এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > যোগ্যতার ভিত্তিতে প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন বৃদ্ধি নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত আদালতের, বাড়ছে আশা

যোগ্যতার ভিত্তিতে প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন বৃদ্ধি নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত আদালতের, বাড়ছে আশা

একদিকে যখন বকেয়া ডিএ ও কেন্দ্রীয় হারে বেতন না পেয়ে রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের ক্ষোভ তীব্রতর হচ্ছে – অন্যদিকে তখন পুরোনো স্কেলে বেতন পাওয়া নিয়ে রাজ্যের হাজার হাজার প্রাথমিক শিক্ষকের মনেও উঠছে বঞ্চনার প্রশ্ন। কিছুদিন আগেই উস্থি ইউনাইটেড প্রাইমারি টিচার্স অ্যান্ড ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন বা ইউইউপিটিএ কলকাতায় এই নিয়ে এক মহা মিছিল ও সমাবেশ করে।

সংগঠনটির দাবি ছিল, প্রাথমিক শিক্ষকদের ন্যূনতম শিক্ষাগত যোগ্যতা কেন্দ্রের বেঁধে দেওয়া নিয়ম অনুযায়ী হচ্ছে, এমনকি প্রাথমিক শিক্ষকদের জন্য ট্রেনিংও আবশ্যিক করে দেওয়া হয়েছে – অথচ, বেতন দেওয়ার বেলায় দেওয়া হচ্ছে পুরোনো স্কেলে। সেদিনের মিছিলের উদ্যোক্তাদের দাবি ছিল, সেদিন অন্তত ৪০ হাজার প্রাথমিক শিক্ষক-শিক্ষিকা সেই প্রতিবাদ মিছিলে পা মিলিয়েছিলেন।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

সেদিনের সমাবেশে যেমন একদিকে বুদ্ধিজীবীদের সমর্থন পেয়েছিলেন প্রাথমিক শিক্ষকরা, অন্যদিকে সংগঠনের শীর্ষনেতাদের বক্তৃতা থেকে স্পষ্ট হয়েছিল, যেহেতু তাঁদের দাবির মধ্যে যৌক্তিকতা রয়েছে বলে মনে করছেন অধিকাংশ বিশেষজ্ঞই – তাই রাজ্য সরকারের ‘বঞ্চনার’ বিরুদ্ধে এবার জোরদার লড়াইয়ে যাওয়া হবে। অতি গুরুত্ত্বপূর্ন দাবি নিয়ে হওয়া এই মামলার আজ শুনানি ছিল।

সূত্রের খবর, সেই মামলার শুনানির শেষে রীতিমত খুশি মামলাকারীরা। কেননা, দীর্ঘদিন ধরেই – অনেক চেষ্টা করেও ‘বেলা সাহা ভার্সেস রাজ্য সরকার মামলার কেস’, এই মামলায় ‘মেনশন’ করা যাচ্ছিল না। অবশেষে আজ তা করা গেছে, ফলে মামলাকারীদের দাবি এইবার এই মামলার শুনানি ‘নিয়মিত’ হতে চলেছে। অন্যদিকে, জানা গেছে আগামী ২৭ শে আগস্ট বিচারপতি সমাপ্তি চ্যাটার্জীর এজলাসে বেলা ২ টোর সময় এই মামলার শুনানি হবে। ফলে সবমিলিয়ে বেশ আশাবাদী যোগ্যতার ভিত্তিতে প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন বৃদ্ধির দাবিতে আন্দোলন করা রাজ্যের হাজার হাজার প্রাথমিক শিক্ষক-শিক্ষিকা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!