এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > বাড়ছে মোবাইল খরচ – তার মাঝেই মুশকিল আসন জিওর ‘অল-ইন-ওয়ান’ – জানুন বিস্তারিত

বাড়ছে মোবাইল খরচ – তার মাঝেই মুশকিল আসন জিওর ‘অল-ইন-ওয়ান’ – জানুন বিস্তারিত

লাইসেন্স ফি এবং স্পেকট্রাম ব্যবহারের চার্জ নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে সম্প্রতি মাথায় হাত পড়েছিল দেশের তাবৎ টেলিকম সংস্থাগুলির। ভারতী এয়ারটেল, ভোডাফোন আইডিয়া সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে বেশি পরিমাণ ক্ষতির মুখ দেখেছিল। সেই জায়গা থেকে ঘুরে দাঁড়াতে ভারতের প্রতিটি টেলিকম সংস্থাই এবার মোবাইল পরিষেবার খরচ বাড়াতে চলেছে। আগামী থার্ড ডিসেম্বর থেকে নতুন হারে গ্রাহক পরিষেবা দিতে চলেছে সংস্থাগুলি। তবে তার মাঝেই মুকেশ আম্বানির রিলায়েন্স জিও গ্রাহকদের সুবিধার কথা মাথায় রেখে নতুন একটি প্ল্যান নিয়ে এসেছে, যার নাম অল-ইন-ওয়ান প্ল‍্যান।

ভোডাফোন, এয়ারটেল এবং জিও ভারতবর্ষের এই তিনটি মুখ্য টেলিকম সংস্থা এবার গ্রাহক পরিষেবা দেওয়ার জন্য বর্ধিত হারে মাসুল বাড়াতে চলেছে। জিওর তরফ থেকে বলা হয়েছে আগামী 6 ডিসেম্বর থেকে তাঁরা প্রিপেড পরিষেবার খরচ বাড়াতে চলেছে। যদিও জিও 6 ই ডিসেম্বর একটি নতুন প্ল্যান বাজারে নিয়ে আসছে। যাতে ডাটা খরচ ও কথা বলার খরচ 40% বেশি হবে। কিন্তু এক্ষেত্রে জিওর সুবিধা যেটা পাওয়া যাচ্ছে তা হল, আউটগোয়িং কল এর ক্ষেত্রে গ্রাহকরা 300% বেশি সুবিধা ভোগ করবেন বলে দাবি করা হয়েছে জিওর তরফ থেকে।

জিও তরফ থেকে আরও বলা হচ্ছে, নতুন প্ল‍্যানের স্বচ্ছতা অন্যান্য টেলিকম নেটওয়ার্ক এর থেকে অনেক বেশি। জিওর তরফ থেকে সম্প্রতি একটি বিবৃতি জারি করা হয়েছে। তাতে বলা হয়েছে, ‘আনলিমিটেড ডেটা ও ভয়েজ কলের সুবিধা যুক্ত নতুন all-in-one চালু করেছে জিও। অন্য মোবাইল পরিষেবা সংস্থার মোবাইলে ফোন করার ক্ষেত্রে নতুন এই প্ল্যানের নীতি খুবই স্বচ্ছ হবে। 2019 সালের 6 ডিসেম্বর থেকে এই প্ল্যান চালু হবে।’ বর্ধিত হারে খরচ বাড়ার কারণে গ্রাহক মহলে এমনিতেই চিন্তার ভাঁজ। তবে রিলায়েন্স জিও জানিয়েছে, সরকারের সাথে আলোচনা করেই তাঁরা এই বর্ধিত হারে গ্রাহক পরিষেবা দিতে চলেছে।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

অন্যদিকে, ভোডাফোন, আইডিয়া এবং এয়ারটেল তাঁদের বর্ধিত মাসুল শুরু করতে চলেছে আগামী 3 ডিসেম্বর থেকে। ভোডাফোন ও এয়ারটেল উভয় ক্ষেত্রেই গ্রাহক পরিষেবা পেতে 42 শতাংশ বেশি খরচ করতে হবে। এই নিয়ে এয়ারটেলও একটি বিবৃতি দিয়ে জানায়, তাদের খরচ প্রতিদিন গড়ে 50 পয়সা থেকে 2 টাকা 85 পয়সা পর্যন্ত বাড়তে চলেছে। শোনা যাচ্ছে, এয়ারটেল এবং ভোডাফোন দুটি সংস্থাই সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে বিশাল পরিমাণ ক্ষতির মুখে পড়েছে।

এছাড়াও গত ত্রৈমাসিকে এই দুটি সংস্থাই বিপুল লোকসানের মুখ দেখেছে। যেখান থেকে ঘুরে দাঁড়াতে তাঁদের এই গ্রাহক পরিষেবা আর মূল্যবৃদ্ধির সিদ্ধান্ত। সম্প্রতি টেলিকম সেক্টরে কানাঘুষা শোনা যাচ্ছিল, ভোডাফোন অতিরিক্ত ক্ষতির বহর নিতে না পেরে ব্যবসা গুটিয়ে নিতে চলেছে ভারত থেকে। কিন্তু তারপরেই সরকারের পক্ষ থেকে ঋণ পরিশোধ করার সময়সীমা দু’বছর পর্যন্ত বাড়িয়ে দেওয়া হয়। ফলে সাময়িক স্বস্তি বোধ করে দুই টেলিকম সংস্থা। জিওকেও সরকারিখাতে টাকা দিতে হবে তবে তা খুবই সামান্য। কারণ, রিলায়েন্স জিও সদ্যই টেলিকম সেক্টরে পা দিয়েছে।

গ্রাহক পরিষেবার মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে ইতিমধ্যে টেলিকম সেক্টরে নানান আলোচনা-পর্যালোচনা শুরু হয়েছে। তবে টেলিকম বিশেষজ্ঞদের মতে, বর্তমান টেলিকম সংস্থাগুলি যদি তাঁদের মাশুল না বাড়াতো, তাহলে তাঁদের ক্ষতির মুখ থেকে ঘুরে দাঁড়ানো অসম্ভব হতো। যে বিপুল আর্থিক বোঝা তাঁদের ঘাড়ে চেপেছিল, তা মেটানোর জন্য এছাড়া আর কোনো রাস্তা ছিলনা। তবে টেলিকম সংস্থাগুলি অনেক আগে থেকেই সিদ্ধান্ত নিয়েছিল, আগামী ডিসেম্বর থেকে তাঁরা গ্রাহক মাশুল বাড়াবে। আপাতত টেলিকম বিশেষজ্ঞরা নজরে রাখছে, গ্রাহক মাসুল বাড়িয়ে টেলিকম সংস্থাগুলি তাঁদের আর্থিক সংকট কাটিয়ে উঠে ঘুরে দাঁড়াতে সক্ষম হচ্ছে কিনা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!