এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > পিতৃপরিচয় নিয়ে হেভিওয়েট বিজেপি সাংসদের ঘুম উড়িয়ে দিলেন ভাতারের গৃহবধূ

পিতৃপরিচয় নিয়ে হেভিওয়েট বিজেপি সাংসদের ঘুম উড়িয়ে দিলেন ভাতারের গৃহবধূ

এবার বড়সড় অস্বস্তিতে পড়লেন অভিনেতা তথা বিজেপি নেতা জর্জ বেকার। সূত্রের খবর, পিতৃপরিচয় ফিরিয়ে দেওয়ার দাবি জানিয়ে এই জর্জ বেকারের বিরুদ্ধে এবার আদালতের দ্বারস্থ হলেন পূর্ব বর্ধমানের ভাতারের গৃহবধূ অঙ্কিতা ভট্টাচার্য। জানা গেছে, সেই গৃহবধূর অভিযোগের ভিত্তিতে আগামী 26 আগস্ট আদালতে হাজির হওয়ার জন্য জর্জ বেকার এবং তার স্ত্রী অর্পিতা বেকারকে নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

বস্তুত, ভাতারের নারায়নপুরের গৃহবধূ অঙ্কিতা ভট্টাচার্য গত 2018 সাল থেকেই দাবি তুলতে শুরু করেছিলেন যে, তার বাবা হচ্ছেন বিশিষ্ট অভিনেতা তথা বিজেপি নেতা জর্জ বেকার। অঙ্কিতাদেবীর বক্তব্য অনুযায়ী জানা যায়, জন্মের পর থেকেই তার বাবা এবং মা কলকাতার বেহালার সরশুনার বাসিন্দা গৌরী ভট্টাচার্যের কাছে তাকে রেখে আসেন। তারপর মাঝে মাঝে তারা তাকে দেখে আসলেও বড় হওয়ার পর আর তার সাথে যোগাযোগ রাখেননি।

এদিকে গত 2017 সালে অঙ্কিতা দেবীর ইন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য নামে এক ব্যক্তির সঙ্গে বিবাহ হলে সেই সময় নির্মল ভট্টাচার্য নামে এক ব্যক্তিকে বাবা এবং গৌরী ভট্টাচার্য নামে এক ব্যক্তিকে অঙ্কিতাদেবীর মা সাজিয়ে রাখা হয়েছিল বলে অভিযোগ। এবার পিতৃপরিচয় ফেরানোর দাবিতে বিশিষ্ট অভিনেতা তথা বিজেপি নেতা জর্জ বেকার এর বিরুদ্ধে আদালতের দ্বারস্থ হলেন অঙ্কিতা ভট্টাচার্য। যা নিয়ে জোর চাপানউতোর শুরু হয়েছে।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এদিন এই প্রসঙ্গে সেই অঙ্কিতা ভট্টাচার্য বলেন, “আমার বাবা জর্জ বেকার। আমরাই গোটা বিষয়টি নিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছি। কিন্তু আদালতে যাওয়ার পর থেকেই ফোনে বিভিন্ন ভাবে আমাদের হুমকি দেওয়া হচ্ছে। আমি বিশেষ কিছু চাই না। আমাকে মেয়ে হিসেবে স্বীকৃতি দিলেই হবে।”

একই কথা শোনা গেছে সেই অঙ্কিতা ভট্টাচার্যের স্বামী ইন্দ্রনাথ ভট্টাচার্যের গলাতেও। তার দাবি, অঙ্কিতাদেবীর জন্মের দুটি সার্টিফিকেট রয়েছে। পাশাপাশি যে গৌরী ভট্টাচার্যকে সবাই অঙ্কিতাদেবীর মা বলে জানেন, তিনি আসলে জর্জ বেকারের শালিকা। গৌরী দেবী মারা যাওয়ার আগে সমস্ত কথা তাদের জানিয়ে দিয়েছেন। আর এখন জর্জ বেকার অঙ্কিতাদেবীর পিতার পরিচয় দিতে অস্বীকার করছেন। তবে তারা এর শেষ দেখে ছাড়বেন বলে জানিয়ে দিয়েছেন সেই অঙ্কিতাদেবীর স্বামী ইন্দ্রনাথবাবু।

তবে এই প্রসঙ্গে ঠিক কি বলছেন জর্জ বেকার! এদিন এই ব্যাপারে বিশিষ্ট অভিনেতা তথা এই বিজেপি নেতা বলেন, “আমি 40 বছর ধরে বাংলা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করছি। আমার মেয়ে আছে বলে কেউ কোনোদিন জানল না, আর আমার মেয়ে থাকলে কেন আমি সেটা অন্য কাউকে দিতে যাব! আসলে আমাকে ওই মেয়েটি আগে ফোন করে এসব বলত। তারপর বিষয়টি মিটিয়ে নেওয়ার জন্য বলত। আমার মনে হয় এর পেছনে কেউ বা কারা অসৎ উদ্দেশ্যে কোনো মদত দিচ্ছে। আমি যা বলার আদালতে বলব।” সবমিলিয়ে এবার পিতৃ পরিচয়ের দাবীতে জর্জ বেকারের বিরুদ্ধে আদালতের দ্বারস্থ ভাতারের গৃহবধূ।

Top
error: Content is protected !!