এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > রথের মেলায় পথ হারালেন বঙ্কিমের কপালকুণ্ডলা, খোঁজ মিলল শরতের রাধারাণীর – ফের বিতর্কিত মন্তব্য মুখ্যমন্ত্রীর

রথের মেলায় পথ হারালেন বঙ্কিমের কপালকুণ্ডলা, খোঁজ মিলল শরতের রাধারাণীর – ফের বিতর্কিত মন্তব্য মুখ্যমন্ত্রীর

মুখ্যমন্ত্রীর বক্তৃতায় নতুন তথ্যের উপস্থাপনা। গত 4ঠা জুলাই প্রভু জগন্নাথদেবের রথযাত্রা উপলক্ষে হুগলির শ্রীরামপুর মাহেশে উৎসবের শুভ সূচনা করেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী। রথের রশিতে টান দিয়ে তিনি এই উৎসবের উদ্বোধন করেন, বক্তৃতাও রাখেন।

তিনি বলেন যে, “এই মাহেশের রথেই গিয়েছিলো কপালকুণ্ডলা উপন্যাসে আপনারা জানেন বঙ্কিমচন্দ্র চট্ট্যোপাধ্যায় যে কপালকুণ্ডলা উপন্যাস লিখেছিলেন তাতে রাধারানী হারিয়ে গিয়েছিলো,এই মাহেশের রথযাত্রায় এসে। অনেক ইতিহাস অনেক সাক্ষী” যা ঘিরেই শুরু বিতর্ক।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

কেননা বক্তৃতায় বঙ্কিমচন্দ্রের লেখনী নিয়ে তিনি যে নতুন মনগড়া তথ্য দেন তা শুনে হতবাক অনেকেই।তাঁর কথায় সাহিত্যসম্রাটের কপালকুণ্ডলা উপন্যাসে রাধারানী মাহেশের রথে হারিয়ে গিয়েছিলো।যদিও কপালকুণ্ডলা উপন্যাসের কপালকুন্ডলার কথাই তিনি বোধহয় ভুলে গিয়েছিলেন।

তবে বক্তৃতার মাঝে এই ভুল তথ্য পরিবেশনের নজির মাননীয়া আগেও রেখেছেন।সরস্বতী পুজোকে বসন্ত উৎসব বলা, প্রেমের উৎসব বলা,দেবী সরস্বতীর আরাধনা মন্ত্র জনসমক্ষে দাঁড়িয়ে অকপটে ভুল বলার নজির তিনি আগেও রেখেছেন।

মাননীয়ার এই ভুল তথ্য পরিবেশন বিরোধীদের কাছে সমালোচনার নতুন বিষয় হয়েছে উঠেছে ।তাঁদের মতে এই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর কাছে এই ধরণের বিভ্রান্তিকর বক্তৃতা কাম্য নয় |

তৃণমূল সমর্থকদের পাল্টা যুক্তি বিরোধী নেতৃত্বও পূর্বে এরকম অনেক বিভ্রান্তিকর বক্তব্য রেখেছেন ।তাই মমতা বন্দোপাধ্যায় এর এই সাধারণ ভুল নিয়ে সমালোচনা করার কোনো মানেই হয় না |

সাধারণ মানুষ অবশ্য নেত্রীর বারংবার এই ধরণের ভুল বক্তব্য পরিবেশনকে যে ভালোভাবে দেখছেননা তা খুবই স্বাভাবিক। সোশ্যাল নেটওয়ার্কে সে কারণেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় এর বক্তৃতা সমালোচনার বিষয়বস্তু হয়ে উঠছে নেত্রীকে সচেতন হওয়া উচিত দাবি রাজনৈতিক মহলের।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!