এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > রাজ্য বিজেপির প্রাক্তন সাংগঠনিক সম্পাদক তথা আরএসএসের প্রচারক এবার কংগ্রেসে

রাজ্য বিজেপির প্রাক্তন সাংগঠনিক সম্পাদক তথা আরএসএসের প্রচারক এবার কংগ্রেসে

রাজ্যে কংগ্রেসের সংগঠন ভেঙ্গে পড়েছে বলে যখন বিজেপির পক্ষ থেকে প্রবলভাবে দাবি করা হচ্ছে ঠিক তখনই সেই গেরুয়া শিবিরের অস্বস্তিকে বাড়িয়ে দিয়ে বঙ্গ বিজেপির প্রাক্তন সাধারন সম্পাদক অমলেন্দু চট্টোপাধ্যায় সোমবার বিধান ভবনে গিয়ে কংগ্রেসে যোগ দিলেন।

সূত্রের খবর, এদিন বিধান ভবনে গিয়ে প্রদেশ কংগ্রেসের সভাপতি সোমেন মিত্র এবং কংগ্রেস সাংসদ প্রদীপ ভট্টাচার্যের হাত থেকে কংগ্রেসের পতাকা তুলে নেন বঙ্গ বিজেপির এই অমলেন্দু চট্টোপাধ্যায়। আর যে ঘটনা নিয়ে ইতিমধ্যেই লোকসভা নির্বাচনের আগে তীব্র চাপানউতোর শুরু হয়েছে বঙ্গ রাজনীতিতে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য এই অমলেন্দু চট্টোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধেই বিজেপির এক প্রাক্তন নেত্রীর সঙ্গে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে দিনের পর দিন সহবাসের অভিযোগ উঠেছিল। আর এই ঘটনার জেরে গত 2018 সেপ্টেম্বর মাসে দিল্লির দেশবন্ধু নগরে সংঘের পঞ্চায়েত সংক্রান্ত একটি দপ্তর থেকে লালবাজারের পুলিশ কর্তারা তাঁকে গ্রেপ্তারও করে।

আর এতেই কিছুটা হলেও অস্বস্তিতে পড়ে গেরুয়া শিবির। কিছুদিন আগেই এই অমলেন্দু চট্টোপাধ্যায়কে তার পদ থেকে সরিয়ে সেখানে আনা হয় তারই সহকারি সুব্রত চট্টোপাধ্যায়কে। আর গতকাল সেই অমলেন্দু বাবু কংগ্রেসে যোগ দেওয়ায় তীব্র জল্পনা শুরু হয়েছে রাজ্য রাজনীতিতে। কেন তিনি হঠাৎ বিজেপি ছেড়ে কংগ্রেসে যোগ দিলেন?

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

এদিন এই প্রসঙ্গে সেই অমলেন্দু চট্টোপাধ্যায় বলেন, “বিজেপির এক নেত্রীকে শহরের অভিজাত হোটেলে বিজেপির দুই কেন্দ্রীয় স্তরে শীর্ষনেতা ধর্ষণের চেষ্টা করেছিলেন। সেদিন আমি ওই মহিলাকে রক্ষা করেছিলাম। আর এরপরই আমার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছিল। কঠিন সময় আমার পাশে দলের কোনো নেতা দাঁড়াননি। তাই এবার রাহুল গান্ধীর আদর্শকে মান্যতা দিয়ে আমি কংগ্রেসে যোগ দিলাম।”

অমলেন্দু চট্টোপাধ্যায় কংগ্রেসে আসায় তীব্র উৎসাহ ছড়িয়ে পড়েছে হাত শিবিরের নেতাকর্মীদের মধ্যেও। তাঁদের একাংশের মতে, রাজনীতিতে সবই সম্ভব। আরএসএস নেতার কংগ্রেসে আগমন সেইরকমই একটি ব্যাপার। কিছুদিন আগেই কংগ্রেস নেতা তথা দেশের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায় আরএসএসের অনুষ্ঠানে গিয়েছিলেন, তাই সেই আরএসএসেরই প্রবীণ সদস্য অমলেন্দু চট্টোপাধ্যায় যদি কংগ্রেসে আসে তাহলে ক্ষতি কি!

তবে অমলেন্দু চট্টোপাধ্যায় বিজেপি ছেড়ে কংগ্রেসে যাওয়ায় লোকসভা নির্বাচনের আগে তিনি বঙ্গ বিজেপি হাঁড়ির খবর ফাঁস করে গেরুয়া শিবিরের ভোটব্যাংকে কতটা ধ্বস ধরাতে পারবে সে দিকেই তাকিয়ে রয়েছে অনেকে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!