এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > বিজেপি নেতাকে “অ্যান্টিবায়োটিক” দেওয়ার হুমকি তৃণমূল নেতার

বিজেপি নেতাকে “অ্যান্টিবায়োটিক” দেওয়ার হুমকি তৃণমূল নেতার

তৃণমূল বিধায়ক শংকর দোলই “বিজেপি করছো ?তোমাকে ওষুধ দিচ্ছি। অ্যান্টিবায়োটিক।” ফোনে এমনটাই হুমকি দিয়েছেন বলে অভিযোগ তুলেছেন ঘাটালের স্থানীয় এক বিজেপি নেতা জগন্নাথ কারক। অভিযোগের স্বপক্ষে একটি ফোন রেকর্ড শোনানো হয়েছে বিজেপি নেতার তরফ থেকে। বুধবার তাঁকে এই হুমকি দেওয়া হয় বলে অভিযোগ করেছেন ওই বিজেপি নেতা জগন্নাথবাবু। তিনি আরো জানান যে “এর আগেও হুমকি দিয়েছেন বিধায়ক। বিভিন্নভাবে হুমকি দেওয়া হচ্ছে। বাড়িতে হামলা হচ্ছে। বুধবার বাড়িতে একদল লোক এসে হামলা করে গেছে। জল খেতে দেবে না বলে হুমকি দিচ্ছে। জমি দখল করে নেবে বলছে। অথচ থানা অভিযোগ নিচ্ছে না। বিজেপি-র জেলা নেতৃত্বকে জানিয়েছি। ওঁরা আমাকে ডেকেছেন।”এদিকে এই খবর ছাড়িয়ে পড়তেই নড়েচড়ে বসেছেন শঙ্করবাবু। গুলিয়েও ফেলেছেন তাই দুবার দু কথা বলেছেন প্রথমে তিনি দাবি করেছেন যে তিনি হুমকি দেননি। শুধু উপদেশ দিয়েছেন।তিনি জানিয়েছেন , “আমার উপদেশকে বিকৃত করা হয়েছে। ও আমার কাছের লোক, তাই উপদেশ দিয়েছি। রাজনৈতিক আক্রোশে নয়।জগন্নাথ নিজেকে বিজেপি -র বুথ সভাপতি বলে জাহির করছে। ও বুথ সভাপতি নয়। তাছাড়া নানা কুকর্মের সঙ্গে জড়িত। ওর ভাই ও ছেলেও জড়িত বিভিন্ন কুকর্মে। আর তাছাড়া ও এলাকায় মানুষজনকে বিভ্রান্ত করছিল। এটাই হল মূল কথা।” পরে আবার বলেন “কেউ যদি উপদেশকে বিকৃত করে তাহলে আমার কিছু করার নেই। ব্যক্তিগত সম্পর্ক রয়েছে জগার সঙ্গে। তাই কথাটা বলেছি। রাজনৈতিক আক্রোশে নয়।” ফলে প্রশ্ন উঠেছে “এলাকার মানুষকে বিভ্রান্ত করছে ” এবং ব্যক্তিগত সম্পর্ক, রাজনৈতিক আক্রোশে নয়।”কথা দুটোর মানে কি। এই নিয়ে যদিও এখনো তৃণমূলের শীর্ষ স্থানীয় কোনো নেতা নেত্রীর পতিক্রিয়া জানা যায়নি। পাশাপাশি বিজেপির শীর্ষ নেতৃর্ত্বর তরফ থেকে কিছু বলা হয়নি।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!