এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > মুখ্যমন্ত্রীর নামে ‘ভারতের সবচেয়ে বড় মিথ্যাবাদী’ পুরস্কার ঘোষণা করে চমকে দিল বিজেপি

মুখ্যমন্ত্রীর নামে ‘ভারতের সবচেয়ে বড় মিথ্যাবাদী’ পুরস্কার ঘোষণা করে চমকে দিল বিজেপি

আম আদমি পার্টির সর্বেসর্বা তথা দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের সঙ্গে বিজেপির দ্বৈরথ নতুন নয়। কখনো তাঁকে ‘মাফলার-ম্যান’ তো তো কখনো ‘একে-৪৯’ (তাঁর প্রথম দফার মন্ত্রীত্ত্বের ৪৯ দিনকে মাথায় রেখে) বলে এর আগে বিভূষিত করেছেন বিজেপি নেতারা। কিন্তু তা সত্ত্বেও বিজেপি বিধানসভা নির্বাচনে অরবিন্দ কেজরিওয়াল ঝড়ের কাছে কার্যত নিশ্চিন্হ হয়ে গিয়েছিল বিজেপি। কিন্তু লড়াই বা তরজা সেখানেই থেমে থাকে নি, কেজরিওয়ালকে অস্বস্তিতে ফেলতে একের পর এক ইস্যু তুলে গেছে বিজেপি। কখনো নির্বাচন কমিশনে লাভজনক পদ নিয়ে অভিযোগ জানিয়ে ২০ আপ বিধায়কের পদ খারিজ করা তো কখনো তাঁর মন্ত্রী-বিধায়কদের জেলের রাস্তা দেখানো।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

আর এবার সেই লড়াইয়ে নতুন মাত্রা যোগ করলেন বিজেপি নেতা তজিন্দর পাল সিং বাগ্গা। তিনি এবার দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের নামে ‘ভারতের সবচেয়ে বড় মিথ্যাবাদী’ পুরস্কার চালু করলেন। দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীকে ব্যঙ্গ করতেই এই পুরস্কার নিজের ট্যুইটারে ঘোষণা করেন তিনি। একটি ফোন নম্বর দিয়ে তিনি আবেদন করেন মিথ্যাবাদীদের নাম পাঠানোর জন্য, আর সবথেকে বড় মিথ্যাবাদীকে তিনি নাকি নগদ ৫,১০০ টাকা পুরস্কার দেবেন।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী তাঁর রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বীদের কাছে চিঠি লিখে ক্ষমা চাওয়া শুরু করেছেন। তিনি জানিয়েছেন যে তিনি তাঁর রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বীদের বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন বিষয়ে আক্রমন করেছেন, অভিযোগ করেছেন। কিন্তু সেই অভিযোগগুলি এখনো প্রমাণিত না হওয়ায় তিনি ক্ষমাপ্রার্থী। সেই চিঠি প্রসঙ্গেই বিজেপি নেতা তজিন্দর পাল সিং বাগ্গা জানান, দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী সবচেয়ে বড় মিথ্যাবাদী, তিনি কোনও প্রতিশ্রুতিই পালন করেননি, মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দিয়ে দিল্লির মানুষের সঙ্গেও প্রতারণা করেছেন। রাজধানীতে বিনামূল্যে ওয়াইফাই, ডিটিসি বাসগুলিতে মহিলাদের জন্য বিশেষ নিরাপত্তা, অন্তত ৫০০টি নতুন স্কুল এবং ২০টি কলেজ চালু করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন কেজরিওয়াল। কিন্তু একটিও পালন করেননি। আর তাই তিনি অরবিন্দ কেজরিওয়ালের নামে এই ‘ভারতের সবচেয়ে বড় মিথ্যাবাদী’ পুরস্কার ঘোষণা করলেন।

Top
error: Content is protected !!