এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > দায়িত্ত্ব পেতেই ‘অভিষেক-গড়ে’ ভাঙ্গন ধরাতে শুরু করলেন মুকুল রায়

দায়িত্ত্ব পেতেই ‘অভিষেক-গড়ে’ ভাঙ্গন ধরাতে শুরু করলেন মুকুল রায়

বিজেপিতে যোগদানের প্রায় এক বছর বাদে দলে অবশেষে গুরুত্ত্বপূর্ন দায়িত্ত্ব পেয়েছেন মুকুল রায়। প্রথমে তাঁকে দেওয়া হয় পঞ্চায়েত নির্বাচনের দায়িত্ত্ব – আর সেখানে তাঁর হাত ধরেই বাংলায় বিজেপির পক্ষে সর্বকালীন ভালো হয়। আর দেরি করেননি অমিত শাহরা – তাঁর ভালো কাজের ‘পুরস্কার’ হিসাবে সরাসরি তাঁকে ন্যাশনাল এক্সিকিউটিভ কমিটির সদস্য করা হয়। কিন্তু জাতীয়স্তরে দায়িত্ত্ব পেলেও – তাঁর অনুগামীদের অভিযোগ ছিল, তাঁদের নাকি ‘কাজ’ করতে দেওয়া হচ্ছে না।

এদিকে নরেন্দ্র মোদী-অমিত শাহদের পাখির চোখ আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বাংলা থেকে কমপক্ষে ২২ টি আসন জেতা। আর এই কাজে তাঁদের ভরসার মানুষ সেই মুকুল রায়। সামনেই ৫ রাজ্যের গুরুত্ত্বপূর্ন বিধানসভা নির্বাচন, যা নিয়ে তীব্র ব্যস্ততা গেরুয়া শিবিরে। কিন্তু, তার মাঝেই আর দেরি না করে মুকুল রায়কে অতি গুরুত্ত্বপূর্ন লোকসভা নির্বাচনের পশ্চিমবঙ্গের আহ্বায়কের পদ দেওয়া হয়। মুকুল রায় নিজেও জানেন, রাজ্যের প্রবল প্রতাপশালী শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসকে রুখে ২২ টি আসন জেতা মুখের কথা নয়।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না – তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

আর, তা দায়িত্ত্ব পেয়েই নিজের ‘কাজ’ শুরু করে দিলেন তিনি। মুকুল রায়ের হাত ধরে এবার ভাঙন ধরল তৃণমূল কংগ্রেসের যুবরাজ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের খাসতালুক ডায়মন্ড-হারবার লোকসভা কেন্দ্রে। আর সেই ভাঙনও কোনো সুদূর গ্রাম-পঞ্চায়েতে নয়, একেবারে খাস কলকাতা শহরের কাছে মহেশতলা বিধানসভা কেন্দ্রে। এই সেই মহেশতলা বিধানসভা – যেখানে মাত্র কিছুদিন আগেই দাপুটে তৃণমূল বিধায়ক কস্তুরী দাসের প্রয়ানে উপনির্বাচন হয়। আর, সেই উপনির্বাচনে রেকর্ড মার্জিনে জেতেন কস্তুরীদেবীর স্বামী তথা মহেশতলা পুরসভার চেয়ারম্যান দুলাল দাস।

সেই মহেশতলা বিধানসভা কেন্দ্রেই এবার মুকুল রায়ের হাত ধরে প্রাক্তন তৃণমূল কাউন্সিলর অমলেশ সরকারের হাত ধরে প্রায় হাজার খানেক তৃণমূল নেতা-কর্মী এদিন বিজেপিতে যোগদান করলেন। অন্যদিকে, অধীর চৌধুরীর ঘনিষ্ঠ হিসাবে পরিচিত মহেশতলারই আইনজীবী-নেত্রী রুবি বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্ত্বে কংগ্রেসেরও বেশ বড় সংখ্যক নেতা-কর্মী মুকুল রায়ের হাত ধরে গেরুয়া শিবিরে নাম লেখালেন। পুজোর আগেই খাস কলকাতার সন্নিকটে হেভিওয়েট-নেতা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের গড়ে ভাঙন ধরিয়ে বড় বার্তা দিলেন মুকুল রায় বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!