এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > বিজেপিকে আটকাতে বৃহত্তর মহাজোট ভেস্তে যাওয়ার পথে

বিজেপিকে আটকাতে বৃহত্তর মহাজোট ভেস্তে যাওয়ার পথে

উত্তর প্রদেশের লোকসভা উপ নির্বাচনে সপা – বসপা জোটের নজরকাড়া সাফল্য বিজেপি শিবিরকে একপ্রকার বিপাকে ফেলেছিলো। কিন্তু আগামী ১২ ই মে কর্ণাটক রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনে এই দুই দল অখিলেশ যাদবের সমাজবাদি পার্টি এবং মায়াবতীর বহুজন সমাজবাদি পার্টি জোটবদ্ধ হলেন না। তাঁরা একক ভাবে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করবেন বলে যান গেছে । রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা মনে করছেন তাঁদের এই পদক্ষেপ নিঃসন্দেহেই ভোট ভাগাভাগিতে সাহায্য করবে এবং এতে করে লাভজনক অবস্থানে যাওয়ার সম্ভবনা বিজেপির। উল্লেখ্য সপা-বসপা দলের জোট না হওয়ায় স্বভাবতই আনন্দিত বিজেপি শিবির। কারণ জোট হলে একদিকে ভোট ভাগাভাগি হত না, লড়াইও অনেক কঠিন হয়ে যেত, অন্যদিকে নির্বাচনোত্তর পরিস্থিতি যদি ত্রিশঙ্কু হয় তাহলে বিধায়ক ভাঙানোর খেলায় নেমে কর্নাটকের মসনদ দখল করার রাস্তা খোলা রইল তাদের।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

রাজনৈতিক মহলের অন্য অংশের মতে সপা- বসপার জোট হয়েছিলো মূলত রাজ্যসভার আসনকে লক্ষ্য করে। সেখানে এই দুই দল একে অপরকে সাহায্য করেছিলো। কিন্তু শেষ অবধি বসপার চাহিদা পূরণ হয়নি। তাই এই জোট কর্নাটকে বহাল রইল না। রাজনৈতিক মহলের ধারণা এই জোট না হওয়ায় লড়াইটা কংগ্রেস-বিজেপি এবং এইচডি দেবগৌড়ার জনতা দল সেকুলারের মধ্যেই সীমাবদ্ধ রইলো। এদিকে বসপা’র তরফ থেকে জানানো হয়েছে, তারা ২০টি আসনে প্রার্থী দেবে এবং দেবগৌড়ার দলকে সমর্থন করবে। এবং সপা’র পক্ষ থেকে রবীন ম্যাথুজ জানালেন তাঁরা ২৭টি আসনে প্রার্থী দেবে। এরমধ্যে আবার বিজেপির প্রচারে কর্ণাটকে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ ৩৫টি সভা করবেন। সমাজবাদি পার্টির মুখপাত্র রাজেন্দ্র চৌধুরী বললেন, ”‌এসপি-বিএসপি’‌র জোট হয়েছিল উত্তরপ্রদেশের লোকসভা উপনির্বাচনকে কেন্দ্র করে। অন্যান্য রাজ্যের নির্বাচনে লড়াইয়ের জন্য চূড়ান্ত কিছু হয়নি। তবে আমরা চাই সব ধর্মনিরপেক্ষ রাজনৈতিক দল ঐক্যবদ্ধ হোক।’‌’

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!