এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > খোলনলচে বদলে যাচ্ছে বিজেপি যুব মোর্চার – তরুণ ব্রিগেডকে শক্তিশালী করতে দলে আসছেন একাধিক সঙ্ঘ ঘনিষ্ঠ হেভিওয়েট

খোলনলচে বদলে যাচ্ছে বিজেপি যুব মোর্চার – তরুণ ব্রিগেডকে শক্তিশালী করতে দলে আসছেন একাধিক সঙ্ঘ ঘনিষ্ঠ হেভিওয়েট

১৯’এর লোকসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে পশ্চিমবঙ্গে রাজ্যবিজেপি ‘গনতন্ত্র বাঁচাও’ কর্মসূচিতে রথযাত্রা করার সিদ্ধান্তের কথা আগেই জানিয়ে দিয়েছে। চলতি মাসের ৭ তারিখই কোচবিহার থেকেই শুরু হচ্ছে রথযাত্রা। তার আগেই রাজ্য বিজেপির যুব মোর্চার রাজ্য কমিটিতে আরো বেশি করে রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সঙ্ঘের (আরএসএস) আস্থাভাজনদের জায়গা করে দেওয়া হল।

গতকাল কোলকাতার যুব মোর্চার রাজ্য সম্মেলনে একাধিক পদাধীকারীদের সরিয়ে তাঁদের স্থানে আনা হল আরএসএসের সমর্থক কিছু নতুন মুখ। হঠাৎ করে কেন এই রদবদল তা নিয়ে তা নিয়ে প্রশ্ন তৈরি হয়েছে রাজনৈতিকমহলে। দলীয় সূত্রে জানা গিয়েছে রথযাত্রার আগে আরএসএসের -প্রাক্তন প্রচারক তথা রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষের সংগঠনকে আরো শক্তিশালী করতেই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

অন্যদিকে এদিনের বৈঠকে আবার ‘মারের বদলা মার’ তত্ত্বকেও সামনে রাখলেন দিলীপ ঘোষ।লোকসভা ভোটের প্রেক্ষিতে দাঁড়িয়ে রথযাত্রা সফল করতে রাজ্য বিজেপি সভাপতি বিশেষ বার্তাও দিলেন দলীয় যুবকর্মীদের উদ্দেশ্য করে। বললেন,রথযাত্রার পথে কোনো বাধা এলেই তাকে সর্বশক্তি দিয়ে প্রতিহত করার নিদান দিলেন তিনি। তার জন্যে থানা-পুলিশ- আইন- আদালত এসবের ভয় থেকে বিরত হওয়ার পরামর্শ দিলেন তিনি।

আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে বললেন,পরিমান যেটাই হোক না কেন সেটা দল বুঝে নেবে। প্রসঙ্গত,বিজেপি রথযাত্রা যেভাবেই হোক আটকাবে তৃণমূল এমন হুঁসিয়ারী বহুবার সম্প্রতি দিতে দেখা গিয়েছে শাসকদলের হেভিওয়েট নেতাদের। এমনকি বিজেপি প্রস্তাবিত এই রথযাত্রার অনুমতিও এখনো মেলেনি এখনো নবান্নের তরফ থেকে। রাজ্যসরকারের এই আচরণে এটুকু স্পষ্ট যে তাঁরা চাননা বিজেপির রথযাত্রা সফল হোক। এই পরিপ্রেক্ষিতেই রাজ্য বিজেপি সভাপতি দলীয় যুব কর্মীদের রথযাত্রা কর্মসূচি সফল করতে প্রশাসনের তোয়াক্কা করতে নিষেধ করলেন।

রথযাত্রার নিরাপত্তা প্রসঙ্গে দেবজিৎ বললেন,তিনটি রথের সঙ্গেই যুব মোর্চার কার্যকর্তারা সবসময়ই থাকবেন। রথকে নিরাপত্তা দিতে প্রতিটি রথের সঙ্গে কমপক্ষে ২০০ টি মোটরবাইক পাশে পাশে চলবে। গোটা রথযাত্রা জুড়েই একটি নিরাপত্তাবলয় তৈরি করার পরিকল্পনা রয়েছে। তবে,’তৃণমূলের গুন্ডারা’ রথযাত্রার পথে বাধা সৃষ্টি করবে এ ব্যাপারে নিশ্চিত তিনি। কারণ এখনই বিজেপি রথযাত্রা উপলক্ষ্যে যে দেওয়াল লিখন এবং প্রচার কর্মসূচি শুরু করেছে সেটা করতেই স্থানে স্থানে বাধা দেওয়া হচ্ছে শাসকদলের তরফ থেকে। এটা দেখে আন্দাজ করাই যায়,রথযাত্রার দিন কতোটা আক্রমণাত্মক হয়ে উঠবে তৃণমূল।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

 

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

এমনটাই আশঙ্কা তাঁর। তবে শত প্রতিবন্ধকতা পেরিয়ে বিজেপির রথযাত্রা সফল করতেই বদ্ধপরিকর যুব মোর্চা। তিনি আরো জানালেন,রাজ্যের সাধারণ মানুষের কিন্তু পূর্ণ সমর্থন রয়েছে বিজেপির এই গনতন্ত্র রক্ষার অভিযানে। এবং এই অভিযান ১৯’ এর লোকসভা ভোটে শাসকদলের পতনের বার্তাও বয়ে আনবে,এমনটাই হুঁসিয়ারী দিলেন যুবমোর্চার কর্মকর্তা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!