এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > পুনরায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হেভিওয়েট জেলা সভাপতির বিরুদ্ধে, ফের অস্বস্তি বিজেপিতে

পুনরায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হেভিওয়েট জেলা সভাপতির বিরুদ্ধে, ফের অস্বস্তি বিজেপিতে

Priyo Bandhu Media


রাজ্য প্রশাসন এবং তৃণমূল সরকার মিলে বিভিন্ন জায়গায় উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে তাঁদের কর্মীদের গ্রেফতার করছে বলে দীর্ঘদিন ধরেই এই অভিযোগ তুলে আসছে বাংলার বর্তমান বিরোধী দল বিজেপি। কিছুদিন আগেই উত্তর দিনাজপুর জেলা বিজেপির সভাপতি শঙ্কর চক্রবর্তীকে গ্রেপ্তার করা নিয়ে রাজ্যের বিরুদ্ধে প্রবল ভাবে সরব হয়েছিল গেরুয়া শিবির। এমনকি এই ইস্যুকে কাজে লাগিয়ে রাজ্য প্রশাসনের উপর তীব্র চাপ সৃষ্টি করে জেলায় জেলায় প্রবলভাবে আন্দোলনও গড়ে তুলেছিলেন তাঁরা।

কিন্তু ফের উত্তর দিনাজপুর জেলা বিজেপির সভাপতি শঙ্কর চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হওয়ায় রাজ্য রাজনীতি সরগরম হওয়ার আশঙ্কায় রাজনৈতিক মহল। কিন্তু হঠাৎ কেন শঙ্করবাবুর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হল? প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, উত্তর দিনাজপুর জেলার ইসলামপুরের দারিভিট কাণ্ডের পর সেখানকার ছাত্র মৃত্যুর প্রতিবাদে গত ২১ শে সেপ্টেম্বর রায়গঞ্জের শিলিগুড়ি মোড়ে রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখান কিছু বিজেপি নেতা কর্মী। সেইখানেই পুলিশের সঙ্গে প্রবল বচসা বাধে বিজেপির।

আর এরপরই উত্তর দিনাজপুর জেলা বিজেপির সভাপতি শঙ্কর চক্রবর্তী বিরুদ্ধে সরকারি সম্পত্তি ভাঙচুর, সরকারি কাজে বাধা ও জাতীয় সড়ক অবরোধের মামলা দায়ের করে রায়গঞ্জ থানার পুলিশ। আর এই মামলার জেরেই গত ২৫ শে সেপ্টেম্বর উত্তর দিনাজপুর জেলা বিজেপির সভাপতিকে ৯ ই অক্টোবর পর্যন্ত জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন রায়গঞ্জ আদালতের বিচারক। এদিকে শঙ্কর চক্রবর্তীর শারীরিক অবস্থার অবনতির কারণে গত ২৭ শে সেপ্টেম্বর তাঁর আইনজীবীর তরফ থেকে আদালতের কাছে একটি জামিনের আবেদন করা হয়।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

তবে উত্তর দিনাজপুর জেলায় না ঢোকার শর্তে শঙ্করবাবুর জামিন মঞ্জুর করেন বিচারক। এমনকি গত ১ লা অক্টোবর সরকারি আইনজীবির তরফে শঙ্কর চক্রবর্তীর সেই জামিন বাতিল করার আবেদন জানানো হলে সম্প্রতি ডিসেম্বর মাসের ২০ তারিখে এই ব্যাপারে একটি শুনানি হয়। জানা যায়, এই শুনানি পর্বে দুপক্ষের বক্তব্য শুনে উত্তর দিনাজপুর জেলা বিজেপির সভাপতি শঙ্কর চক্রবর্তীর সেই জামিন বাতিল করে দেন বিচারক। সূত্রের খবর, আগামী সাত দিনের মধ্যে আদালতে শঙ্করবাবুকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আর ফের জেলা বিজেপির সভাপতির বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হওয়ায় প্রবল অস্বস্তিতে পড়েছে গেরুয়া শিবির। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, সামনেই লোকসভা নির্বাচন। আর এই লোকসভা নির্বাচনের আগে উত্তর দিনাজপুর জেলায় পদ্ম ফোটাতে মরিয়া হলেও জেলার সংগঠনের সর্বোচ্চ সেনাপতির এভাবে বারবার শ্রীঘরে যাওয়াতে আদতে যে সংগঠনের বড়সড় ক্ষতি হচ্ছে মেনে নিচ্ছে বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ত্ব। তবে জেলা বিজেপির সভাপতির বিরুদ্ধে এভাবে বারবার গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করার পেছনে যে শাসকদলেরই হাত রয়েছে তা প্রচারের আলোয় তুলে ধরতেও কোনো কসুর ছাড়ছে না বিজেপি।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!