এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > গুরুত্বপূর্ণ শরিককে লোকসভার আগে গুরুত্ব দিয়েই জোটে রাখতে বড়সড় পদক্ষেপ গেরুয়া শিবিরের

গুরুত্বপূর্ণ শরিককে লোকসভার আগে গুরুত্ব দিয়েই জোটে রাখতে বড়সড় পদক্ষেপ গেরুয়া শিবিরের


লোকসভা নির্বাচনের মুখে শরিক দলকে খুশি করতে অভিনব পদক্ষেপ নিল বিজেপি। দীর্ঘদিনের জোটসঙ্গী শিবসেনার বেশ কয়েকটি ইস্যুতে বিজেপিবিরোধী রূপ দফায় দফায় সামনে এনেছে। তবে কট্টর হিন্দুত্ববাদী এই দলের মানভঞ্জনের চেষ্টায় কোনো খামতি রাখেননি মোদী-শাহ। এবার সেই শরিক দলের মুখে হাসি ফোটাতেই দলের প্রতিষ্ঠাতা বাল ঠাকরের স্মৃতিসৌধ নির্মাণে একশো কোটি টাকার আর্থিক সাহায্যের ঘোষণা করল মহারাষ্ট্র সরকার।

২৩ শে জানুয়ারি অর্থাৎ বুধবার বাল ঠাকরের ৯৩ তম জন্মদিবসের মহীন্দ্রক্ষণে এই স্মৃতিসৌধ নির্মানের জন্যে জমি তুলে দেওয়া হবে শিবসেনা প্রধানের হাতে। হস্তান্তরের কর্মসূচি সম্পন্ন হলেই সেখানে করা হবে গনেশ পুজো। বুধবারে অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার জন্যে শিবসেনার তরফ থেকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়ণবিশকে।

সম্প্রতি বিজেপি বিরোধী রাজনৈতিক দলের প্রতিনিধিরা মহাজোটের বার্তা দিলেন ১৯ জানুয়ারির ব্রিগেডের মঞ্চ থেকে। বিজেপিকে কেন্দ্র থেকে উৎখাত করতে বদ্ধপরিকর তাঁরা,এমনটাই জানিয়ে দিয়েছে চন্দ্রবাবু নাইডু,অখিলেশ যাদব, ফারুক আবদুল্লার মতো হেভিওয়েট নেতারা। এই সমাবেশের পর এই বিজেপি বিরোধী মহাজোটে অংশগ্রহণে ইচ্ছা প্রকাশ করেছে বেশ কিছু আঞ্চলিক দল।

কাজেই লোকসভা ভোটে বিরোধীদের বিরুদ্ধে লড়াইটা যে সহজ হবে তা বুঝতে বাকি নেই বিজেপির অভিজ্ঞমহলের। লোকসভা ভোটের আগে কৃষক থেকে শুরু করে ব্যবসায়ী এমনকি মধ্যবিত্তের স্বার্থে একাধিক প্রকল্পের ঘোষণা করলেও শরিকদলের সঙ্গ ছাড়া এই ভোট-বৈতরণী পার করতে বিজেপির বেগ পেতে হবে বুঝেই শরিকদলগুলিকে সন্তুষ্ট করার কাজে নেমে গিয়েছে গেরুয়াশিবির।

WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

আর তার সূত্র ধরেই এদিন শিবসেনার স্বার্থ ১০০ কোটি টাকা তুলে দেওয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হল মন্ত্রীসভায়। কেবল টাকাই নয়,যেখানে স্মৃতিসৌধটি নির্মান হবে সেই জমিটিও পুরসভার। এই স্মৃতিসৌধ নির্মানের জনযে দাদরের শিবাজি পার্কে মেয়র বাংলোর কম্পাউন্ডকে বাছা হয়েছে। বুধবার জমি হস্তান্তরের প্রক্রিয়া মিটে গেল লোকসভা ভোটের আগেই এই স্মৃতিসৌধ নির্মানের কাজ শুরু করা হবে বলেই খবর শিবসেনা সূত্রের।

উল্লেখ্য,সম্প্রতি এনডিএ জোটে ধাক্কা দিয়ে বেশ কিছু শরিকদল বিজেপির সঙ্গ ছেড়েছে। এছাড়া জোট ছাড়ার হুমকিও দিয়েছে উত্তরপ্রদেশে ‘আপনা দল’ এবং বিহারের ‘লোক জনশক্তি পার্টি’। দীর্ঘদিনের জোটসঙ্গী শিবসেনাও রামমন্দির নির্মান সহ বেশ কিছু ইস্যুতে বিজেপির প্রতি অসন্তোষ প্রকাশ করেছে। শিবসেনা প্রধান উদ্ধব ঠাকরের সঙ্গে সামনাসামনি কথা বলেও অসন্তোষ দমন করতে পারেননি অমিত শাহ।

শিবসেনাও একসময় এনডিএ থেকে বেরিয়ে এসে একলা লড়াই করার কথা জানিয়েছিল। ফলত শরিকদের বিক্ষুব্ধ রূপ দেখে রাতের ঘুম উড়েছিল বিজেপির। তবে মোদী-শাহকে স্বস্তি দিয়ে ফের শিবসেনা কাছে আসতে শুরু করেছে। দু’পক্ষের মন কষাকষি ধীরে ধীরে কমছে বলেই মনে করছে ওয়াকিবহালমহল।

বেশ কিছুদিন আগেই শিবসেবা নেতা সঞ্জয় রাউত জানিয়েছিলেন,ঠাকরের বায়োপিক দেখাতে বিশেষ স্ক্রিনিংয়ের ব্যবস্থা করবেন তাঁরা প্রধানমন্ত্রীর জন্যে। তারপরেই মহারাষ্ট্র সরকার শিবসেনার জন্যে একশো কোটি টাকার আর্থিক সাহায্যের ঘোষণা নজর কাড়ল রাজনৈতিকমহলের। এই সমস্ত ঘটনাই কাকতালীয় হতে পারে না বলেই ধারণা অভিজ্ঞমহলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!