এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > মকর সংক্রান্তি পার হলেই কি বিজেপিতে বড়সড় রদবদল, জল্পনা চরমে

মকর সংক্রান্তি পার হলেই কি বিজেপিতে বড়সড় রদবদল, জল্পনা চরমে

মাকড় সংক্রান্তির পরেই বড়সড় রদবদল হতে চলেছে বিজেপির অন্দরে। জানা যাচ্ছে সর্বভারতীয় সভাপতি থেকে রাজ্য সভাপতি সব কিছুই বদলাচ্ছে। জানা যাচ্ছে আগামী ২০ তারিখ বিজেপির পরবর্তী সভাপতি হতে চলেছেন জে পি নাড্ডা, আর তাঁর হাতে দলের সব দ্বায়িত্ব তুলে দেবে নবর্তমান সভাপতি তথা দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। যদিও সর্বভারতীয় সভাপতি হওয়ার জন্য অর্ধেক সংখ্যক রাজ্য সভাপতিদের ভোট প্রয়োজন হয় কিন্তু সেই ভোট এগিয়ে রয়েছেন নাড্ডাই আর ভোটাভুটি প্রক্রিয়া ১৮ জানুয়ারির মধ্যেই শেষ করা হবে। যতদূর জানা যাচ্ছে তাতে আগামী তিন বছরের জন্য বিজেপি সভাপতি হতে চলেছেন নাড্ডা।

অন্যদিকে কেন্দ্রের পাশাপাশি রাজ্যেও রদবদল হতে চলেছে।জানা যাচ্ছে বিজেপি সভাপতি পদে ফেরবসতে চলেছেন দিলীপ ঘোষ। যদিও তাঁকে সরানো হচ্ছে এই নিয়ে অনেক জল্পনা শোনা গিয়েছিলো তবুও বিজেপির বিশেষ সূত্র বলছে ২০২১ এর বিধানসভা নির্বাচন তাঁর হাত হাত ধরেই হতে চলেছে। তবে রাজ্য সম্পাদকমণ্ডলীতে অনেক বদল আসতে চলেছে বলে জানা গিয়েছে।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রাম, হোয়াটস্যাপ, ফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

জানা গিয়েছে, মুকুল রায় রাজ্যে কোনও বড় দায়িত্ব না পেলেও নতুন রাজ্য কমিটিতে মুকুল রায় গোষ্ঠীর গুরুত্ব বাড়তে চলেছে। তাছাড়া কমিটিতে বড় কোনও পদে সঙ্ঘের নতুন কেউ আসতে পারেন। সাধারণ সম্পাদক (সংগঠন) পদে কোনও পরিবর্তন হচ্ছে না। ওই পদেই থাকছেন সুব্রত চট্টোপাধ্যায়। তাঁর একজন নতুন সহকারী হয়ে সদ্যই এসেছেন সঙ্ঘ প্রচারক অমিতাভ চক্রবর্তী। যেহেতু ২০২১ এর বিধানসভা নির্বাচনকে পাখির চোখ করে এগোচ্ছে বিজেপি তাই বর্তমান রাজ্য কমিটিতে বড় রদবদলের পক্ষে নয় দল। বিজেপি সূত্রে খবর, মকর সংক্রান্তি মিটে গেলেই যাবতীয় ঘোষণা হয়ে যাবে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!