এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > BIG BREAKING -বড়সড় খুশির খবর রাজ্য সরকারি কর্মীদের,ষষ্ঠ পে কমিশনের সুপারিশ সিলমোহর দিল রাজ্য মন্ত্রিসভা

BIG BREAKING -বড়সড় খুশির খবর রাজ্য সরকারি কর্মীদের,ষষ্ঠ পে কমিশনের সুপারিশ সিলমোহর দিল রাজ্য মন্ত্রিসভা


গত ১৩ ই সেপ্টেম্বর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন যে আজ, অর্থাৎ ২৩ শে সেপ্টেম্বর মন্ত্রিসভার বৈঠকে ষষ্ঠ পে-কমিশনের সুপারিশে সিলমোহর দেওয়া হবে। সেই মত, রাজ্যের অর্থমন্ত্রী জানিয়ে দেন রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের জন্য ‘সুখবর’। তাঁর ঘোষণা মত, পে-কমিশন যে সুপারিশ করেছিল তার থেকেও, বেশি দিয়েছে রাজ্য সরকার। রাজ্যের অর্থমন্ত্রীর দেওয়া হিসেবে অনুযায়ী, নতুন পে কমিশন এরকম হতে চলেছে –



WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।




আপনার মতামত জানান -

১. কোনও রাজ্য সরকারি কর্মীর বেতন যদি আগে ১০০ টাকা ছিল, তাঁর এবার বেতন হবে ২৮০.৯০ টাকা
২. দ্বিগুণ হচ্ছে গ্র্যাচুইটির ঊর্ধ্বসীমা – ৬ লাখ থেকে বেড়ে বেড়ে হচ্ছে ১২ লাখ
৩. বাড়ি ভাড়া ভাতা ৬ হাজার থেকে বেড়ে হচ্ছে ১২ হাজার টাকা
৪. নন প্র্যাকটিসিং অ্যালাউন্স, পে-কমিশন সুপারিশ করেছিল ১ লক্ষ ৮০ হাজার টাকা, কিন্তু রাজ্য সরকার সেটাকে বাড়িয়ে করল ২ লক্ষ টাকা
৫. মেডিক্যাল অ্যালাউন্স, পে-কমিশন মাসে ৩০০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৪০০ টাকা করার সুপারিশ করেছিল, রাজ্য সরকার সেটাকে আরও বাড়িয়ে ৫০০ টাকা করেছে (ঊর্ধ্বসীমা ২,৫০০ থেকে বেড়ে হচ্ছে ৩,৫০০ টাকা)
৬. টিফিন খরচ, পে-কমিশন ন্যূনতম ১০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ২০ টাকা করার সুপারিশ করে, রাজ্য সরকার সেটাকে আরও বাড়িয়ে ৩০ টাকা করল (সর্বোচ্চ ৬০ টাকা বাড়িয়ে ১৮০ টাকা করা হল)

অবশ্য রাজ্য সরকার সুখবর বললেও, ক্ষোভে ফুঁসছেন রাজ্য সরকারি কর্মচারীরা। কেননা পে-কমিশনের ঘোষণায় ডিএর কোনো উল্লেখ নেই। ২০১৬ সালের ১ লা জানুয়ারী থেকে চালু হওয়ার কথা থাকলেও – গত ৪ বছরের কোনো এরিয়ার নেই। ফলে, অর্থমন্ত্রীর ‘সুখবর’, রাজ্য সরকারি কর্মীরা কিন্তু মেনে নিচ্ছেন না!

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!