এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > বাংলাতেও নাগরিকপঞ্জী নিয়ে এবার বড় দাবী প্রাক্তন বিজেপি সভাপতির

বাংলাতেও নাগরিকপঞ্জী নিয়ে এবার বড় দাবী প্রাক্তন বিজেপি সভাপতির

অসমের এনআরসির পথ অনুসরণ করে বাংলাতেও এনআরসি করার সমর্থনে গর্জে উঠলেন বিজেপি নেতা রাহুল সিনহা। রাজ্যের শাসকদল যতোই এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করুক না কেন,বাংলায় এনআরসি হওয়াকে কেউ আটকাতে পারবে না। স্মরণার্থীরা এখানে থাকবেন এবং অনুপ্রবেশকারীদের এ রাজ্য থেকে বহিষ্কার করা হবে,বিসর্জন দেওয়া হবে। এটাই ভারতীয় জনতা পার্টির নীতি। এমনটা বলেই মালদহে এক অনুষ্ঠানের মঞ্চ থেকে মমতা  বন্দ্যোপাধ্যায়কে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিলেন রাহুল সিনহা।

যুক্তিতে তিনি জানান, পশ্চিমবঙ্গের বুকে এই মুহূর্তে প্রায় দেড় কোটির মতো অনুপ্রবেশকারী রয়েছে, যা সংখ্যাটার নিরিখে অসমের উদ্বাস্তুদের তুলনায় অনেকটাই বেশি। এরা বাংলায় থেকে চাকরি  দখল করছে, ধ্বংস করছে অন্ন। বাম সরকার তাদের আবার রেশন কার্ডের সুবিধা করে দিয়েছিল। ভোটার লিস্টে নাম তুলে দিয়ে এ রাজ্যে থাকার সবুজ সংকেত দিয়ে দিয়েছিল। কংগ্রেসেরও একই রকম আচরণ ছিল তাদের প্রতি।  আবার তৃণমূল তো এদের ভোটেই জয়লাভ করে বঙ্গের মাটিতে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে এখন। এই অনুপ্রবেশকারীরা গেলেই তৃণমূলের ভোটব্যাঙ্কে ধস নামবে এমটাও আগ বাড়িয়ে বলে ফেললেন তিনি। এর সঙ্গেই শিলচর বিমানবন্দরে তৃণমূলের প্রতিনিধদলকে পুলিশ আটকের সম্মুখীন হতে হয়েছিল অযথাই।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে।

এ প্রসঙ্গেও যুক্তি ছিল তাঁর কাছে। সেসময় পুলিশ যদি তাঁদেরকে বিমানবন্দর চত্বরে না আটকাতো,তাহলে তাঁদের গুরুতর আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা ছিল। এমনকী তাঁদের প্রাণ নিয়ে আর বেঁচে ফিরতে হতো না বলেই দাবী করেন তিনি। কারণ শিলচরে মানুষ সেসময় মারমুখী হয়ে ছিল। তাঁরাই তৃণমূল জনপ্রতিনিধিদের হালত খারাপ করে দিত। তাঁদের গনপিটুনির হাত থেকে অসম পুলিশই বাঁচিয়েছে সেদিন।  আর এটাকে ইস্যু করে তৃণমূলের কোনো প্রতিনিধি আর অসমের বাঙালিদের অবস্থা তদারক করতে যাচ্ছে না বলেও কটাক্ষ করলেন বিজেপি নেতা। তবে রাহুল সিনহার এই মন্তব্যের পর পাল্টা কোনো প্রতিক্রিয়া এখনো অব্দি পাওয়া যায়নি নবান্ন কর্তাদের তরফ থেকে। তবে দলীয় অন্দরে যে তীব্র গুঞ্জন রয়েছে এর জেরে,এর আঁচ পাওয়া যাচ্ছে রাজনৈতিক সূত্রের খবর থেকে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!