এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > বিমান বসুকে ‘শিয়াল’ বলে তীব্র আক্রমন সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের

বিমান বসুকে ‘শিয়াল’ বলে তীব্র আক্রমন সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের

শুক্রবার পশ্চিম মেদিনীপুরের জঙ্গলের মধ্যে বাঘের মৃতদেহ উদ্ধার করা হলো। এই নিয়ে নিজেদের মধ্যে বাক যুদ্ধে মাতলেন রাজ্যের শাসক দল ও বিরোধী দলের দুই শীর্ষনেতা। বাঘের মৃত্যু প্রসঙ্গে সরকারী সূত্রে নানা সম্ভবনার কথা উঠে আসছে। তার মধ্যে যেমন রয়েছে চোরা শিকারীদের আক্রমন, তেমনি রয়েছে আদিবাসী শিকারীদের গোপণে শিকার করার প্রবণতা।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এই বিষয়েই এদিন কথা প্রসঙ্গে বামফ্রন্টের চেয়ারম্যান বিমান বসু বললেন,”বাঘটি শিকারিদের দ্বারা হত্যা হয়েছে বলে অনুমান করা হচ্ছে। তা বলে আদিবাসী সম্প্রদায়ের উপর সরাসরি এই দায় চাপিয়ে দেওয়া ঠিক নয়। কারা বাঘটিকে হত্যা করল, তা আগে তদন্ত করে জানার পরই দোষ চাপানো উচিত। শিকার আদিবাসী সম্প্রদায়ের সংস্কৃতি। বাঘ-খুনের দায় চাপালে তাঁদের ভাবাবেগে আঘাত লাগতে পারে। এই অপবাদ দেওয়া উচিত নয়। বনদফতরের উচিত ছিল লোক বাড়ানো। নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা, তা করতে পারেনি। এখন আদিবাসীদের উপর দোষ চাপিয়ে দায় সারতে চাইছে।” বামফ্রন্টের শীর্ষ নেতার এই প্রতিক্রিয়া শুনে কার্যত অসন্তুষ্ট রাজ্যের পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায় একরকম শ্লেষের সুরেই বললেন,” উনি তো শেয়াল, তাই সঠিক সময়ে বলে দিয়েছেন এই কথা।” এছাড়াও সুব্রত বাবু এদিন বললেন,” বাঘটিকে হত্যা করা হয়েছে। এটা খুব দুঃখজনক। বাঘটি ধরার সমস্ত রকম চেষ্টা চালাচ্ছিল বন দফতর। তবু কেন এই ঘটনা ঘটে গেল, তা মুখ্যমন্ত্রী নিজে তদন্ত করছেন।”

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!