এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > নানুরের বিজেপি কর্মী খুনে কি এবার সিবিআই তদন্ত? পরিবারের দাবি ঘিরে বাড়ছে জল্পনা

নানুরের বিজেপি কর্মী খুনে কি এবার সিবিআই তদন্ত? পরিবারের দাবি ঘিরে বাড়ছে জল্পনা

রাজ্যে কোনো রাজনৈতিক মৃত্যু ঘটলেই বিরোধী দলগুলোর পক্ষ থেকে এই ব্যাপারে সিবিআই তদন্তের দাবি তোলা হয়। কিন্তু বর্তমান শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস বিরোধীদের দাবি নস্যাৎ করে দিয়ে সিআইডি তদন্তের পক্ষেই সওয়াল করে। যা নিয়ে মাঝেমধ্যেই তরজায় জড়িয়ে পড়তে দেখা গেছে রাজ্যের শাসক দল বনাম বিরোধী দলগুলোকে।

তবে লোকসভা নির্বাচনের পরবর্তী সময় থেকে যেভাবে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় রাজনৈতিক সন্ত্রাসের সৃষ্টি হয়েছে, আর তাতে যেভাবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে বিজেপি কর্মী সমর্থকরা খুন এবং আহত হচ্ছেন বলে অভিযোগ গেরুয়া শিবিরের, তাতে এবার সেই বিজেপি এবং শহীদ পরিবারগুলো সেই সিবিআই তদন্তের পক্ষেই সওয়াল করতে শুরু করেছেন।

প্রসঙ্গত, বীরভূমের নানুরের বিজেপি কর্মী স্বরূপ গড়াইয়ের হত্যাকাণ্ডকে ঘিরে গত বেশ কিছুদিন ধরে উত্তপ্ত রাজ্য রাজনীতি। বীরভূম থেকে যার আঁচ পৌঁছে গিয়েছে কলকাতাতেও। জানা যায়, গত শুক্রবার রাতে বীরভূমের নানুরের রামকৃষ্ণপুর গ্রামে একটি চায়ের দোকানে বসেছিলেন নিহত ওই বিজেপি কর্মী। কিন্তু হঠাৎই সেই চায়ের দোকানের সামনে বেশ কিছু দুষ্কৃতী বোমাবাজি করার পাশাপাশি গুলি চালায়। আর সেই গুলি বিজেপি কর্মী স্বরূপ গড়াইয়ের বুকে লাগলে তাকে তড়িঘড়ি পার্কসার্কাসের কাছে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

কিন্তু রবিবার রাতেই তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। আর তারপর থেকেই শুরু হয় এই ঘটনা নিয়ে প্রবল অভিযোগ-পাল্টা অভিযোগ। গত সোমবার এনআরএসের মর্গে সেই নিহত বিজেপি কর্মীর দেহ ময়নাতদন্তে নিয়ে যাওয়া হলে নিহতের স্ত্রীর পক্ষ থেকে দাবি জানানো হয় যে, তার স্বামীর দেহ বিজেপির রাজ্য দপ্তরে নিয়ে যাওয়া হবে।

কিন্তু এখানেই পুলিশ তীব্র আপত্তি জানায়। যা নিয়েই বাধে গন্ডগোল। আর এরপরই সোমবার গভীর রাতে সেই নিহত বিজেপি কর্মীর দেহ 22 টি গাড়ির কনভয় করে নানুরে নিয়ে যাওয়া হলে নোটিশ দিয়ে নিহতের পরিবারকে জানিয়ে দেওয়া হয় যে, সিয়ান হাসপাতালের মর্গে এই দেহ রাখা হবে। এরপর মঙ্গলবার সকালে সেই নিহতের স্ত্রী হাসপাতালে স্বামীর দেহ নিতে আসলে শুরু হয় উত্তেজনা।

বিজেপির পক্ষ থেকে দাবি করা হয়, পুলিশ তাদের নিহত কর্মীর দেহ চুরি করে তাদের পরিবারকে সম্পূর্ণরূপে অন্ধকারে রেখেছে। আর এবার পুলিশের পক্ষ থেকে নিহতের দেহ নিয়ে এহেন কারচুপির ঘটনা ঘটলে সেই নিহত বিজেপি কর্মী স্বরুপ গড়াইয়ের পরিবারের পক্ষ থেকে খুনিদের খুঁজে পেতে সিবিআই তদন্তের দাবি জানানো হচ্ছে। এদিন এই ব্যাপারে নিহত বিজেপি কর্মীর স্ত্রী এবং মা দুজনেই স্বরূপ গড়াইয়ের খুনিদের কঠোর শাস্তি দাবি করেছেন‌।

পাশাপাশি এই গোটা ঘটনায় সিবিআই তদন্তের দাবি জানানোর পাশাপাশি নিহতের স্ত্রী তার একটি চাকরি এবং তার বাচ্চাদের পড়াশোনার ব্যবস্থা করার জন্য বিজেপি নেতৃত্বের কাছে আবেদন জানিয়েছেন বলে জানা গেছে। এদিকে এই ব্যাপারে এখনও পর্যন্ত মূল অভিযুক্ত বীরভূম জেলা পরিষদের পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ করিম খানকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। যা নিয়ে উঠতে শুরু করেছে প্রশ্ন। পাশাপাশি দলীয় কর্মী খুনের প্রতিবাদে বিজেপির পক্ষ থেকে প্রবল আন্দোলন চালানো হচ্ছে। আর তার মাঝে এবার খুনিদের শাস্তি দিতে নিহত বিজেপি কর্মীর পরিবারের তরফে সিবিআই তদন্তের দাবি জানানো হলে তাদের সেই দাবি কতটা পূরণ হয়! এখন সেদিকেই তাকিয়ে সকলে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!