এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > নেত্রীর বিরুদ্ধে বিরোধিতা দলের তিন বিধায়কের, পিছনে কি বিজেপি, জল্পনা তুঙ্গে

নেত্রীর বিরুদ্ধে বিরোধিতা দলের তিন বিধায়কের, পিছনে কি বিজেপি, জল্পনা তুঙ্গে

গেরুয়া শিবিরের সাথে জোট সম্পর্ক ছিন্ন হওয়ার পর থেকেই রাজনৈতিক অস্থিরতা তীব্র হয়েছে পিডিপি দলে। দলের ভেতরেই নেতৃবর্গের মধ্যে পারস্পরিক অসহিষ্ণুতা তৈরী হয়েছে। যা দলের অন্দরে সর্ব সম্মত সিদ্ধান্ত গ্রহণের পথে প্রধান অন্তরায় হয়ে দাঁড়াচ্ছে। পিপ্‌লস ডেমোক্রাটিক পার্টি সুপ্রিমো মেহবুবা মুফতির বিরুদ্ধে এবার প্রকাশ্যে বিরোধী করলেন ঐ দলেরই এক গুরুত্বপূর্ণ নেতা ইমরান আনসারি। এদিন তিনি দলীয় নেতৃত্বে বদল আনার দাবি তো করলেনই সাথে রাজ্যের সরকার ভাঙার জন্যে দলনেত্রীকেই দায়ী করলেন। এমনকি তিনি বলেছেন নেত্রী হিসেবে মেহবুবা মুফতি অত্যন্তই অযোগ্য। আর এই পিডিপি নেতার দাবিকে সমর্থন করেছেন দলেরই অন্য দু’জন নেতা ও বিধায়ক মহম্মদ আব্বাস ওয়ানি, এবং আবিদ আনসারি । এই ঘটনার জেরে রাজনৈতিক মহলের প্রতিক্রয়া দলের নেতাদের মধ্যে দলনেত্রী সম্পর্কে এমন বিরূপ মনোভাব হলে পিডিপি দলের ভবিষ্যত অনিশ্চিত একই সাথে ভাঙন অনিবার্য। প্রসঙ্গতঃ ৮৭ আসন বিশিষ্ট জম্মু-কাশ্মীর বিধানসভায় বিজেপির ২৫জন বিধায়ক রয়েছে। আর পিডিপি’‌র রয়েছে ২৮ জন বিধায়ক।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

 এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

রাজনৈতিক মহল সূত্রে অনুমান করা হচ্ছে পিডিপি দলের এই বিক্ষুদ্ধ তিন বিধায়ককে ভাঙিয়ে পারলেই বিজেপির বিধায়ক সংখ্যা ২৮ জনে পৌঁছে যাবে। তেমন হলে স্থানীয় নির্দল সদস্যদের সঙ্গে জোট করে সরকার গঠন করা বিজেপির পক্ষে কিছু কিছু দুসাধ্য নয়। একই পরিকল্পনা খবর বিজেপি দলের পক্ষ থেকেও গোপণ সূত্রে পাওয়া গেছে। এদিন ইমরান আনসারি তাঁর ব্যক্তিগত ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশ করে একপ্রকার অভিযোগের সুরেই বললেন, ” সবসময় বলে আসছিলাম মেহবুবাকে ঘিরে রেখেছেন স্তাবকরা। এরাই দলটাকে নষ্ট করছে। দলে মুফতি নিজেও স্বজনপোষণের সঙ্গে যুক্ত। ভুল পথে চালিত করছে মেহবুবাকে। উনি আমার কথায় কান দেননি। তার ফলেই দলের এই হাল।” অপর একটি সূত্র মারফত জানা গিয়েছে ইমরান আনসারি বর্তমানে দলের সাথে দূরত্ব বজায় রাখছেন। কারণ তাঁর দাবি কেন্দ্রীয় সরকার জ্যের জন্য বিপুল পরিমান বরাদ্দ করেছিল। সেই টাকা প্রয়োজনীয় খাতে ব্যয় করতে অসমর্থ হয়েছেন পিডিপি নেত্রী তথা রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি।তাই রাজনৈতিকমহলে জোর জল্পনা তবে কি বিজেপির মাস্টারমাইন্ড অমিত শাহের চালেই কি
নেত্রীর বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে বিরোধিতায় নামলেন দলের তিন বিধায়ক।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!