এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > ব্যারাকপুরে লড়াইটা আর অর্জুন বনাম দীনেশ নয়, বরং সরাসরি মোদী বনাম মমতা হয়ে গেল?

ব্যারাকপুরে লড়াইটা আর অর্জুন বনাম দীনেশ নয়, বরং সরাসরি মোদী বনাম মমতা হয়ে গেল?

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যের নজরকাড়া কেন্দ্রগুলির মধ্যে অন্যতম ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্র। এখানে তৃণমূলের তরফে গতবারের বিদায়ী সাংসদ দীনেশ ত্রিবেদীকে প্রার্থী করা হলে পাল্টা দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে গেরুয়া শিবিরে নাম লিখিয়ে এখানে বিজেপির তরফে প্রার্থী হয়েছেন সদ্য তৃণমূল ত্যাগী অর্জুন সিংহ।

আর দুই হেভিওয়েটের লড়াইয়ে এবার জমে উঠেছে ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রের রাজনৈতিক লড়াই। এতদিন এই ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রে প্রার্থীরা একে অপরের বিরুদ্ধে সরব হলেও এবার দলীয় প্রার্থীদের জেতাতে বিজেপি এবং তৃণমূলের হেভিওয়েট শীর্ষ নেতা-নেত্রীরা ময়দানে নামতে পারেন বলে জানা গেছে।

সূত্রের খবর, বিজেপির জন্য সম্ভাবনাময় এই ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রে যাতে এবার জয় আসে তার জন্য ইতিমধ্যেই জোর প্রচার শুরু করেছে গেরুয়া শিবির। জানা গেছে, বিজেপির তরফে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রে প্রচারে ঝড় তোলার জন্য আনা হতে পারে। কিন্তু ঠিক কবে আসবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী? এই ব্যাপারে বিজেপির ব্যারাকপুর জেলা সভানেত্রী ফাল্গুনী পাত্রকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, “আমরা দলের শীর্ষ নেতৃত্বের কাছে সময় চেয়েছি। তারা বিস্তারিত জানাবেন।”

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এখানে

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

তবে রাখঢাক না করে একেবারে আগামী 2 মে প্রধানমন্ত্রী জগদ্দল থানার কাছে জিলিবিয়া মাঠে সভা করতে পারেন বলে জানান ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী অর্জুন সিংহ। এদিকে বিজেপি যখন নরেন্দ্র মোদিকে এনে ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রে গেরুয়া ঝড় তুলতে সচেষ্ট, ঠিক তখনই আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্র আরও একবার দখল করতে তৃণমূলের তরফে এখানে প্রচারে আসতে চলেছেন তৃণমূল সুপ্রিমো তথা বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও বলে জানা গেছে।

ইতিমধ্যেই মুখ্যমন্ত্রীর এই সভার ব্যাপারে সব রকম প্রস্তুতি নিতে সোমবার বিকেলে গাড়ুলিয়ার নোয়াপাড়া বিধানসভার বিধায়ক সুনীল সিং দলীয় নেতাদের নিয়ে একটি বৈঠক করেন। জানা গেছে, ব্যারাকপুরের সিএমডিয়ের আবাসনের কাছে থাকা একটি মাঠে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জনসভা অনুষ্ঠিত হবে। এই প্রসঙ্গে সুনীল সিং বলেন, “মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জনসভা উপলক্ষে একটি জায়গা চিহ্নিত করা হয়েছে।”

অন্যদিকে ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্র দখলের জন্য উঠে পড়ে লেগেছে হাত শিবির। জানা গেছে, কংগ্রেস প্রার্থী মহম্মদ আলমের সমর্থনে এইখানে রাহুল গান্ধী, প্রিয়াঙ্কা গান্ধী, রাজ্যের বব্বর ও সিধুদের আসার কথা রয়েছে। অন্যদিকে সিপিএম প্রার্থী গার্গী চট্টোপাধ্যায়ের সমর্থনে সূর্যকান্ত মিশ্র, মহম্মদ সেলিম, সীতারাম ইয়েচুরিরা প্রচারে আসবেন বলে জানা গেছে। সবমিলিয়ে শাসক-বিরোধী হেভিওয়েট শীর্ষ নেতা নেত্রীদের প্রচারে রাজ্যের অন্যতম কেন্দ্র হিসেবে যে ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রই উঠে আসছে সেই ব্যাপারে একপ্রকার নিশ্চিত ওয়াকিবহাল মহল।

আপনার মতামত জানান -
Top