এখন পড়ছেন
হোম > আন্তর্জাতিক > রিপোর্টের দাবি উড়িয়ে কালো টাকা নিয়ে বড়সড় দাবি কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর, বাড়ছে জল্পনা

রিপোর্টের দাবি উড়িয়ে কালো টাকা নিয়ে বড়সড় দাবি কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর, বাড়ছে জল্পনা

সম্প্রতি প্রকাশিত একটি রিপোর্টে জানা যায় সুইস ব্যাঙ্কে গত এক বছরে ভারতীয়দের গচ্ছিত টাকার পরিমাণ ৫০ % বৃদ্ধি পেয়েছে। এই খবরে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে সরব হয়েছিলো বিরোধীরা। কিন্তু গত মঙ্গলবার সেই দাবি নস্যাৎ করে কেন্দ্রের তরফে বলা হয়েছে বর্তমান সরকারের আমলে সুইস ব্যাঙ্কে ভারতীয়দের টাকার পরিমাণ হ্রাস পেয়েছে ৮০ %।

সূত্রের খবর অনুসারে জানা যাচ্ছে সম্প্রতি সংবাদ মাধ্যমে সুইস ব্যাঙ্কে ভারতীয়দের গচ্ছিত অর্থের পরিমাণ বৃদ্ধি পেয়েছে জানিয়ে সে খবর প্রকাশিত হয় তারপরেই সুইস ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষ ,  সুইস অ্যাম্বাসাডর অর্থমন্ত্রী পীযূষ গোয়েলকে একটি চিঠি জনানো হয়েছে যে ঐ সংস্থার পক্ষ থেকে সুইজারল্যান্ডে থাকা ভারতীয়দের সম্পদের পরিমাণ ঘোষণা করা হয়নি। শুধু তাই নয় ঐ সংস্থার পক্ষ থেকে একটি রিপোর্ট পেশ করে বলা হয়েছে যে দেশের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নরেন্দ্র মোদী ক্ষমতায় আসার পর থেকেই ঐ ব্যাঙ্কে ভারতীয়দের গচ্ছিত অর্থের পরিমান হ্রাস পেতে শুরু হয়েছে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

 এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

এই রিপোর্টে আরও বলা হয়েছে যে, ২০১৭ সালের ২১ শে ডিসেম্বর ভারত সুইজারল্যান্ডের সঙ্গে একটি চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছে, যাতে বলা হয়েছে ২০১৮ সালের জানুয়াী মাস থেকে দুই দেশ তথ্য সংগ্রহ করবে। এবং ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বর মাস থেকে দুই দেশ প্রত্যেক বছর নিয়ম করে তথ্য আদান-প্রদান করবে।

প্রসঙ্গতঃ বিজেপি সরকার কেন্দ্রের ক্ষমতায় আসার পর থেকে টানা তিন বছর কালো টাকা কমে আসছিলো। কিন্তু সম্প্রতি অভিযোগ উঠেছিলো, ২০১৬ সালে নোট বন্দির পর থেকে আকষ্মিকভাবেই সুইস ব্যাঙ্কে কালো টাকা সঞ্চয়ের পরিমান বৃদ্ধি পেয়েছে। শুধু তাই নয় আরোও অভিযোগ উঠেছিলো ২০১৬ সালের নভেম্বরের পর থেকে পরবর্তী বছর অর্থাৎ ২০১৭ সালে এ যাবতকালে সব চেয়ে বেশি পরিমান ভারতীয় অর্থ সুইস ব্যাঙ্কে জমা হয়।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!