এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > ভোটের ময়দানে বিজেপিকে জায়গা না দিতে এবার নয়া উদ্যোগ তৃণমূলের

ভোটের ময়দানে বিজেপিকে জায়গা না দিতে এবার নয়া উদ্যোগ তৃণমূলের

এখন আর শুধু মাত্র দলীয় ফেসবুক পেজ, ওয়েবসাইট নয় বিজেপিকে পরাস্ত করতে নতুন উদ্যোমে সোশ্যাল মিডিয়ায় সক্রিয় হয়ে উঠছে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস। উল্লেখ্য গেরুয়া শিবির তাদের প্রাত্যহিক দলীয় কার্যকলাপ দলীয় ওয়েবসাইট এবং ইউটিউবে প্রচার করে থাকে। এছাড়াও দলের নেতা-কর্মীদের সঙ্গে এবং দলের বাইরে সংযোগ রাখতে তাদের একাধিক হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপও রয়েছে। এইসব দিক বিবেচনা করেই তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দলের নেতা-কর্মীদের সোশ্যাল মিডিয়ায় আরও বেশি সক্রিয় থাকার নির্দেশ দিয়েছেন। আর তারপরেই দলের পক্ষ থেকে এই উদ্যোগ। এখন দলীয় সভা সমাবেশের বাইরেও সোস্যাল মিডিয়ায় বিভিন্ন ফেসবুক পেজ, টুইটার হ্যান্ড‌্ল, ওয়েবসাইট-পোর্টালে তৃণমূল কংগ্রেসের নজির বিহীন সক্রিয়তা লক্ষণীয়।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

রাজ্যে আসন্ন পঞ্চায়েত নির্বাচন নিয়ে দলের নানা বক্তব্য প্রচার করতে   প্রতি দিন বিকেল পাঁচটায় ফেসবুকে ‘লাইভ’ থাকছেন দলের নেতারা। তাঁরা এখানে রাজ্যের উন্নয়ন নিয়ে প্রচারের পাশাপাশি জনতার নানা প্রশ্নেরও মুখোমুখি হবেন। উল্লেখ্য তারা রাজ্যের ৪২টি লোকসভা কেন্দ্রের প্রতিটির জন্যও একটি করে ফেসবুক পেজ খুলেছেন। সেখানে স্থানীয় তৃণমূলের কার্যকলাপ, স্থানীয় সমস্যা, রাজ্য সরকারের উন্নয়নমুখী প্রকল্পগুলির সাথে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিভিন্ন সভা ও তাঁর ফেসবুক পোস্টও তুলে ধরা হচ্ছে। মুখ্যমন্ত্রী ছাড়া ও ওই ফেসবুক পেজগুলিতে দলের অন্য নেতাদের নির্দেশ এবং কেন্দ্রীয় কর্মসূচির ভিডিয়োও আপলোড করা হচ্ছে । সেখানে থাকছে বিরোধী দল বিজেপির বিতর্কিত বিভিন্ন ঘটনার ভিডিয়ো ফুটেজ, সংবাদপত্রে প্রকাশিত নানা খবর। ফেসবুক পেজগুলির এই বিন্যাস নিয়ে তৃণমূলের সোশ্যাল মিডিয়ার সঙ্গে যুক্ত এক নেতা বললেন, ”বিরোধীদের আক্রমণ শানাতে এই তথ্যগুলিই ব্যবহার করা যাবে।” নেট-দুনিয়ায় দলের সব স্তরের অংশগ্রহণ বাড়াতে দু’টি নিউজ পোর্টালও খুলেছে তৃণমূল। অবশ্য ত্রিণমূল কংগ্রেস সূত্রের খবর অনুয়ারী দলের প্রচারে বেশ কিছু নিউজ পোর্টালকেও পৃষ্ঠপোষকতা করা হচ্ছে । তৃণমূল কংগ্রেসের সোস্যাল মিডিয়ায় দলীয় কার্যকলাপ প্রচারের দায়িত্বে আছেন বিজেপি থেকে তৃণমূল কংগ্রেস দলের সদস্যপদ গ্রহণ করা সুপর্ণ মৈত্র এবং দীপ্তাংশু চৌধুরী।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!