এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > পুরুলিয়া-ঝাড়গ্রাম-বাঁকুড়া > বিজেপিকে বড় ধাক্কা দিয়ে মন্ত্রীর হাত ধরে বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ কর্মীদের , জেনে নিন বিস্তারিত

বিজেপিকে বড় ধাক্কা দিয়ে মন্ত্রীর হাত ধরে বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ কর্মীদের , জেনে নিন বিস্তারিত

রাজ্যে ক্রমশ শক্তি বৃদ্ধি করছে বিজেপি। শাসকদল তো বটেই অন্যদলেরও ঘর ভাঙছে তারা। কিন্তু এবার বিজেপিকে বড় ধাক্কা দিয়ে তাদের গড়ে হানা দিয়ে নিজেদের দল ভারী করলো তৃণমূল।

মঙ্গলবার নয়াগ্রাম ব্লকের গোখুরপাল গ্রামে তৃণমূল প্রার্থী বীরবাহা সরেন টুডুর সমর্থনে এক নির্বাচনী সভায় যোগ দেন মন্ত্রী সৌমেন মহাপাত্র। নির্বাচনী সভার পাশাপাশি নয়াগ্রামে বিভিন্ন গ্রামে রোড শো করেন মন্ত্রী। পরে রোড শোতে যোগ দেন প্রার্থী বীরবাহা সরেন টুডু। আর সেখানেই প্রায় ৩০ জন বিজেপি কর্মী তৃণমূলে যোগ দেন। তাঁদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন মন্ত্রী সৌমেন মহাপাত্র ও ব্লক তৃণমূলের সভাপতি উজ্জ্বল দত্ত। এনারা বিজেপিতে যোগ দিয়ে জানান যে, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়নে সামিল হতেই তাদের এই যোগদান।প্রসঙ্গত, জঙ্গলমহলে ক্রমশ শক্তিশালী হচ্ছে বিজেপি হচ্ছে আর সেখানে বিজেপি কর্মীদের দলবদল বিজেপির কাছে ধাক্কা বলে দাবি রাজনৈতিকমহলের।

মন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন জেলা কোর কমিটির চেয়ারম্যান সুকুমার হাঁসদা ও ব্লক সভাপতি উজ্জ্বল দত্ত। কেশররেখা অঞ্চলের ডুমুরিয়াতে রোড শোতে প্রার্থী যোগ দেন। রোড শোতে ঝুমুর গান, আদিবাসীদের গানের টিম রয়েছে। পরে প্রার্থী বীরবাহা আরও ৩০ কিমি রোড শো করেন।

মন্ত্রী বলেন, জঙ্গলমহল যখন অশান্ত ছিল সেই দুর্দিনে কখনও বিজেপি আসেনি। আজকে আমাদের সবাই বুথ স্তর থেকে রাজনীতি করতে করতে উঠেছে। দিলীপবাবু বুথ স্তর দূরের কথা অঞ্চলস্তরে রাজনীতি করেননি। হঠাৎ তাঁকে রাজ্য সভাপতি করে দেওয়া হয়েছে। যাযাবর পাখি যখন পুকুরে জল থাকলে এসে বসবাস করে। আবার জল কমে গেলে উড়ে চলে যায়। দিলীপবাবুরা সেরকম ভোট পাখি। ভোট যখন আসে তখনই জনগনের পাশে আসে। কিন্তু যখন দুর্দিন হয় তখন কখনই দিলীপবাবুরা আসেননি। মানুষের বিপদের দিনে দাঁড়িয়েছে এমন ইতিহাস তাঁরা কোনদিন দেখাতে পারেন নি।

Top
error: Content is protected !!