এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > ক্ষমা চাওয়া নিয়ে নিজের অবস্থান স্পষ্ট জানালেন বিজেপি নেত্রী

ক্ষমা চাওয়া নিয়ে নিজের অবস্থান স্পষ্ট জানালেন বিজেপি নেত্রী

“রাজ্যে গণতন্ত্র নেই। আর তাই তো বেছে বেছে বিজেপি নেতা কর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা করে তাদের ফাঁসানো হচ্ছে।” বলে দীর্ঘদিন ধরেই অভিযোগ জানিয়ে আসতে দেখা গেছে বিরোধী দল বিজেপিকে। লোকসভা নির্বাচনের মরসুমে সম্প্রতি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সুপারইম্পোজড করা ছবি সোশ্যাল সাইটে শেয়ার করায় মানহানি মামলার জেরে গ্রেফতার করা হয়েছিল বিজেপি নেত্রী প্রিয়াঙ্কা শর্মাকে।

আর এরপরই তাকে আদালতে তোলা হলে 14 দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দেওয়া হয়। কিন্তু বিজেপি নেত্রী প্রিয়াঙ্কার জামিনের আবেদন নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে তার পরিবার দ্বারস্থ হলে গত মঙ্গলবার এই মামলায় সেই প্রিয়াঙ্কা দেবীর মুক্তির নির্দেশ দেয় শীর্ষ আদালত। কিন্তু যেন তিনি এই গোটা ঘটনার জন্য ক্ষমা চেয়ে নেন সেকথাও আদালতের পক্ষ থেকে বলা হয়।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

তবে এবার রীতিমতো জেহাদ ঘোষণা করতে দেখা গেল সেই বিজেপি নেত্রী প্রিয়াঙ্কা শর্মাকে। তিনি এমন কোন অন্যায় করেননি যে তাকে ক্ষমা চাইতে হবে। তিনি কোনোমতেই ক্ষমা চাইবেন না বলে এদিন জানিয়ে দিলেন এই বিজেপি নেত্রী।

সূত্রের খবর, এদিন সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশের পর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে এই বিজেপি নেত্রী বলেন, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও তো প্রধানমন্ত্রী মোদির বিরুদ্ধে এত কিছু বলছেন। তাহলে তাকেও গ্রেপ্তার করা উচিত। আমার মনে হয় না আমি কোনো অন্যায় করেছি। তাই ক্ষমা চাওয়ার একটা প্রশ্নই ওঠে না। একটা সাধারন ছবি পোস্ট করেছিলাম, সেজন্য পাঁচ রাত জেলে থাকতে হল। আসলে বিজেপি কর্মী বলেই এত অত্যাচার করা হচ্ছে। তৃণমূলের জন্য সমস্ত কিছু মাফ।”

অন্যদিকে জামিনের পরও তাকে আটকে রেখে তার ওপর অত্যাচার চালানো হয়েছে বলে এদিন জানান প্রিয়াঙ্কা দেবী। সব মিলিয়ে মুক্তি পেয়েই তিনি কোনোমতেই ক্ষমা চাইবেন না বলে সাফ জানিয়ে দিলেন বিজেপি নেত্রী প্রিয়াঙ্কা শর্মা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!