর দিল্লিতে গিয়ে গেরুয়া শিবিরের উত্তরীয় নিজেদের গলায় পড়ে নেন। আর এর পরেই সেই পৌরসভার দখল নেয় বিজেপি। কিন্তু বর্তমানে সেই পরিস্থিতির পরিবর্তন হতে শুরু করেছে।

যে সমস্ত কাউন্সিলার তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে এসেছিলেন, তারা ফের তৃণমূলের ছাতার তলায় চলে যাচ্ছেন। আর এতেই বিরম্বনা বাড়ছে বিজেপির। কিন্তু কেন এমনটা হচ্ছে! তাহলে কি বিজেপিতে হাঁসফাঁস অবস্থা, আর সেই কারণেই এই দলবদলকারীরা আবার তৃণমূলে ফিরে গেলেন!

সূত্রের খবর, এদিন এই প্রসঙ্গে শিলিগুড়ির এক দলীয় সভায় যোগ দিয়ে বিজেপির রাজ্য সভাপতি তথা মেদিনীপুর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি সাংসদ দিলীপ ঘোষ বলেন, “রাজ্যে বর্তমানে অচলাবস্থা চলছে। আর এই অবস্থায় অনেক ক্ষেত্রেই কাটমানির অভিযোগ উঠেছে। অনেকেই কাটমানির ভয়ে বিজেপিতে এসেছিলেন। কিন্তু প্রশাসনিক ভয়ে আবার তারা ফিরে যাচ্ছেন।”

WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

বস্তুত, লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলের ফলাফল খারাপ হওয়ার পরই দলকে ঘুরে দাঁড় করাতে দুর্নীতির প্রশ্নে কড়া অবস্থান নিতে দেখা যায় তৃণমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। কেউ কাটমানি খেলে তা তাকেই ফেরত দিতে হবে বলে জানিয়ে দেন বাংলার প্রশাসনিক প্রধান।

আর এরপরই তৃণমূলের দুর্নীতিগ্রস্ত নেতা, বিধায়কদের বাড়ি ঘেরাও করে বিক্ষোভ করতে দেখা যায় সাধারণ মানুষদের। যা নিয়ে বিরোধীদের পক্ষ থেকে শাসক দলকে কড়া ভাষায় সমালোচনা করা হয়। আর এবার এই কাটমানি ইস্যুর সঙ্গে রাজ্যের বর্তমান যে দলবদলের হিড়িক চলছে তাকে মিলিয়ে দিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি।

দিলীপ ঘোষের দাবি, আসলে অনেকে কাঠমানি থেকে রক্ষা পেতে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে আসতে চেয়েছিলেন। কিন্তু প্রশাসনিক ভয়ে তারা আবার তৃণমূলে ফেরত যাচ্ছেন। তবে দিলীপ ঘোষ এই বক্তব্য রাখলেও পাল্টা এই ব্যাপারে সরব হয়েছে তৃণমূল।

ঘাসফুল শিবিরের দাবি, এসব বলে কোনো লাভ নেই। মানুষ বিজেপির থেকে মুখ ঘুরিয়ে নিয়েছে। আর তাই এখন সকলে তৃনমূলে ফিরে আসতে শুরু করেছে। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, দিলীপ ঘোষের বক্তব্য কিছুটা হলেও সত্যি। বর্তমানে কাটমানি ইস্যুতে উত্তপ্ত রাজনীতি।

আর এই পরিস্থিতিতে তৃণমূল থেকে যে সমস্ত কাউন্সিলররা বিজেপিতে এসেছে, তাদের প্রতি প্রশাসনের পক্ষ থেকে আরও চাপ তৈরি করা হতে পারে। আর তাই সেই সমস্ত দলবদলকারীরা ফের তৃণমূলে ফিরে গেলে বলে মত সমালোচক মহলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!