এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > বিজেপির ফলাফল নিয়ে শীর্ষনেতার বিশ্লেষণে চরম অস্বস্তিতে গেরুয়া শিবির

বিজেপির ফলাফল নিয়ে শীর্ষনেতার বিশ্লেষণে চরম অস্বস্তিতে গেরুয়া শিবির

সম্প্রতি দেশের ১০টি বিধানসভা ও ৪টি লোকসভা আসনের উপনির্বাচনে বিপর্যস্ত গেরুয়া শিবির। আর এই ঘটনাকে বিষয় করে উত্তেজক মন্তব্য করলেন  বিজেপির শীর্ষ নেতা চন্দন মিত্র। যা বিজেপি শিবির কে কার্যতই কোনঠাসা করেছে। বিজেপির এই শীর্ষ নেতা এদিন নিজের ব্যক্তিগত মত প্রকাশ করে বললেন,  উত্তরপ্রদেশের কৈরানা লোকসভা কেন্দ্রের হার গুরুতর ধাক্কা । যদিও এই পরাজয়ের প্রসঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং বলেছেন, “অনেক বড় দূরত্ব অতিক্রম করার আগে দু’‌পা পিছিয়ে আসতে হয়। ভবিষ্যতে আমরা সেই বড় দূরত্ব অতিক্রম করব।” এই কেন্দ্রে জাঠ-নেতা অজিত সিংয়ের দল আরএলডি দল বিজেপি শক্তিকে প্রতিহত করে জয়লাভ করেছে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

উল্লেখ্য সাম্প্রদায়িক স্পর্শকাতর ঐ অঞ্চলে নির্বাচনের সময়ে আরএলডি নেতা  অজিত সিং এর সংশ্রব এড়িয়ে চলেছিলো কংগ্রেস দল এবং সমাজবাদী পার্টি। এবারের নির্বাচনে বিজেপিকে পরাস্ত করতে সেই অজিত সিং এর দল মনোনীত প্রার্থীকেই সমর্থন জানিয়েছেন কংগ্রেস এবং সমাজবাদীপার্টি। এই প্রসঙ্গে শুক্রবার বিজেপি নেতা চন্দন মিত্র বললেন, “যদি বিরোধীরা একজোট হয়, যা বাস্তবে সম্ভব কিনা জানি না, তাহলে ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে জয়ী হতে বিজেপিকে কঠিন লড়াইয়ের সম্মুখীন হতে হবে। কারণ বিজেপি আখ চাষীদের সমস্যা নিয়ে যথাযথ উদ্যোগ নেয়নি। যার ফলে চাষীরা অত্যন্ত ক্ষুব্ধ হয়ে পড়েছে। কিছু একটা করা দরকার যাতে চাষীরা উপযুক্ত দাম পায়।” উল্লেখ্য কৈরানায় ২০১৪ সালে বিজেপি প্রায় ৫১ শতাংশ ভোট পেয়েছিল। আর ২০১৮ সালে  সেই কেন্দ্রে বিজেপির শোচনীয় পরাজয় । রাজনৈতিক মহলে এখন স্বভাবিক ভাবেই প্রশ্ন উঠছে বিজেপি কর্মকান্ডের প্রতিবাদেই মানুষের রায়ে বিজেপির পরাজয়। আগামী বছর লোকসভা নির্বাচনের আগে গেরুয়া শিবির নিজেদের ভুল সংশোধন করে নিতে পারবে তো!

 

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!