এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > বাঙালিদের একরাশ খুশি দিয়ে নেতাজিকে নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত কেন্দ্রর

বাঙালিদের একরাশ খুশি দিয়ে নেতাজিকে নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত কেন্দ্রর

বড়দিনের মরশুমে বাঙালিদের একরাশ খুশির খবর দিতে আন্দামানে নেতাজীর নামে একটি গোটা দ্বীপের নামকরণ করতে চলেছে মোদী সরকার। আগামী ৩০ ডিসেম্বর আজাদ হিন্দ বাহিনীর ৭৫ বর্ষপূর্তি উপলক্ষ্যে পোর্ট ব্লেয়ার যাবেন প্রধানমন্ত্রী। সেখানেই আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করা হবে দ্বীপের নাম। সেদিন থেকেই বদলে যাবে তিনটি দ্বীপের নাম। এই সংশ্লিষ্ট দ্বীপগুলোর মধ্যে একটি দ্বীপের নাম হবে নেতাজীর নামে। আন্দামানের রস দ্বীপটির নাম পরিবর্তন করে নেতাজী করা হচ্ছে। এছাড়া নীল এবং হ্যাভলক দ্বীপের নাম পরিবর্তন করে করা হচ্ছে শহীদ দ্বীপ এবং স্বরাজ দ্বীপ। এমনটাই জানা গেল কেন্দ্রের সূত্রের থেকে।

সময়টা ছিল ১৯৪৩ সাল। সেসময় জাপানিরা আন্দামান দখল করলে নেতাজি আজাদ হিন্দ বাহিনীর সাহায্যে বিদেশিদের দখল থেকে আন্দামানকে মুক্ত করে সেখানে ভারতের পতাকা উড়িয়েছিলেন। এবং আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপ দুটির নাম ‘শহীদ’ ও ‘স্বরাজ’ রেখেছিলেন। নেতাজির সেই দাবীকেই এবার স্বীকৃতি দিলেন নরেন্দ্র মোদী। তবে স্বাধীনতা উত্তর কালে প্লোর্ট ব্লেয়ারের নাম নেতাজীর নামে করার দাবী তোলে ফরওয়ার্ড ব্লক। সে দাবী পূরণ না হলেও আন্দামানের একটি সম্পূর্ণ দ্বীপের নাম নেতাজীর নামে হল। এ প্রসঙ্গে ফরওয়ার্ড ব্লকের সাধারণ সম্পাদক দেবব্রত বিশ্বাস বলেন, ‘আমাদের দীর্ঘদিনের দাবি ছিল পোর্ট ব্লেয়ারের নামকরণ করতে হবে নেতাজির দেওয়া নামে। ৩০ তারিখ তো প্রধানমন্ত্রী যাচ্ছেন। সরকারি বিজ্ঞপ্তি আগে দেখি, সেই অনুযায়ী পরবর্তী কর্মসূচি নেওয়া হবে।’ এর পাশাপাশি তিনি আরো জানান,লোকসভা ভোটকে টার্গেট করেই ভোটব্যাঙ্কের স্বার্থেই বিজেপি সরকার এ ধরণের পদক্ষেপ নিয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০১৭ সাল থেকেই রাজ্যসভায় হ্যাভলক দ্বীপের নাম পরিবর্তন করার দাবী তোলা হয়েছিল বিজেপির পক্ষ থেকে। স্বাধীনতার আগে ব্রিটিশ জেনারেল হ্যাভলকের নামেই ওই দ্বীপের নামকরণ করা হয়েছিল। একজন ইংরেজের নামে কেন ভারতের কোনো জনপদের নাম থাকবো তা নিয়েই রাজ্যসভায় প্রশ্ন তোলে বিজেপি। সেই কারণেই হ্যাভলক দ্বীপের নাম বদল করা হচ্ছে,এমনটাই খবর রাজনৈতিক সূত্রের।

 

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

তার পাশাপাশি লোকসভা ভোটর আগে দেশবাসীর নেতাজি আবেগকে উস্কে দিতে রস ও নীল দ্বীপের নাম পরিবর্তন করা হচ্ছে এমনটাই মত রাজনৈতিকমহলের। তবে পোর্ট ব্লেয়ারের নাম বদল না করার ফরওয়ার্ড ব্লক অসন্তোষ প্রকাশ করেছে। বিষয়টি নিয়ে রাজনৈতিক তরজাও কিছু কম নেই অভিজ্ঞমহলে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!