এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > নদীয়া-২৪ পরগনা > ব্যারাকপুর ঘাসফুলমুক্ত করতে এবার নতুন সমীকরণ অর্জুন সিংহের? বাড়ছে জল্পনা

ব্যারাকপুর ঘাসফুলমুক্ত করতে এবার নতুন সমীকরণ অর্জুন সিংহের? বাড়ছে জল্পনা

প্রতিপক্ষকে দমাতে রাজনীতিতে তৃতীয় পক্ষের আশ্রয় নিতে দেখা যায় অনেক হেভিওয়েট রাজনীতিবিদদের। আর এবার আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে প্রতিপক্ষকে দমাতে দীর্ঘদিনের বামেদের প্রাক্তন সাংসদ তড়িৎবরন তোপদারের বাড়িতে যেতে দেখা গেল সদ্য তৃণমূল ত্যাগী তথা বর্তমানে ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী অর্জুন সিংহকে।

আর যাকে ঘিরে এখন রাজ্যের রাজনৈতিক মহলে তীব্র গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়েছে। প্রসঙ্গত, টানা ছয় বারের ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ ছিলেন এই তড়িৎবরন তোপদার। গত 2004 সালের লোকসভা নির্বাচনে এখান থেকে বামেদের পক্ষ থেকে তিনি প্রার্থী হলে তার বিরুদ্ধে তৃণমূলের পক্ষ থেকে দাঁড়িয়ে জয় ছিনিয়ে আনতে পারেনি বর্তমান বিজেপি নেতা অর্জুন সিংহ।

কিন্তু 2009 সালের লোকসভা নির্বাচনে এখানে তৃণমূলের পক্ষ থেকে দাঁড় করানো হয় দীনেশ ত্রিবেদীকে আর। দীনেশ বাবুকে জেতানোর জন্য অর্জুন সিং চেষ্টা করে শেষ পর্যন্ত এই তড়িৎবরন তোপদারকে হারাতে সক্ষম হয়। এদিকে এরপর গত 2014 সালের লোকসভা নির্বাচনের সময় এই ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্র থেকে বামেদের পক্ষ থেকে দাঁড় করানো হয় সুভাষিনী আলিকে। তবে সুভাষিনী দেবীকেও শেষ পর্যন্ত পরাজিত করে সেখানে শেষ হাসি হাসেন তৃণমূলের দীনেশ ত্রিবেদী।

কিন্তু আসন্ন 2019 সালের লোকসভা নির্বাচনে অনেকটাই পরিস্থিতির পরিবর্তন হয়েছে। এবারে এই ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্র থেকে তৃণমূলের টিকিট পাওয়ার জন্য তদবির করেছিলেন অর্জুন সিংহ। কিন্তু শেষ পর্যন্ত মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই কেন্দ্রের প্রার্থী হিসেবে দীনেশ ত্রিবেদীর নাম ঘোষণা করাতেই তৃণমূল ত্যাগ করে বিজেপিতে যোগদান করেন অর্জুন বাবু।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

আর এরপরই বিজেপির তরফে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রের প্রার্থী হিসেবে অর্জুন সিংহের নাম ঘোষণা করা হয়। আর প্রার্থী হিসেবে তার নাম ঘোষণা করার পরই একদা প্রবল প্রতিপক্ষ হিসেবে পরিচিত প্রবীণ প্রাক্তন বাম সাংসদের বাড়িতে অর্জুন সিংয়ের চলে যাওয়ার পেছনের অনেক তাৎপর্য রয়েছে বলে মনে করছে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

জানা গেছে, এদিন তড়িৎবরন তোপদারের বাড়িতে গিয়ে তার পায়ে হাত দিয়ে প্রণাম করে, চা খেয়ে বেশ কিছুক্ষন তার সঙ্গে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা বলেছেন ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী অর্জুন সিংহ। তবে ঠিক কি বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে দুজনের মধ্যে সেই ব্যাপারে মুখ খুলতে নারাজ কোনো পক্ষই। কেন তিনি হঠাৎ তড়িৎবরন তোপদারের বাড়িতে গেলেন?

এদিন এই প্রসঙ্গে ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী অর্জুন সিংহ বলেন, “উনি দীর্ঘদিনের সংসদ সদস্য ছিলেন। আমি ওনার কাছে আশীর্বাদ চাইতে গিয়েছিলাম। তাই এর পেছনে যদি আপনার অন্য কোন উদ্দেশ্য খুঁজতে যান তাহলে সেটা ঠিক হবে না।”

অন্যদিকে কী আলোচনা হয়েছে, এই প্রশ্ন করাতে এদিন তার উত্তরে ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রের প্রাক্তন বাম সাংসদ তড়িৎবরন তোপদার বলেন, “কী আলোচনা হয়েছে তা আপনাদের কেন বলতে যাবো! শুধু এতটুকু বলতে পারি কোনো বিষয় নিয়ে কোন আলোচনা হয়নি। আমার বাড়ির সামনে দিয়ে দীনেশ ত্রিবেদী প্রচারে যাচ্ছিলেন। তখন তিনিও আমাকে হাত নাড়িয়েছেন। তো তাতে কি হয়েছে!”

তবে অর্জুন সিংহ বা তড়িৎবরন তোপদার – দুজনের মধ্যে আলোচনা নিয়ে যে যতই এড়িয়ে যাক না কেন, দুটি রাজনৈতিক লোকের মধ্যে দীর্ঘ আলোচনায় শুধু চা- জলখাবার এবং প্রণাম পর্বই অনুষ্ঠিত হবে, বাদবাকি রাজনৈতিক কথোপকথন হবে না এই ব্যাপারটি মানতে নারাজ বিশেষজ্ঞরা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!