এখন পড়ছেন
হোম > অন্যান্য > সামান্য বীট আপনার ওজন সমস্যার সমাধান থেকে শুরু করে কি কি উপকার করতে পারে জানলে চমকে যাবেন

সামান্য বীট আপনার ওজন সমস্যার সমাধান থেকে শুরু করে কি কি উপকার করতে পারে জানলে চমকে যাবেন

আজকের দ্রুত গতির যুগে সকলেরই প্রায় একই সমস্যা – হঠাৎ করে ওজন বৃদ্ধি হয়ে যাওয়া। সময়ে না খাওয়া, ঠিক করে ঘুম না হওয়া বা প্রায়শই বাইরের জাঙ্ক ফুড খেতে বাধ্য হওয়া – এইসবই আমাদের ওজন বৃদ্ধি হয়ে যাওয়ার অন্যতম কারণ। ফলে, পুরোনো জামা আর গায়ে হচ্ছে না – নিমন্ত্রণ বাড়িতে বা পুরোনো বন্ধু-বান্ধবদের সঙ্গে দেখা হলে স্থূলতা নিয়ে কটাক্ষ হজম – আরও মুশকিল করে তুলছে সব কিছু।

আর কীভাবে ওজন কমাতে হবে? এই কথা ভাবলেই সর্বপ্রথমে মনে পরে নিয়মিত ডায়েট কন্ট্রোল ও এক্সারসাইজের কথা। কিন্তু সময়ের অভাবে – দুটোই করা আজকের দিনে কার্যত অসম্ভবের পর্যায়ে পরে যাচ্ছে! আর তাই, এর বাইরে খাদ্য সহ বিভিন্ন প্রকার পরীক্ষামূলক চিন্তা ভাবনা মাথায় আসে। কিন্তু একটি বারের জন্যও মনে পরে না আমাদের চিরপরিচিত খাদ্য ‘বিটরুট’ এর কথা।

আর নতুন গবেষণা বলছে আমাদের চিরপরিচিত এই সামান্য জিনিসটিই এবার আপনার ওজন নিয়ন্ত্রণে আনতে বড়সড় ভূমিকা পালন করতে পারে। কেননা, বিটরুটতে ব্যাটালিয়নের মতো পরিচিত ফাইটুনট্রিয়েন্ট রয়েছে, যা ডিটক্সিফিকেশনে সহায়তা করে। ফলে বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন, বিটরুট আপনার শরীরের ওজন কমাতে পারে। বিজ্ঞানীদের মতে, বিটরুটে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি, ফ্লোয়েট এবং ফাইবার রয়েছে।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এখানে

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

ফলে শুধু ওজন কমানোই নয়, আপনার চিরপরিচিত বিট এবার থেকে হয়ে উঠতে পারে আপনার বড়সড় মুশকিল আসান! প্রতিদিন নিয়মিত ভাবে এই লাল রঙের সব্জিটি যদি আপনি খান তাহলে শরীরের ওজন কমানোর সাথে সাথে আরও অনেক ধরনের রোগ নিরাময় হবে। এই ফলটি আপনাকে দীর্ঘায়ু করবে এবং দীর্ঘস্থায়ী রোগ প্রতিরোধ করতে সাহায্য করবে। নিয়মিত ভিত্তিতে এটি আপনার মানসিক এবং শারীরিক স্বাস্থ্যও বাড়াতে পারে।

এছাড়াও বিট আপনার শারীরিক শক্তি উন্নত করতে পারে। পাচন, যৌন স্বাস্থ্য এবং নিম্ন রক্তচাপ উন্নত করতে পারে। আপনি যদি আপনার মস্তিষ্কের দক্ষতা উন্নত করতে চান তাহলেও কিন্তু আপনার দৈনন্দিন খাদ্যের মধ্যে বীটমূল যোগ করা শুরু করুন। এছাড়াও, ফাইবারের একটি ভাল উৎস হওয়ায় বীটরুট আপনার তৃপ্তি সচেতনতা বাড়ায়।

এছাড়াও নিয়মিত বিট খেলে আপনার শরীরের খাদ্য হজম করার শক্তি বৃদ্ধি পাবে। তাছাড়া ম্যাগনেসিয়ামের উচ্চ মাত্রা ধারণ করায় বীটরুট ফ্যাট টিস্যু হ্রাসে সহায়তা করে। ফলে, পরিচিত টেস্টোস্টেরোন হরমোন স্রোতকে বাড়িয়ে তোলে আর এতেই হয় আপনার স্থূলতার সমস্যার সমাধান। আর তাই, পরের ফ্যামিলি গেট-টুগেদারে সবাইকে চমকে দিতে – এবার থেকে নিয়মিত আপনার খাদ্য তালিকায় থাকুক বিট।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!