এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মূল বাজার থেকে ‘দূরে’ তৈরি কিষাণ মান্ডি এতদিনেও চালু করতে না পেরে বেসরকারি সংস্থার হাতে তুলে দেওয়ার পথে সরকার!

মূল বাজার থেকে ‘দূরে’ তৈরি কিষাণ মান্ডি এতদিনেও চালু করতে না পেরে বেসরকারি সংস্থার হাতে তুলে দেওয়ার পথে সরকার!

ক্ষমতায় আসার পর রাজ্যের কৃষকদের জন্য অনেক সাধ করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তৈরি করেছিলেন কিষাণ মান্ডি। কিন্তু এবারে বর্ধমান মেমারি ওয়ান কিষাণ মান্ডি চালু করতে না পেরে তা সঁপে দিতে হচ্ছে একটি বাণিজ্যিক সংস্থার হাতে। আর যার জেরেই তৈরি হয়েছে তুমুল বিতর্ক। কিন্তু হঠাৎ কেন সরকারের এহেন প্রকল্পকে এক বেসরকারি বাণিজ্যিক সংস্থার হাতে তুলে দিতে হল?

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এই মেমারি থেকে এক কিলোমিটার দূরে নুদিপুর ব্রিজ লাগোয়া জিটি রোডের ধারে একটি কিষাণ মান্ডি নির্মাণ করা হয়েছিল। আর এই কিষান মান্ডি চালু করার পরেও বাড়তি উদ্বোধন করা হলেও কাজের কাজ কিছুই হয়নি। একাংশের অভিযোগ, এই কিষাণ মান্ডিকে সচল করবার জন্য মেমারি স্টেশনের ফল বাজারকে সেখানে তুলে আনতে চেয়েছিল প্রশাসন।

কিন্তু শহরের একাধিক মানুষ এই ফল কেনার জন্য প্রায় এক কিলোমিটার দূরে যেতে নারাজ। পাশাপাশি ব্যবসায়ীরাও নিজেদের পুরোনো জায়গা ছাড়তে রাজি নয়। আর এহেন একটা পরিস্থিতিতে যখন রাজ্যের তরফ থেকে জেলা প্রশাসনের কাছে এই কিষাণ মান্ডি চালু করতে প্রবল চাপ বাড়ছে তখন এই মেমারি 1 কিষাণ মান্ডিকে বাণিজ্যিক সংস্থার হাতে তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্তে প্রবল বিতর্ক তৈরি হয়েছে।

এদিন এই প্রসঙ্গে বর্ধমান সদর দক্ষিণ মহকুমা শাসক অনির্বান কোলে বলেন, “মেমারি 1 কিষাণ মান্ডিতে ওই বাণিজ্যিক সংস্থা নিজের জিনিসপত্র তৈরি করতে চায়। সংস্থাটি নেওয়ার বিষয়ে আগ্রহী হওয়ায় জেলাশাসক এই বিষয়ে রাজ্যের সঙ্গে কথা বলেছেন। সবটাই আলোচনা স্তরে রয়েছে। রাজ্য সরকার বাণিজ্য সংস্থার কাছ থেকে এই ব্যাপারেও অর্থ পাবে।”

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

সব মিলিয়ে সরকারি কিষাণ মান্ডি চালু করতে না পারায় এখন তা বেসরকারি সংস্থার হাতে তুলে দেওয়ার ভাবনায় প্রশাসনিক সিদ্ধান্তে তীব্র বিতর্ক জেলাজুড়ে।

Top
error: Content is protected !!