এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > বিতর্কিত নেত্রীকে ‘থামাতে’ এবার বড়সড় সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে গেরুয়া শিবির – জানুন বিস্তারিত

বিতর্কিত নেত্রীকে ‘থামাতে’ এবার বড়সড় সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে গেরুয়া শিবির – জানুন বিস্তারিত

লোকসভা ভোটের আগে থেকেই বিজেপি নেত্রী তথা বর্তমানের ভোপালের সাংসদ সাধ্বী প্রজ্ঞা বিভিন্ন সময় বিতর্কিত মন্তব্য করে সংবাদ শিরোনামে এসেছেন। সে নাথুরাম গডসে থেকে হেমন্ত কারবারে কিংবা অভিশাপ থেকে বিজেপির নেতা-নেত্রীদের মৃত্যু সবকিছুই মধ্যপ্রদেশের ভূপালের বিজেপির সাংসদের বিতর্কিত মন্তব্য তাকে রাজনৈতিক চর্চাতে রেখেছে।

কিন্তু তার এই মন্তব্যের জেরে বারবার অস্বস্তিতে পড়তে হয়েছে বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্বকে। স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী বিজেপি নেত্রীকে সতর্ক করেছিলেন এই নিয়ে কিন্তু কিছুদিনের জন্য চুপচাপ থাকলেও ফের বিতর্কে জড়িয়েছেন এই বিজেপি সাংসদ। এবার বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব সাধ্বী প্রজ্ঞাকে নিয়ে বড়োসড়ো সিদ্ধান্ত নিলেন জানা গেছে।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রাম, হোয়াটস্যাপ, ফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

রাজ্য নেতৃত্বকে ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে আপাতত কোনো জনসভায় মন্তব্য বা বক্তিতা রাখতে পারবেন না বিজেপি সাংসদ। শুধু তাই নয় যদি তিনি কোনো বিতর্কিত মন্তব্য করেন তাহলে যেন দিল্লির নেতা-নেত্রীদের সঙ্গে সঙ্গে তা জানানো হয়। এই নিয়ে ভোপালের সাংসদকে ইতিমধ্যেই সতর্ক করে দিয়েছেন মধ্যপ্রদেশে বিজেপি সভাপতি রাকেশ সিং। এবং দলের নির্দেশ না পেলে তিনি যেন কোন রকম বক্তৃতা না রাখেন তাও তাকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। কিন্তু রাজনৈতিক মহলের প্রশ্ন যে তিনি কি চুপচাপ থাকতে পারবেন ?

এখন দেখার কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের নির্দেশ মতন তিনি কদিন বিতর্কিত মন্তব্য না করে থাকতে পারেন। প্রসঙ্গত মধ্যপ্রদেশে বিজেপি নেতা বাবুলাল গৌড়ে ও বিজেপি নেতা তথা প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি স্মরণসভায় গিয়ে প্রজ্ঞা দাবি করেছিলেন যে একজন সাধু নাকি তাকে বলেছে বিরোধীরা শক্তি ব্যবহার করে বিজেপির নেতা কর্মীদের মেরে ফেলছে আর যা নিয়ে তীব্র প্রতিক্রিয়া শুরু হয়েছিল শাসক-বিরোধী দুই শিবিরে। শুধু তাই নয়, এই নিয়ে বিতর্কের ঝড় উঠেছিল গোটা দেশজুড়ে।আর এর পরেই নড়েচড়ে বসে বিজেপি নেতৃত্ব এবং এই বিজেপি সাংসদকে নিয়ে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!