এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > যুবরাজের সভায় ভয় দেখিয়ে জোর করে তৃণমূলে যোগ দেওয়া নিয়ে বিস্ফোরক অভিযোগ বিজেপি নেতার – এক্সক্লুসিভ ভিডিও

যুবরাজের সভায় ভয় দেখিয়ে জোর করে তৃণমূলে যোগ দেওয়া নিয়ে বিস্ফোরক অভিযোগ বিজেপি নেতার – এক্সক্লুসিভ ভিডিও

গত ১৭ ডিসেম্বর পশ্চিম মেদিনীপুরের গোয়ালতোড়ে সভা করতে আসেন তৃণমুল সাংসদ তথা যুব সভাপতি অভিষেক ব্যানার্জী। সেখানে বিজেপির ঘর ভেঙে নিজের দল ভারীও করেছিলেন অভিষেকবাবু। সেদিন প্রায় ২৫০ জন বিজেপি কর্মী যোগদান করেছিলেন তৃনমূল কংগ্রেসে।

যাঁদের মধ্যে ছিলেন পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার শালবনী ৯ নং অঞ্চলের ৪০ নং বুথের বিজেপির জয়ী পঞ্চায়েত সদস্য জিতেন মাহাত। যোগদানকারীদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দিয়েছিলেন স্বয়ং তৃণমূলের ২ নম্বর অভিষেকবাবু। কিন্তু, অভিষেকবাবু মেদিনীপুর ছাড়ার ২৪ ঘন্টা কাটতে না কাটতেই তৃণমূলে যোগ দেওয়া বিজেপির পঞ্চায়েত সদস্য ফিরে গেলেন বিজেপিতে।

গতকাল বিজেপির জেলা পার্টি অফিসে জিতেনবাবুর হাতে বিজেপির জেলা সভাপতি শমিত দাস দলীয় পতাকা তুলে দিয়ে ঘরের ছেলেকে ফের ঘরে ফিরিয়ে নেন। আর ঘরে ফিরেই, জিতেনবাবু তৃণমূলের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ এনে দাবি করলেন যে, তাঁকে চাপ দিয়ে ভয় দেখিয়ে জোর করে সেদিন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সভায় তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করতে বাধ্য করা হয়।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

যদিও জিতেনবাবুর বক্তব্য, তিনি মঞ্চে উঠলেও তৃণমূলের পতাকা হাতে নেন নি। তাঁকে যেভাবে তৃণমূল নেতা-কর্মীরা ঘিড়ে রেখেছিলেন, তাঁর তৃণমূল কংগ্রেসের ওই সভায় যাওয়া ছাড়া উপায় ছিল না। তাঁর অভিযোগ, তাঁকে বলা হয়েছিল তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান না করলে পুলিশ কেস হয়ে যাবে তাঁর বিরুদ্ধে। আর, যোগদান করলে টাকা থেকে চাকরি সব মিলবে।

স্বাভাবিকভাবেই জিতেন মাহাতর সাংবাদিক বৈঠকে এই বিস্ফোরক অভিযোগ সামনে আসতেই রীতিমত শোরগোল পরে গেছে রাজ্য-রাজনীতিতে। এই নিয়ে ফের সরব হয়েছে বিজেপি। জোর গলায় তাঁদের দাবি, ‘আমরা তো আগেই বলেছিলাম জোর করে ভয় দেখিয়ে নিয়ে গেছে। কেউ নিজের ইচ্ছায় যায়নি। আজ যেমন জিতেন ফিরে এসেছে ঠিক তেমনি বাকিরাও ফিরে আসবে’।

প্রসঙ্গত, পঞ্চায়েত ভোটে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার যে সব এলাকায় তৃণমূল কংগ্রেসের খারাপ ফল হয়েছিল, তার মধ্যে গোয়ালতোড় ছিল অন্যতম। ১০ টি গ্রাম পঞ্চায়েতের মধ্যে ৩ টিতেই বিজেপি বোর্ড গড়েছে। পঞ্চায়েত সমিতির ২৫ টি আসনের মধ্যে ৭ টিতে জিতেছে বিজেপি। আর এই পরিস্থিতিতে বিজেপি নেতৃত্ত্বের দীর্ঘদিনের দাবি – ভয় দেখিয়ে দলে ভাঙন ধরানোর চেষ্টা করছে শাসকদল। এই প্রসঙ্গে, জিতেন মাহাত কি বললেন সাংবাদিক বৈঠকে – দেখে নিন সেই এক্সক্লুসিভ ভিডিও –

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!