এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > রাজ্যে যেকটি আসন বিজেপি জিতবে তার মধ্যে পুরুলিয়া অন্যতম-দাবী লকেট চ্যাটার্জীর

রাজ্যে যেকটি আসন বিজেপি জিতবে তার মধ্যে পুরুলিয়া অন্যতম-দাবী লকেট চ্যাটার্জীর

লোকসভা ভোটের দিনক্ষণ যতো এগিয়ে আসছে ততোই যেন শাসক বনাম বিরোধীদের আক্রমণ তথা পাল্টা আক্রমণের খেলা যেন আরো জমে উঠেছে। হাতেকলমে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের বিরোধীদলে বাম,কংগ্রেস থাকলেও লড়াই যেন কার্যত বিজেপির বিরুদ্ধে। গেরুয়াশিবিরের ক্ষেত্রেও তাই।

বাংলায় তৃণমূল শাসনের ইতি টানাকে নিশানা করেই ভোটযুদ্ধের প্রস্তুতি নিচ্ছেন মুরলীধর লেনের কর্তারা। মিটিং-মিছিল হোক বা অন্যকোনো প্রচারমূলক কর্মসূচি তৃণমূলের আক্রমণ করার একটা সুযোগও এই মুহূর্তে ছাড়ছেন না রাজ্যবিজেপির হেভিওয়েটরা। গতকাল পুরুলিয়ার বড়রা শিবমন্দিরে সভায় উপস্থিত হয়ে চিরাচরিত ভঙ্গিতে তৃণমূলের বিরুদ্ধে আক্রমণাত্মক ভূমিকায় দেখা গেল দাপুটে বিজেপি নেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায়কে।

সভামঞ্চ থেকেই দাবী করলেন,রাজ্যে বিজেপি যেকটি আসন জিতবে তারমধ্যে পুরুলিয়া অন্যতম। ত্রিলোচন মাহাতো,দুলাল কুমার,জগন্নাথ টুডুর আত্মবলিদান বৃথা যাবে না। প্রতিবাদের ফল ফলবেই। এমনটাই গর্জে উঠে বললেন লকেট। গত পঞ্চায়েত নির্বাচনের প্রেক্ষাপটে পুরুলিয়ায় রহস্যজনকভাবে মার্ডার হয়েছিলেন বিজেপির এই কর্মীরা। স্বাভাবিকভাবেই অভিযোগের আঙুল উঠছিল তৃণমূলের বিরুদ্ধে। সেই প্রসঙ্গ তুলেই আরো একবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারকে বিঁধলেন বিজেপি নেত্রী।

এছাড়া রাজ্যের গনতন্ত্র নিয়ে বক্তব্য রাখতে গিয়ে তৃণমূল সরকারকে তীব্র কটাক্ষ করেন তিনি। বিষ্ময় প্রকাশ করে বলেন,যে রাজ্যে কোনো গনতন্ত্র নেই তার আবার বিপর্যয় কী! আক্রমণের সুর চড়া করে তিনি আরো বলেন,’চোরকে ধরতে গেলেই গনতন্ত্রের বিপর্যয়!’ লকেটের কটাক্ষের পর প্রশ্ন তৈরি হলে তিনি আরো গর্জে উঠে বলেন,’চোর কে চোর বলবে নাতো কী বলবে?’

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

প্রসঙ্গত,সম্প্রতি চিটফান্ড কান্ডে প্রযোজক শ্রীকান্ত মোহতাকে গ্রেফতার করেছে সিবিআই। এই দুর্নীতিমূলক কর্মকান্ডে তাঁর সঙ্গে জড়িত রসেছে চলচ্চিত্রজগতের তৃণমূল ঘনিষ্ঠ বেশ কিছু মানুষ। এমনটাই খবর রয়েছে সিবিআইয়ের কাছে। শ্রীভেঙ্কটেশ ফিল্মের কর্ণধার গ্রেফতার হওয়ার পর তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মন্তব্য করেছিলেন,’গনতন্ত্রের বিপর্যয়’। মুখ্যমন্ত্রীর এই মন্তব্যের পাল্টা দিলেন এদিন বিজেপি নেত্রী।

পুরুলিয়ার বড়রা সভা থেকে লকেট চট্টোপাধ্যায় গর্জে উঠে আরো জানালেন,বিজেপির উপর তৃণমূল যতো বেশি অত্যাচার করবে,বিজেপির জয়ের ক্ষিদে ততোগুন বেড়ে যাবে। আরো জোরদার হবে প্রতিবাদের ভাষা। সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী,লকেট সেদিন বলেছেন,সিবিআইয়ের ভয়ে সব চোর এক হয়ে গিয়েছে। আসলে তৃণমূলের কর্মী-সমর্থকদের ‘চোর’ বলেই কটাক্ষ করলেন লকেট। এমনটাই মনে করছেন অভিজ্ঞমহল।

এছাড়া ১৯ জানুয়ারির ব্রিগেড সমাবেশ নিয়ে মন্তব্য করতে গিয়ে লকেট বলেন,ব্রিগেডের মঞ্চে থেকে বিজেপির বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার পন নেওয়ার পর নিজেদের রাজ্যের ফিরে বিরোধীরা অন্যসুরে কথা বলছেন। বিরোধীরা ঐক্যবদ্ধ সংগ্রামের মাধ্যমে কেন্দ্র থেকে বিজেপি সরকার হটাতে চাইলেও আসলে তাঁদের মধ্যে কোনো একতা নেই। আসলে সবাই নিজের আখের গোছাতে ব্যস্ত। প্রধানমন্ত্রী কে হবেন তা নিয়ে নিজেদের মধ্যেই প্রতিযোগিতা শুরু করেছে বিরোধীরা। এরকমই মনে করছেন বিজেপি নেত্রী।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!