এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > সংস্কারী শিশু জন্ম দিতে না পারে, তবে যেন সন্তান প্রসব না করে – বিজেপি নেতার বিধান

সংস্কারী শিশু জন্ম দিতে না পারে, তবে যেন সন্তান প্রসব না করে – বিজেপি নেতার বিধান

দেশজোড়া বিজেপি নেতাদের আজব-আজব বিধান ও মন্তব্যে তিতিবিরক্ত হয়ে স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী কিছুদিন আগে মন্তব্য করেছিলেন – সবার কথা তো দরকার নেই, কাজে মন দিন। তবে তাঁর এহেন মন্তব্যের পরেও বিতর্কিত ও দলকে অস্বস্তিতে ফেলা মন্তব্য থেকে বিরত থাকার কোনো লক্ষন দেখাচ্ছেন না গেরুয়া শিবিরের নেতারা। এই নজির আগেও দেখা যেত তবে ইদানিং কালে যেন সংবাদের শিরোনামে থাকতে এইরকম ঘটনা প্রায় হরবখত হয়ে চলেছে। এর আগেও বহু নেতা মন্ত্রী তাঁদের ব্যক্তিগত মতামত জানিয়ে প্রকাশ্যে মতামত জানিয়েছেন, কিন্তু সেই বক্তব্যকে কেন্দ্র করে জনসমাজে এত শোরগোল পরে নি। কিন্তু সম্প্রতি দেশের বিজেপি নেতা-নেত্রীদের মধ্যে বিতর্কিত বিষয়ে মন্তব্য করে বিতর্ক বহুগুন বাড়িয়ে দেওয়ার এক প্রবল প্রবণতা দেখা যাচ্ছে।

মধ্যপ্রদেশের বিজেপি বিধায়ক পান্নালাল শাক্য, যিনি কিছুদিন আগেই – ‘বিরাট কোহলির দেশভক্তি এবং মেয়েদের কোনও পুরুষবন্ধু থাকতে নেই’ জানিয়ে সংবাদ শিরোনামে এসেছিলেন আবারও তিনি বেফাঁস মন্তব্যের জেরে খবরের শিরোনামে। এবার তিনি রাজ্যের গুনা অঞ্চলে এক জনসভায় প্রকাশ্যে নিদান দিলেন, মহিলারা যদি সংস্কারী শিশু জন্ম দিতে না পারে, তবে যেন তাঁরা বন্ধ্যাই থাকেন। এছাড়াও এদিনের জনসভায় কেন্দ্রের প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেস এবং কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীকে উদ্দেশ্য করে কটাক্ষ করতে কসুর করেননি এই বিজেপি বিধায়ক। তিনি বলেন, কংগ্রেস গরিবি দূর করো এই স্লোগান নিয়ে এসেছিল, কিন্তু সেটা বদলে গরিবদেরকেই হটিয়ে দিয়েছে। কিছু মহিলা রয়েছেন যাঁরা এই ধরনের নেতাদের ‌জন্ম দেন। মহিলাদের উচিত সংস্কারী শিশু জন্ম দেওয়া, যারা সমাজকে গড়ে তুলবে, তা নাহলে বন্ধ্যাই থাকুক তাঁরা। তাঁর মতে ভগবান শ্রী রামচন্দ্রের জন্মদাত্রী মা কৌশল্যা’ই সব মহিলাদের কাছে আদর্শ হওয়া উচিত। স্বাভাবিকভাবেই বিজেপি বিধায়কের এহেন বিতর্কিত নিদান প্রকাশ্যে আসতেই তীব্র কটাক্ষে ভরিয়ে দিয়েছেন বিরোধী নেতা থেকে আপামর জনসাধারণ, ফলে তীব্র অস্বস্তিতে গেরুয়া শিবির।

Top
error: Content is protected !!