এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > অন্যদলকে ভোট দেওয়ার কথা শুনেই রেগে লাল সংখ্যালঘু বিজেপি নেতা! লাঠিপেটা বিশেষভাবে সক্ষম যুবককে!

অন্যদলকে ভোট দেওয়ার কথা শুনেই রেগে লাল সংখ্যালঘু বিজেপি নেতা! লাঠিপেটা বিশেষভাবে সক্ষম যুবককে!


লোকসভা নির্বাচন যতই এগিয়ে আসছে ততই একের পর এক বিতর্কিত ঘটনায় জড়িয়ে পড়ছেন গেরুয়া শিবিরের নেতারা। কখনো হনুমানের জাত নিয়ে ‘হাস্যকর’ দাবি তো কখনো গো-বলয়ে হার নিয়ে অমিত শাহের বিরুদ্ধে কেন্দ্রী মন্ত্রীর তোপ! আর এবার তো সব কিছু ছাড়িয়ে গিয়ে বিশেষভাবে সক্ষম যুবককে লাঠিপেটা করে জাতীয় রাজনীতিতে শোরগোল ফেলে দিলেন বিজেপির সংখ্যালঘু নেতা।

বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর থেকে জানা যাচ্ছে, উত্তরপ্রদেশের সম্বল জেলার স্থানীয় উঠতি সংখ্যালঘু বিজেপি নেতা মহম্মদ মিয়া সরকারি অফিসের সামনেই এক বিশেষভাবে সক্ষম যুবককে লাঠিপেটা করেন! কি ছিল সেই যুবকের অপরাধ? তিনি স্পষ্ট ভাষায় জানিয়েছিলেন, আসন্ন নির্বাচনে তিনি অখিলেশ যাদবকে ভোট দেবেন।

WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

আর এই কথা শুনেই আর নিজের রাগ সামলাতে পারেননি ওই বিজেপি নেতা। লাঠি দিয়ে বেদম প্রহার শুরু করেন ওই যুবককে – ওই যুবক বিশেষভাবে সক্ষম জানার পরেও তাঁকে রেয়াত করেননি ওই বিজেপি নেতা। স্বাভাবিকভাবেই, এই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তেই তীব্র সমালোচনার ঝড় ওঠে জাতীয় রাজনীতিতে। স্বাধীন দেশের একজন স্বাধীন নাগরিক, তাঁর মতামত স্বাধীনভাবে প্রকাশ করতেই পারেন।

কিন্তু, সেই ‘অপরাধে’ তাঁকে নেতার লাঠির প্রহার খেতে হবে কেন? এই প্রশ্নের ঝড়েই আপাতত বেসামাল গেরুয়া শিবির। সবথেকে বড় কথা সরকারি অফিসের সামনেই এই ঘটনা ঘটলেও, এখনও সেই বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে কোন পদক্ষেপ নেওয়া দূরের কথা, এই নিয়ে কোনো প্রতিক্রিয়াও জানান নি সেই রাজ্যের বিজেপি মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। আর তা নিয়েও কম প্রশ্ন তুলছেন না নেটিজেনরা!

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!