এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > শিক্ষিত বেকারদের জন্য বড় ঘোষণা রাজ্য সরকারের

শিক্ষিত বেকারদের জন্য বড় ঘোষণা রাজ্য সরকারের

কিছুদিন আগেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রকাশ্য সভামঞ্চ থেকে জানিয়েছিলেন তাঁর আমলে রাজ্য সরকার ইতিমধ্যেই ৮১ লক্ষ বঙ্গবাসীকে কাজের সংস্থান করে দিয়েছেন। শুধু তাই নয়, আগামী দিনে তিনি ও তাঁর সরকার আরো ১ কোটি বেকার যুবক-যুবতীর কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করবেন। কিন্তু তারমাঝেই এবার শিক্ষিত বেকার যুবক যুবতীদের জন্য বড় ঘোষণা করল রাজ্য সরকার। রাজ্য স্বনির্ভর ও স্বনিযুক্তি প্রকল্পের মন্ত্রী সাধন পান্ডে এঁদের জন্য ঘোষণা করলেন ‘মুক্তিধারা’ নামে নতুন এক প্রকল্পের। এই নতুন প্রকল্পের মাধ্যমে শিক্ষিত বেকারদের ব্যবসার পথ দেখাতে মাত্র দুশতাংশ সুদে ঋণ দেবে রাজ্য সরকার।
মন্ত্রী সাধনবাবু এই প্রকল্পের উদ্বোধন করে জানান, কাজ করে রোজগারের সংস্থান না পেয়ে মাদক পাচারের মতো খারাপ পথে যাচ্ছে বর্তমান প্রজন্ম। তাই কে কোন দল করে তা দেখবেন না, শিক্ষিত বেকার কেউ যদি এই প্রকল্পের জন্য ব্লক অফিসে যায় বিডিওরা তার কাছ থেকে আবেদন গ্রহণ করে পাঠান। অতীতে বহু বেকার হয়রান হয়েছেন, মুক্তিধারা প্রকল্পে কোনও বিডিও কাউকে ফেরাতে পারবেন না, এমন যদি ঘটে আমি কিন্তু ব্যবস্থা নেব। গ্রাম বাংলায় বহু শিক্ষিত বেকার আছেন যাঁরা মাটি কাটা, পুকুর পরিষ্কারের কাজ করতে পারেন না, তাঁদের কাজের সংস্থান করে দেবে এই প্রকল্প, এই প্রকল্পে টাকার কোনও অভাব হবে না। ইতিমধ্যেই এই প্রকল্প চালু হয়ে গেছে পুরুলিয়া ও পশ্চিম মেদিনীপুরে, এরপরে চালু হতে চলেছে রাজ্যের আরো ১১ টি জেলায় বলে সূত্র মারফত জানা যাচ্ছে। প্রসঙ্গত ব্যবসার জন্য ব্যাঙ্ক থেকে ঋণ নিলে সুদ দিতে হয় ১১ শতাংশ, কিন্তু এখন যে কোনও পছন্দের ব্যবসার জন্য রাজ্য সরকারের তরফে আড়াই লক্ষ টাকা পর্যন্ত ঋণের ব্যবস্থা করে দেওয়া হবে ২ শতাংশ সুদে, বাকি সুদের টাকা ভর্তুকি দেবে সরকার। এমনকী যে সব স্বনির্ভর গোষ্ঠী অন্য প্রকল্পে অতীতে ৪ শতাংশ সুদে টাকা নিয়েছেন তাদের এখন থেকে ২ শতাংশ সুদ মেটালেই চলবে, ব্যাঙ্কগুলিকে বলা হয়েছে বাকি ২ শতাংশ মিটিয়ে দেবে রাজ্য সরকার।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!