এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উদ্ধার হলো বিপুল পরিমান টাকা,সন্দেহের তীর ভারতী ঘোষের দিকে

উদ্ধার হলো বিপুল পরিমান টাকা,সন্দেহের তীর ভারতী ঘোষের দিকে

এদিন মাদুরদহের একটি ফ্ল্যাটে হানা দিয়ে বিপুল পরিমাণ টাকা উদ্ধার করেছে সিআইডি।এই টাকার সাথে ভারতী ঘোষের যোগ দেখছে রাজনৈতিকমহল। যদিও সিআইডি এখনো যে ফ্ল্যাট থেকে ওই টাকা উদ্ধার করা হয়েছে তার মালিকের নাম প্রকাশ করেনি। তবুও এমন জল্পনা উঠেছে কেননা সেই আবাসনেই ফ্ল্যাট রয়েছে প্রাক্তন আইপিএস ভারতী ঘোষের। জানা গেছে ওই ফ্লাট থেকে নগদ ২ কোটি ৪০ লক্ষ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে সেগুলি সবই ১০০ এবং ৫০০ টাকার নোট।ওই অবসানে যে ভারতী দেবীর ফ্লাট আছে তা স্বীকার করেছেন ভারতী দেবী কয়েকদিন আগেই তাঁর করা সিআইডিকে অভিযোগের মাধ্যমে। তিনি অভিযোগ করেছিলেন যে, “গত চার দিন ধরে বলছি, সিআইডি আমার ফ্ল্যাটে ঘাঁটি গেড়ে বসে রয়েছে। ওরা কেন বলছে না, কার ফ্ল্যাটে তল্লাশি চালাচ্ছে? রাজ্য সরকার আমার বিরুদ্ধে প্রতিহিংসামূলক আচরণ করছে।”
এই টাকা উদ্ধারের বিষয়ে সিআইডি-র তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে,মাদুরদহের ওই আবাসনের কেয়ারটেকার রাজমঙ্গল সিং-কে রবিবার রাতে গ্রেফতার ও জেরা করে তার কাছ থেকে তিনটি ফ্ল্যাটের হদিস মেলে। এবং সারাদিন অভিযান চালিয়ে একটি ফ্ল্যাটের আলমারি ভেঙে নগদ ২ কোটি ৪০ লক্ষ টাকা পাওয়া গিয়েছে। কিন্তু ওই ফ্ল্যাটটির মালিক কে? এই বিষয়ে কিছুই জানান নি সিআইডি।তবে ভারতী দেবী অভিযোগ করেছিলেন, “যা কিছু তল্লাশি হচ্ছে, আদালতের পরোয়ানা নিয়েই হচ্ছে।”ওই বিপুল পরিমান টাকা যে ভারতীদেবীর একথা আরো জোর দিয়ে রাজনৈতিক মহল ধারণা করছে তার কারণ ভারতী ঘোষের আইনজীবী জয়ন্তনারায়ণ চট্টোপাধ্যায় এদিন দাবি করেছেন যে,“মাদুরদহের ওই আবাসনে ভারতী ও তাঁর স্বামী এমএভি রাজু দু’জনেরই ফ্ল্যাট রয়েছে। সিআইডি তল্লাশির নামে যা করছে, তা পূর্ব পরিকল্পিত।”

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!