এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > কর্মসূচীকে ঘিরে বিজেপির মধ্যেই তুমুল দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে, জোর চাঞ্চল্য রাজ্যে

কর্মসূচীকে ঘিরে বিজেপির মধ্যেই তুমুল দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে, জোর চাঞ্চল্য রাজ্যে

লোকসভা নির্বাচনের পর থেকেই রাজ্যে ধর্ম নিয়ে যুদ্ধ চরম আকার ধারণ করেছে। রামকে নিয়ে দড়ি টানাটানি তো আছেই, এবার হনুমান চালিশা পাঠ নিয়েও তীব্র বিতর্ক ছড়িয়ে পড়ল। বস্তুত, বর্তমানে প্রত্যেক মঙ্গলবার হাওড়া বিজেপির পক্ষ থেকে রাস্তা আটকে হনুমান চালিশা পাঠ করতে দেখা যায় বিজেপি নেতা কর্মীদের। যা নিয়ে তৃণমূলের পক্ষ থেকে এর প্রবল বিরোধিতা করা হয়েছিলেন।

মন্দিরের ভেতর ধর্মকে সীমাবদ্ধ না রেখে কেন রাস্তায় এইভাবে বসে পড়ে হনুমান চালিশা পাঠ করা হবে, তা নিয়ে বিরোধিতা করতে দেখা গিয়েছিল অনেককেই। তবে তাও বিজেপির পক্ষ থেকে এই উদ্যোগে কোনো খামতি রাখতে দেখা যায়নি। উল্টে রাস্তা আটকে সেই হনুমান চালিশা পাঠ করার প্রবণতা আরও বেড়েছে।

জানা যায়, গত মঙ্গলবার বিজেপির এই কর্মসূচিতে হাজির হয়ে যুব মোর্চার বিজেপি নেত্রী ইসরত জাহান সকলের মধ্যে হনুমান চালিশার বই বিলি করেন। আর এতেই বিতর্ক আরও বৃদ্ধি পায়। এদিকে পরিস্থিতি যাতে হাতের বাইরে না চলে যায়, তার জন্য এলাকায় এসে পুলিশের পক্ষ থেকে সেই বিজেপি নেতা কর্মীদের রাস্তা ছেড়ে উঠে যেতে বললে পুলিশের সাথে বিজেপি কর্মীদের প্রবল বচসার সৃষ্টি হয়।

এদিকে বিজেপির নেতা কর্মীরা এইভাবে রাস্তা আটকে প্রতি মঙ্গলবার হনুমান চালিশা পাঠ করলেও এই ব্যাপারে প্রবল বিরোধিতা করতে দেখা গেছে হাওড়া বিজেপির সদর সভাপতি সুরজিৎ সাহাকে। আর এই ঘটনাকে কেন্দ্র করেই এবার তৈরি হয়েছে বিতর্ক।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

এদিন এই প্রসঙ্গে সুরজিৎ সাহা বলেন, “রাস্তা আটকে বিজেপির ঝান্ডা নিয়ে এইরকম অনুষ্ঠানের সঙ্গে বিজেপির কোনো সম্পর্ক নেই। কেউ হিরোগিরি করার জন্য এই অনুষ্ঠান করতে পারে, কিন্তু রাস্তা আটকে এই কর্মসূচি করা ঠিক না।” তবে সুরজিৎ সাহা এই মন্তব্য করলেও তার দলের নেতাকর্মীরা যেভাবে রাস্তা আটকে হনুমান চালিশা পাঠ করছেন, তাতে বিজেপির মধ্যেকার দ্বন্দ্বই কি ফের প্রকাশ্যে এল না!

এদিন সেই ব্যাপারেও উঠতে শুরু করেছে প্রশ্ন। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, বর্তমানে বঙ্গ রাজনীতিতে ধর্মই প্রধান ইস্যু হয়ে দাঁড়িয়েছে। কিন্তু রাস্তা আটকে এইভাবে হনুমান চালিশা পাঠ করাকে যে মানুষ ভালোভাবে নেবে না, তা বুঝতে পেরেই এবার বিজেপির হাওড়া সদরের সভাপতি দলের নেতাকর্মীরা সেই রাস্তা আটকে হনুমান চালিশা পাঠ করলেও তার সম্পূর্ণ বিরোধিতা করে দলের মতানৈক্যকেই ফের প্রকাশ্যে এনে দিলেন বলে দাবি বিশেষজ্ঞদের।

কিন্তু সদর সভাপতি এই ধরনের মন্তব্য করলেও দলের নেতাকর্মীরা এখন এই ব্যাপারে ঠিক কি পদক্ষেপ নেন, এখন সেদিকেই তাকিয়ে সকলে।

Top
error: Content is protected !!