এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > দার্জিলিং লোকসভা ধরে রাখতে বিজেপির এখনো ভরসা বিমল গুরুং, তাঁকে ঘিরে অভিনব পরিকল্পনাতেই বাজিমাতের চেষ্টা

দার্জিলিং লোকসভা ধরে রাখতে বিজেপির এখনো ভরসা বিমল গুরুং, তাঁকে ঘিরে অভিনব পরিকল্পনাতেই বাজিমাতের চেষ্টা

এবারের লোকসভা নির্বাচনে বিমল গুরুংয়ের ভাবমূর্তিকে সামনে রেখেই পাহাড়ে পদ্মফুল ফোটাতে মরিয়া বিজেপি। আর সেজন্যেই বিমল গুরুংয়ের সঙ্গে অডিও এবং ভিডিও নিয়ে দার্জিলিং আসনের জন্যে প্রচারে নামার পরিকল্পনা করেছে বিজেপি,এমনকি বিমল গুরুংকে সশরীরে পাহাড়ে প্রচারের জন্যে আনার চেষ্টাও চালিয়ে যাচ্ছে তাঁরা,এমনটাই খবর বিজেপি সূত্রের।

অবশ্য এ নিয়ে আগ বাড়িয়ে এখনই কিছু প্রকাশ্যে জানাতে চান না বিজেপি নেতৃত্ব। তবে পাহাড়ে জয়ের ব্যাপারে বিজেপি যে আত্মবিশ্বাসী তার প্রমাণ মিলল দলের শিলিগুড়ি সাংগঠনিক জেলা কমিটির সভাপতি অভিজিৎ রায়চৌধুরীর বক্তব্যে৷ তিনি জানালেন,’দার্জিলিং আসনে এবারও বিজেপি জিতবে। পাহাড়ের সঙ্গে সমতল থেকেও আমরা এবার ভালো লিড পাব। এজন্য গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে যা যা করার তা সবই করা হবে।’

তবে লোকসভা ভোটে পাহাড় দখলের লড়াইটা যে সোজা হবে না তা ভালোই বুঝে গিয়েছে গেরুয়াশিবির কর্তারা। কারণ পাহাড়ের এককালের ‘বেতাজ বাদশা’ বিমল গুরুং লোকচক্ষুর আড়ালে গিয়েছেন অনেকদিন হল। শুধুমাত্র মাঝে মাঝে অডিও এবং ভিডিও বার্তার মাধ্যমেই নিজের অস্তিত্বের জানান দেন তিনি। এরপর মোর্চাও তার পুরানো মহিমা হারিয়েছে। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে রাজনৈতিক পটপরিবর্তন ঘটেছে।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

বিমল গুরুংয়ের জায়গায় পাহাড়ের রাশ এসেছে মমতা বন্দ্যেপাধ্যায় ঘনিষ্ঠ বিনয় তমাংয়ের হাতে। এই বিনয় তমাংয়ের হাত ধরেই পাহাড়ে শক্তিশালী হয়েছে তৃণমূলের সংগঠন। তার উপর পাহাড়ের ভোটব্যাঙ্ক দখলে রাখতে একাধিক উন্নয়নমূলক কর্মসূচি ঢেলে সাজিয়েছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কাজেই স্বাভাবিকভাবেই পাহাড়ে বিজেপির মাটি শক্ত করতে গেলে তৃণমূলের সঙ্গে লড়াইটা কঠিন হবে,তা বলাবাহুল্য।

তাই বিনয়-তৃনমূলের জোটের বিরুদ্ধে বিমল গুরুংকে সঙ্গে নিয়ে লড়াইয়ের ময়দান গরম করতে চাইছে বিজেপি। বিজেপি নেতৃত্বের দাবী,এবারে পাহাড়ের ভোট হবে সম্পূর্ণ নতুন চরিত্রের। পাহাড়ের রাশ কার্যত বিনয় তমাংয়ের হাতে থাকলেও এখনো বিমল গুরুংকেই নেতা বলে বলে মানে পাহাড়বাসী। রাজনৈতিক চাপের কারণে পাহাড়বাসী সেটা প্রকাশ করতে না পারলেও লোকসভা ভোটে তার প্রমাণ দিয়ে দেবে বলেই আশা করেছেন পাহাড়ের বিজেপি নেতৃত্বরা।

তবে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের অভিমত,দীর্ঘদিন ধরে আত্মগোপন করে থাকার দরুণ পাহাড় রাজনীতি থেকে অনেকটাই বিচ্ছিন্ন হয়ে রয়েছেন বিমল গুরুং। তাছাড়া গুরুং বিদ্বেষীদেরও আপাতত অভাব নেই পাহাড়ে। কাজেই গুরুংকে ব্যবহার করে পাহাড়ে ভোট টানার চেষ্টা করলে বিজেপি প্রার্থী সমস্যায় পড়তে পারে।

তাছাড়া,গতবারের ভোটে গতবারের ভোটে বিজেপি’র কেন্দ্রীয় ইস্তাহারে পাহাড়বাসীর জন্য দেওয়া বহু প্রতিশ্রুতি তারা পূরণ করেনি। পাহাড়ের ১১টি জনজাতিকে তফসিলি জাতির স্বীকৃতিও দেয়নি বিজেপি নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় সরকার। এনিয়ে পাহাড়বাসীর মধ্যে চাপা একটা ক্ষোভ রয়েছে। সেই ক্ষোভই বিজেপির জয়ের পথের অন্তরায় হতে পারে। আর এটাকেই হাতিয়ার করে তৃণমূলের জয়ের পূর্ণ সম্ভাবনাও অমূলক নয়।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!