এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > ভারতী ঘোষ বিজেপিতে – এবার কি বেরিয়ে আসবে জঙ্গলমহলের গোপন কথা?

ভারতী ঘোষ বিজেপিতে – এবার কি বেরিয়ে আসবে জঙ্গলমহলের গোপন কথা?



বিগত বাম আমলে মানুষের কান্না ও রক্ত দেখেই সকাল হত জঙ্গলমহলের মানুষগুলোর। কিন্তু 2011 সালে রাজ্যে পালাবদলের পর এবং মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শপথ নেওয়ার পরই সেই জঙ্গলমহলে ধীরে ধীরে ফিরে এসেছে শান্তির বাতাবরণ।

মাওবাদীদের আত্মসমর্পণ, চাকরি এবং একাধিক উন্নয়ন প্রক্রিয়ার মধ্যে দিয়ে সেই জঙ্গলমহলে এখন ফুটেছে নতুন সকাল। পুলিশ বনাম মাওবাদীদের সংঘর্ষ নিহত হয়েছে মাও নেতা কিষেণজীকেও। আর পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, ঝাড়গ্রামের অশান্ত অঞ্চলকে শান্ত করার জন্য প্রায় শত্রু মিত্র প্রত্যেকেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাশাপাশি এই ব্যাপারে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন প্রাক্তন আইপিএস ভারতী ঘোষকে।

অনেকে বলেন, এই ভারতী ঘোষের হাত ধরেই জঙ্গলমহলে মাওবাদী দমনে ব্লু প্রিন্ট তৈরি হয়েছিল। কিন্তু বর্তমানে সেই জঙ্গলমহলের রাজনৈতিক সমীকরণ অনেকটাই বদলেছে। তিনি ছিলেন তৃণমূল নেত্রীর অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ। তৃণমূল নেত্রীকে তিনি ‘মা ‘ বলেও ডেকেছিলেন একসময়। কিন্তু কোনো এক অদৃশ্য কারণে সেই মা মেয়ের সম্পর্কে তিক্ততা শুরু হয়।একসময় এইখানকার পুলিশ সুপারের দায়িত্বে থাকা ভারতী ঘোষের সঙ্গে এখন রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের আদায়-কাঁচকলায় সম্পর্ক তৈরী হয়। সম্প্রতি তৃণমূল কংগ্রেসের অস্বস্তি বাড়িয়ে রাজ্যের প্রধান বিরোধী দল হিসেবে পরিচিত বিজেপিতে যোগদান করেন একদা শাসকদলের ঘনিষ্ঠ এই ভারতী ঘোষ।

আর এরপরই তীব্র জল্পনা ছড়ায় যে, তাহলে কি আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে রাজ্যের শাসকদলের অস্বস্তিকে বৃদ্ধি করে ঠিক কিভাবে জঙ্গলমহলের অশান্তিকে দমন করে ব্লু প্রিন্ট সাজিয়ে সেখানে শান্তি ফিরিয়েছেন ভারতী দেবী তার সমস্ত তথ্য প্রকাশ করে দেবেন তিনি?


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

কেননা বিশেষ সূত্রের খবর পাওয়া যায় যে, এই জঙ্গলমহলের প্রায় প্রতিটা খুঁটিনাটি ব্যাপারেই ভারতী ঘোষের সঙ্গে শলা-পরামর্শ করতেন রাজ্যের শাসক দলের শীর্ষ কর্তাব্যক্তিরা। এমনকি স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও একসময় “জঙ্গলমহলের মা” বলে অভিহিত করেছিলেন এই ভারতী ঘোষ। ফলে সেই প্রাক্তন আইপিএস অফিসারের সঙ্গে রাজ্যের শাসকদলের আদায়-কাঁচকলায় সম্পর্ক ঠিক কোন দিকে মোড় নেয় এখন তা নিয়ে জল্পনা চরমে উঠছে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, এক সময় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছায়াসঙ্গী হিসেবে পরিচিত মুকুল রায় তৃণমূল থেকে বিজেপিতে আসার পর অনেকেই ভেবেছিলেন তৃণমূলের আদ্যপ্রান্ত সমস্ত বিষয় জানা মুকুলবাবু হয়ত দলের অনেক খবর ফাঁস করে দেবেন। সেইমতো একাংশের সেই আশঙ্কা কে সত্যি করে বিজেপিতে এসে তৃণমূলের বিরুদ্ধে বিভিন্ন দুর্নীতির অভিযোগ তুলে সোচ্চার হতে দেখা গেছে সেই মুকুল রায়কে।

আর এবার সেই মুকুল রায়েরই হাত ধরে একসময় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে “মা” বলা ভারতী ঘোষ বিজেপিতে এলে তিনি যে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসকে ছেড়ে কথা বলবেন না সেই ব্যাপারে একপ্রকার নিশ্চিত শাসকদলেরই একাংশ। তবে ঠিক কি কি ব্যাপারে মুখ খুলে শাসকের অস্বস্তি বাড়াতে পারেন এই প্রাক্তন আইপিএস অফিসার? তা নিয়ে ইতিমধ্যেই চরমে উঠতে শুরু করেছে জল্পনা।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!